kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

আমাদের মিসরীয় খেলোয়াড়ই পার্থক্য গড়ে দিচ্ছে

প্রিমিয়ার লিগ টেবিল টেনিসে জিতেই চলেছে পাললিক গ্রুপ। দেশের দুই শীর্ষ খেলোয়াড় মাহবুব বিল্লাহ ও মানস চৌধুরীর সঙ্গে মিসরীয় আল সাইদ আহমেদ যোগ হয়েই দলটিকে শিরোপার পথে নিয়ে যাচ্ছেন। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে নিজেদের এই পারফরম্যান্স নিয়েই কথা বলেছেন সাবেক জাতীয় চ্যাম্পিয়ন মানস চৌধুরী

৪ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



আমাদের মিসরীয় খেলোয়াড়ই পার্থক্য গড়ে দিচ্ছে

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : গতবারের চ্যাম্পিয়ন, রানার্স-আপ দুই দলকেই এরই মধ্যে হারিয়েছেন, এবার তো আপনাদের শিরোপা সম্ভাবনা প্রবল।

মানস চৌধুরী : সেই লক্ষ্যেই তো খেলছি। আমরা এখনো পর্যন্ত কোনো ম্যাচই হারিনি। ছয়টির ছয়টিতেই জিতেছি। আশা তো করি বাকি চারটিও জিতব। ছয় ম্যাচের মধ্যে গতবারের চ্যাম্পিয়ন অরুনিমা ও রানার্স-আপ সিসিরন ছাড়াও আমরা হারিয়েছি শেখ রাসেল ও উত্তরাকে। ওরা বেশ ভালো দল। শিরোপার লক্ষ্যেই খেলছে। তাই বলতে পারেন এই রাউন্ডে মূল বাধাগুলো আমরা পেরিয়ে গেছি।

প্রশ্ন : সুপার সিক্সে যেহেতু এই রাউন্ডের পয়েন্ট যোগ হবে, তার মানে এগিয়ে থেকেই আপনারা শিরোপার লড়াইটা শুরু করবেন?

মানস : তা তো অবশ্যই। বাকি ম্যাচগুলোয় কোনো অঘটন না হলে আমরা পয়েন্টে এগিয়ে থেকেই সুপার সিক্স শুরু করব। এই রাউন্ডে আমাদের পরেই আছে অরুনিমা। ওরা ছয় ম্যাচের মধ্যে পাঁচটি জিতেছে, হেরেছে শুধু আমাদের কাছেই। ওদের আমরা ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছি। তো সুপার লিগে ওদের কাছে যদি আমরা ৩-২-এও হারি, তাহলেও আমরা এগিয়ে থাকব।

প্রশ্ন : সুপার লিগে সব দলই নিশ্চয় আরো ভালো খেলার লক্ষ্যে ঝাঁপাবে?

মানস : সেটা তো আমরাও ঝাঁপাব। এগিয়ে আছি বলে আত্মতৃপ্তির সুযোগ নেই। সুপার লিগেও আমাদের এই পারফরম্যান্স ধরে রাখতে হবে।

প্রশ্ন : বলা হচ্ছিল লিগটা দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হতে যাচ্ছে, কয়েকটি দল থাকবে শিরোপা লড়াইয়ে, আপনাদের ছয়ে ছয় তো সে কথা বলছে না...

মানস : আমাদের দলের মিসরি খেলোয়াড় আল সাইদই আসলে মূল পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। এত দিন ভারতীয় খেলোয়াড়রাই ছিল টিটি লিগের মূল আকর্ষণ। পাললিক এবার যে বিদেশিকে নিয়ে এসেছে, দেখা যাচ্ছে সে ভারতীয়দের চেয়েও এক ধাপ এগিয়ে। বিশ্বকাপ মানের খেলোয়াড় ও। পাললিকের কর্ণধার হাসান মুনীর আইটিটিএফের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁর সঙ্গে চুক্তি করেছে। সে এসেই দেখাচ্ছে তাঁর মানটা কোথায়। এখানে আসা ভারতীয়দের মধ্যে এক নম্বর অর্জুন। অরুনিমার বিপক্ষে খেলায় এই অর্জুনকে হারিয়েই ও আমাদের জয়ের পথটা করে দিয়েছে।

প্রশ্ন : তার পরও একা নিশ্চয় সব হয় না, আপনি আর মাহবুব বিল্লাহ তাঁকে তেমন সঙ্গ দিতে পারছেন বলেই তো জয় আসছে...

মানস : তা ঠিক, আমরা আমাদের কাজটা করে যাচ্ছি। তৃতীয় সেটে আমি তো এখনো কোনো গেম হারিনি।


মন্তব্য