kalerkantho


ওয়েম্বলিই সাহসী করছে টটেনহামকে

৭ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



ওয়েম্বলিই সাহসী করছে টটেনহামকে

৩৩ বারের ইতালিয়ান সিরি ‘এ’ জয়ী জুভেন্টাস। টানা চ্যাম্পিয়ন সবশেষ ছয় আসরেরও। চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছে দুইবার। সবশেষ তিন আসরে ফাইনালও খেলেছে দুইবার। এমন ঐতিহ্যের সামনে ফিকে টটেনহাম। প্রিমিয়ার লিগ কিংবা চ্যাম্পিয়নস লিগে শিরোপা নেই তাদের। ইউরোপিয়ান ফুটবলে সেরা সাফল্য ১৯৬২-১৯৬৩ মৌসুমের কাপ উইনার্স কাপ জয়। চ্যাম্পিয়নস লিগ নক আউট রাউন্ডের দ্বিতীয় লেগে সেই টটেনহামের সামনে আজ জুভেন্টাস। তবে ঐতিহ্যে এগিয়ে থাকা জুভেন্টাসকে ভয় পাচ্ছে না ইংলিশ এই ক্লাব, ওয়েম্বলিতে এই মৌসুমে যে দুর্দান্ত ফর্মে তারা!

রিয়াল মাদ্রিদকে ৩-১ গোলে, বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকেও ৩-১, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-০, লিভারপুলকে ৪-১ আর আর্সেনালের মতো দলকে এই মৌসুমে ওয়েম্বলিতে হ্যারি কেইনরা হারিয়েছেন ১-০ গোলে। তাহলে জুভেন্টাস নয় কেন? তুরিনে প্রথম লেগে ২-২ গোলে ড্র করায় আজ গোলশূন্য বা ১-১ গোলের ড্রতেও কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট পাবে টটেনহাম।

ইংল্যান্ডেরই আরেক দল ম্যানচেস্টার সিটি অবশ্য কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে। প্রথম লেগে বাসেলের মাঠ থেকে পেপ গার্দিওলার দল জিতে এসেছে ৪-০ গোলে। আজ নিজেদের মাঠে ৩ গোলে হারলেও টিকিট হাতছাড়া হবে না সিটিজেনদের। প্রিমিয়ার লিগে শিরোপা জয় থেকে হাতছোঁয়া দূরত্বে ম্যানচেস্টার সিটি। শেষ ৯ ম্যাচের চারটি জিতলেই এই লিগে প্রথম শিরোপার স্বাদ পাবেন পেপ গার্দিওলা। গত মাসে সিটিকে চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন লিগ কাপে। মর্যাদার ‘ট্রেবল’ জয়ের স্বপ্নটা ভালোভাবেই রয়েছে সিটির। প্রথম লেগে বাসেলকে ৪-০ গোলে হারানোয় অনেকে অঙ্ক কষছেন কোয়ার্টার ফাইনালের প্রতিপক্ষ নিয়েও। তবে পোড় খাওয়া গার্দিওলা এতটা না ভেবে আজকের ম্যাচেই মনোযোগ দিতে চাইবেন নিশ্চিতভাবে।

তুরিনে প্রথম লেগে ৯ মিনিটে দুইবার বল জড়ায় টটেনহামের জালে। সেই ধাক্কা কাটিয়ে ধীরে ধীরে নেয় ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ। ৩৫ মিনিটে হ্যারি কেইন আর ৭১ মিনিটে ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের গোলে মাঠ ছাড়ে ২-২ সমতায়। এভাবে জুভেন্টাসের মতো শক্তিশালী রক্ষণের বিপক্ষে দাপট দেখানোটা আজ ওয়েম্বলিতে আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে কোচ মরিসিও পচেত্তিনোকে। তিনি অবশ্য চাপ না নিয়ে উপভোগ করতে চান ম্যাচটা, ‘আমরা চাপমুক্ত থেকে প্রস্তুতি নিচ্ছি ম্যাচটার। চ্যাম্পিয়নস লিগ বা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ বলে কোনো কথা নেই, সব ম্যাচই সমান গুরুত্বের। ওয়েম্বলিতে এই মৌসুমে দারুণ সব জয় আছে আমাদের। জুভেন্টাসের বিপক্ষে খেলতে চাই সেরাটা আর উপভোগ করতে চাই এই ম্যাচ।’

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চার নম্বরে থাকলেও সবচেয়ে বেশি ২৪ গোল টটেনহামের হ্যারি কেইনের। তিনিও ফেভারিট ভাবছেন নিজেদের, ‘শুরুতে জুভেন্টাসকে এগিয়ে রেখেছিল সবাই। আমরা যেভাবে ওদের মাঠ থেকে ড্র করে ফিরেছি তাতে এখন এগিয়ে আমরা। শুধু ধারাবাহিকতটা ধরে রাখতে হবে ওয়েম্বলিতে। এখানে রিয়াল মাদ্রিদ আর বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে হারানোটা আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে সবাইকে।’

প্রথম লেগে ড্র করলেও ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নন জুভেন্টাস কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি। সিরি ‘এ’তে শীর্ষে থাকা নাপোলির চেয়ে মাত্র ১ পয়েন্টে পিছিয়ে তারা। অবশ্য নাপোলির চেয়ে খেলেছে এক ম্যাচ কম। সবশেষ লািসওর বিপক্ষে পাউলো দিবালার ইনজুরি টাইমের গোলে নাটকীয় জয় পেয়েছে জুভেন্টাস। দুই মাস পর চোট কাটিয়ে ফেরা দিবালাকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত তিনি, ‘চোটের জন্য প্রথম লেগ খেলতে পারেনি দিবালা। ও ব্যবধান গড়ে দিতে পারে যেকোনো ম্যাচে। টটেনহামের বিপক্ষে সহজ হবে না ম্যাচটা।’ এমন কঠিন ম্যাচে দিবালা ফিরলেও অনিশ্চিত গনসালো হিগুয়েইন। তাঁর চোট নিয়ে আলেগ্রি জানালেন, ‘দুই সপ্তাহ চোটের জন্য দলের বাইরে হিগুয়েইন। ও সেরে ওঠার পথেই আছে, বাকিটা দেখা যাক।’ এএফপি


মন্তব্য