kalerkantho


‘নিষিদ্ধ’ রাবাদাকে নিয়ে প্রোটিয়াদের বাজি

১৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



‘নিষিদ্ধ’ রাবাদাকে নিয়ে প্রোটিয়াদের বাজি

তাহলে কি আইসিসিকে চাপে রাখল দক্ষিণ আফ্রিকা? আগের টেস্টে স্টিভেন স্মিথের সঙ্গে সংঘর্ষে দুই টেস্ট নিষিদ্ধ কাগিসো রাবাদা। তার পরও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টের দলে এই পেসার। রাবাদাকে নিয়ে আসলে বাজিই খেলেছে প্রোটিয়ারা। দুই টেস্টের নিষেধাজ্ঞার বিপক্ষে আপিল করেছেন তিনি। এর শুনানি আজ। রাবাদার সঙ্গে থাকছেন দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সেরা আইনজীবী দালি পোফু। আইসিসির হয়ে টেলিকনফারেন্সে অংশ নেবেন নিউজিল্যান্ডের জুডিসিয়াল কমিশনার মাইকেল হ্যারন। যুক্তি-তর্ক শুনে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রায় দেবেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রত্যাশা রায়টা পক্ষেই আসবে রাবাদার।

পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টে ১১ উইকেট নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ের নায়ক ছিলেন রাবাদা। সেই ম্যাচেই স্টিভেন স্মিথকে এলবিডাব্লিউ করার পর বাড়াবাড়ি রকম উচ্ছ্বাস করেছিলেন তরুণ এই পেসার। অসাবধানতায় তাঁর কাঁধ হাল্কা ছুঁয়ে যায় স্মিথের কাঁধে। ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানাসহ ৩টি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয় নামের পাশে। এ জন্য খেলতে পারবেন না সিরিজের বাকি দুই টেস্ট। শাস্তির প্রতিবাদ জানিয়ে প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসিস বলেছেন, ‘তাহলে কি ক্রিকেট রোবটদের খেলা হয়ে যাবে? এই খেলায় আবেগ থাকবেই। সেটা পছন্দ না হলে একদিকে রোবট আরেক দিকে বোলিং মেশিন লাগিয়ে খেলা যেতেই পারে!’ এমন প্রতিক্রিয়াতেই স্পষ্ট রায়টা পছন্দ হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকার। রাবাদার আইনজীবীর বিশ্বাস অনিচ্ছাকৃত এই অপরাধের জন্য প্রত্যাহার হবে নিষেধাজ্ঞা। আর এ জন্যই দলে রাখা তাঁকে।

রাবাদার শাস্তি না কমলে বিকল্প ভেবে রেখেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৫ জনের বদলে ঘোষণা করেছে ১৭ জনের দল। রাখা হয়েছে পেসার দুয়ানে অলিভিয়ের আর অলরাউন্ডার ক্রিস মরিসকে। দক্ষিণ আফ্রিকান প্রধান নির্বাচক লিন্দা জোন্দি জানালেন, ‘সব দিক বিবেচনা করেই এই দল। রাবাদা খেলতে না পারলে অলিভিয়ের আছে। মরিসও দারুণ ছন্দে। টাইটানসের হয়ে কদিন আগে ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ৪ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ১৫০ রানের বেশি করেছে ও।’ মরিস অবশ্য গত বছরের জুলাইয়ের পর টেস্ট খেলেননি। অলিভিয়েরের সবশেষ টেস্ট বাংলাদেশের বিপক্ষে এই গ্রীষ্মের শুরুতে। ডারবানে প্রথম টেস্টে ১১৮ রানে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকা ঘুরে দাঁড়ায় পোর্ট এলিজাবেথে। জয় পায় ৬ উইকেটে। ২২ মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া কেপ টাউন টেস্টে তাই এগিয়ে যাওয়ার লড়াই। ক্রিকইনফো

 


মন্তব্য