kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

ছেলেরা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি কষ্ট পেয়েছে

২০ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



ছেলেরা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি কষ্ট পেয়েছে

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সঙ্গে প্রায় পুরোটা সময় শ্রীলঙ্কায় ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। ফিরেছেনও দলের সঙ্গেই। গতকাল ঢাকা এয়ারপোর্টে নেমেই তিনি কথা বলেছেন নিদাহাস ট্রফিতে ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স নিয়ে, অবধারিতভাবে এসেছে ফাইনালে ভারতের সঙ্গে হূদয়ভাঙা হারের বিষয়টিও

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : পুরোটা সময় দলের সঙ্গে ছিলেন। কী পরিবর্তন দেখলেন দলের খেলা কিংবা মনোভাবে?

নাজমুল হাসান : আমার মনে হয় এই সিরিজেই আমি সবচেয়ে বেশি সময় দলের সঙ্গে ছিলাম। একদম প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত। এই সিরিজের জন্য আমরা যখন দেশ ছাড়ি, তখন একরকম অভিজ্ঞতা ছিল। যখন ওখানে যাই, তখন আরেক রকম অভিজ্ঞতা হয়েছে। এখন আবার ফেরত এসেছি সম্পূর্ণ ভিন্ন অভিজ্ঞতা নিয়ে।

প্রশ্ন : সেটা কেমন?

নাজমুল : যাওয়ার সময় দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা সিরিজের ব্যর্থতা মাথায় ছিল। যাওয়ার সময় ভেবেছি, এখন আরো কঠিন চ্যালেঞ্জ। ভারতের মতো শক্তিশালী দল আছে। তবে ওখানে প্রথম ম্যাচ থেকে ওরা যেভাবে ক্রিকেট খেলেছে তাতে মনে হয়েছে জেতা সম্ভব। এটা প্রত্যেক খেলোয়াড়ের মধ্যেই দেখেছি। ফাইনাল যে এত ক্লোজ হবে, আমরা ভাবিনি। প্রতিপক্ষ ভারত, আমরাও এই ফরম্যাটে অত ভালো দল হয়ে উঠতে পারিনি। তবে ছেলেরা শ্রীলঙ্কার সঙ্গে শেষ ম্যাচ খেলতে নামার আগেই বলেছিল ফাইনালে গিয়ে চ্যাম্পিয়ন হবে। এবার এমন বাংলাদেশকে দেখে খুব ভালো লেগেছে।

প্রশ্ন : কিন্তু ফাইনালে তো আর জেতা হলো না। সবাই হতাশ।

নাজমুল : এত কাছে গিয়ে হার। আমি মনে করি সব বাংলাদেশির মনের অবস্থা একই। নিশ্চিত জয়ের অবস্থান থেকে হার মেনে নেওয়া যায় না। কষ্ট বলব নাকি আফসোস...। কিছু ঘটনা থাকে সহজেই মুছে যাওয়ার নয়। এটা সারা জীবন মনে থাকবে।

প্রশ্ন : ফাইনালে হারের ব্যাখ্যায় কী বলবেন?

নাজমুল : আমি যেটা বলব, ফাইনাল ম্যাচ আমরা হেরে গেছি। এ জন্য সবাই অনেক কষ্ট পেয়েছে, হতাশ হয়েছে। আমি শুধু একটা কথাই বলব, আমাদের ছেলেরা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি কষ্ট পেয়েছে। আমি ওদের (ক্রিকেটার) সঙ্গে ছিলাম। আমি জানি ওদের অবস্থা। ওরা অনেক ভেঙে পড়েছিল। আমি ওদেরকে বলেছি, হার-জিত বড় কথা নয়। একদল জিতবে, আরেক দল হারবে। তবে আমি ভালো খেলা দেখতে চাই। এবং প্রতিটি খেলা তারা ভালো খেলেছে, বীরের মতো খেলেছে।

প্রশ্ন : ফাইনালে হারের জন্য ব্যাটিং নাকি বোলিং সমস্যার কথা বলবেন?

নাজমুল : আমাদের দলের সেরা চার ব্যাটসম্যান রান করতে পারেনি। তার পরও ওই পুঁজি নিয়ে আমরা যেভাবে লড়াই করেছি, তা প্রশংসার দাবি রাখে। একেবারে শেষ বল পর্যন্ত লড়াই করেছি। আমি সে জন্যই বলব, তারা হয়তো কষ্ট দিয়েছে, হতাশ করেছে; কিন্তু তারা বীরের মতো লড়াই করেছে। এ জন্য আমি তাদের ওপর খুশি।



মন্তব্য