kalerkantho


নিষেধাজ্ঞা উঠে গেল রাবাদার

২১ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



নিষেধাজ্ঞা উঠে গেল রাবাদার

টেস্টের একটা সেশন দুই ঘণ্টার। অথচ কাগিসো রাবাদার আইনজীবী ও আইসিসির কোড অব কন্ডাক্ট আপিল কমিশনারের শুনানিটা চলল ছয় ঘণ্টারও বেশি! গত পরশু এ শুনানি শেষে জয়ী রাবাদাই। স্টিভেন স্মিথকে ধাক্কা মেরে দুই টেস্টে নিষিদ্ধ হওয়ার শাস্তিটা উঠে গেছে তাঁর। তাই আজ থেকে কেপটাউনে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের তৃতীয় টেস্টে খেলবেন এই পেসার।

নিষিদ্ধ রাবাদাকে দল থেকে বাদ না দিয়ে আইসিসিকে চাপেই রেখেছিল দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট বোর্ড। দেশটির সেরা আইনজীবী দালি পোফুকে নিয়োগ দিয়ে শাস্তির বিপক্ষে আপিল করেছিল তারা। আইসিসির হয়ে টেলিকনফারেন্সে অংশ নিয়ছিলেন নিউজিল্যান্ডের জুডিশিয়াল কমিশনার মাইকেল হ্যারন। যুক্তিতর্ক শুনে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রায় দেওয়ার কথা তাঁর। কিন্তু ছয় ঘণ্টার বেশি শুনানি শেষে কিছুক্ষণ পর হ্যারন তুলে নেন ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রোর দেওয়া শাস্তিটা। হ্যারনের যুক্তি, ‘মূল অভিযোগটা হচ্ছে রাবাদা ইচ্ছে করে স্মিথকে ধাক্কা মেরেছেন কি না। আমি এতে সম্পূর্ণ একমত নই। তবে এটা ঠিক অসংযত ছিল রাবাদার আচরণ।’

আর অসংযত আচরণের জন্য লেভেল-২-এর বদলে রাবাদা অভিযুক্ত হয়েছেন লেভেল-১-এ। ৩ ডিমেরিট পয়েন্টের বদলে তাঁর নামের পাশে যোগ হয়েছে ১ পয়েন্ট। আগে থেকে ৫টি ডিমেরিট পয়েন্ট ছিল তরুণ এ পেসারের আমলনামায়। এর সঙ্গে আরো তিনটি যোগ হওয়ায় ৮ ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে দুই টেস্ট নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। এখন আট থেকে মোট ডিমেরিট পয়েন্ট কমে হয়েছে ৬। দুই টেস্টের নিষেধাজ্ঞাটা উঠে গেছে এ জন্য। শুনানিতে রাবাদার পাশে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকান ম্যানেজার মোহাম্মদ মোসাজির কণ্ঠে স্বস্তি ঝরল তাই, ‘আমরা নিজেদের সব যুক্তিতর্ক তুলে ধরেছিলাম। সেগুলো অকাট্য বলে প্রমাণও করেছি। এমন দীর্ঘ শুনানি শেষে এর চেয়ে বেশি সন্তুষ্ট হওয়া যায় না।’ রাবাদার শাস্তি তুলে নিলেও আইসিসি বার্তা দিয়ে রেখেছে একটা, ‘এটা সব ক্রিকেটারের জন্য সতর্কবার্তা, যেন তাঁরা ক্রিকেটের মান বজায় রাখতে পারে।’

পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টে ১১ উইকেট নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে জিতিয়েছিলেন রাবাদা। তবে স্টিভেন স্মিথকে এলবিডাব্লিউ করার পর করেছিলেন বাড়াবাড়ি রকম উচ্ছ্বাস। আউট হয়ে রিভিউ নেবেন কি না জানতে ক্রিজের অন্য প্রান্তে থাকা ব্যাটসম্যানের দিকে এগিয়ে আসছিলেন স্মিথ। আর রাবাদা ‘ইয়েস, ইয়েস, ইয়েস’ চিৎকারে এগিয়ে যাচ্ছিলেন একই পথে। এরই ফাঁকে অসাবধানতায় তাঁর কাঁধ ছুঁয়ে যায় স্মিথের কাঁধে। তাই ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানাসহ ৩টি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয় নামের পাশে।  একগুঁয়েমি ছেড়ে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় আইসিসির প্রশংসা করেছেন ইংলিশ সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভন। তাঁর টুইট, ‘খুব ভালো করেছে আইসিসি। জ্ঞান-বুদ্ধির জয় হয়েছে শেষ পর্যন্ত।’ ইংলিশ আরেক সাবেক ক্রিকেটার ডেভিড লয়েড জানালেন, ‘টাকা আর সময়ের অপচয় ছাড়া কিছুই না। এসব কী ঘটছে ক্রিকেট দুনিয়ায়!’ ১১ উইকেট নিয়ে পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন রাবাদা। তাঁকে ফিরে পেয়ে দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তি অ্যালান ডোনাল্ডের স্বস্তি, ‘ভীষণ স্বস্তির খবর। রাবাদা আপিল জিতে খেলবে কেপটাউনে। ওর মতো পেসার ছাড়া খেলাটা কঠিনই হতো।’ সন্তুষ্টি জানিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান সাবেক পেসার হার্শেল গিবসও, ‘খুব ভালো লাগছে শুনে যে রাবাদা খেলতে পারবে কেপটাউনে।’ এপি


মন্তব্য