kalerkantho


লিগের অ্যাতলেতিকোয় ভয় নেই বার্সার

৪ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



লিগের অ্যাতলেতিকোয় ভয় নেই বার্সার

বছরের শুরুতেও মনে হচ্ছিল অশ্বমেধের ঘোড়া হয়েই ছুটবে বার্সেলোনার জয়রথ। এস্পানিওলের কাছে হেরে প্রথম হোঁচট। এর পরও এগিয়েই ছিল কাতালানরা, তবে ফেব্রুয়ারি মাসটা বেশ মন্দা কেটেছে তাদের। এস্পানিওল ও গেতাফের সঙ্গে দুটি ম্যাচে ড্র, এরপর চলতি মাসের শুরুতে লাস পালমাসের সঙ্গেও করেছে ড্র। শীর্ষে থাকলেও ধরাছোঁয়ার আওতায় চলে আসছে বার্সেলোনা; আজ অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ যদি তাদের হারিয়ে দিতে পারে তাহলে দুই দলের পয়েন্টের ব্যবধান হবে স্রেফ ২। তখন একটি মাত্র হার-জিতের ব্যবধানেই পাল্টাতে পারে পাশা। তবে লাখ টাকা দামের প্রশ্নটা হচ্ছে, অ্যাতলেতিকো কি পারবে ন্যু ক্যাম্পে জিততে?

মেসি দলে থাকলে অ্যাতলেতিকোকে নিয়ে দুশ্চিন্তা না করলেও চলে। কারণ অ্যাতলেতিকোর বিপক্ষে মেসির গোলের দেখা পাওয়ার হারটা অনেক বেশি! ২০০৭ সাল থেকে ন্যু ক্যাম্পে অ্যাতলেতিকোর বিপক্ষে মেসি গোল করেছেন ১৫টি, লিগেই ১৪টি আর একটি কাপের ম্যাচে। ম্যাচে জোড়া গোল আছে তিনবার, হ্যাটট্রিক দুটি। মেসি ডান পায়ে, বাঁ পায়ে, কাছ থেকে, দূর থেকে—বলা যায় সম্ভাব্য সব রকমভাবেই গোল করেছেন ‘তোশক কারিগর’দের বিপক্ষে! শুধু নিজে করেই ক্ষান্ত হননি, করিয়েছেন রোনালদিনহো, দানি আলভেস, জাভি, পেদ্রো, দাভিদ ভিয়া, পেদ্রো রদ্রিগেস, ইহোর্দি আলবাসহ অনেককে দিয়েই! মোদ্দা কথা, অ্যাতলেতিকোর বিপক্ষে মেসি হয়ে পড়েন প্রতিপক্ষের মূর্তিমান আতঙ্ক। এসব পরিসংখ্যান যদি বার্সেলোনা ভক্তদের স্বস্তি দেয়, তাহলে অ্যাতলেতিকো সমর্থকদেরও হাতে আছে যুক্তি; ২০১৬-র ৩০ জানুয়ারির পর তো বছর দুয়েক ধরে ন্যু ক্যাম্পে অ্যাতলেতিকোর বিপক্ষে মেসির গোল নেই!

নিজেদের মাঠে ২১ মিনিটে সাউল নিগুয়েসের গোলে এগিয়ে গিয়েও ৮১ মিনিটে লুই সুয়ারেসের সমতা ফেরানো গোলে পয়েন্টে ভাগ বসিয়েছিল অ্যাতলেতিকো। বার্সেলোনার মাঠে তারা চাইবে পুরো পয়েন্ট আদায় করে নিতে। যেখানে দলের স্ট্রাইকার আন্তোয়ান গ্রিয়েজমান রীতিমতো ‘রেড হট’ ফর্মে। সবশেষ দুই ম্যাচে এই ফরাসির ৭ গোল! লেগানেসের বিপক্ষে ৪ গোল আর সেভিয়ার বিপক্ষে ৩ গোল। তাইতো লা লিগায় বার্সেলোনার বিপক্ষে অবশেষে জেতার আশা করতেই পারেন অ্যাতলেতিকো কোচ ডিয়েগো সিমিওনে। কারণ লিগে ১২ বারের দেখায় তাঁর রিপোর্ট কার্ডে যে ৪ ড্র আর ৮ হার! গোটা ক্যারিয়ারেই সিমিওনের দল বার্সেলোনাকে হারিয়েছে মাত্র দুইবার (২-৮-১২), তাইতো ন্যু ক্যাম্পে অ্যাতলেতিকোর জয়ের পাল্লায় বাজির দর ১:৪।

২০১৪ ও ২০১৬, যে দুইবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল খেলেছে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ, দুইবারই কোয়ার্টার ফাইনালে তারা হারিয়ে গেছে বার্সেলোনাকে। এবং দুইবারই ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হয়ে জেতার সুযোগ তৈরি করেও শেষ পর্যন্ত কাপটা তুলে দিয়েছে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদেরই হাতে। চ্যাম্পিয়নস লিগের নক আউট ম্যাচে তাই হয়তো অ্যাতলেতিকো প্রতিপক্ষ হলে বাড়তি সতর্কতা কাজ করতে পারে বার্সেলোনা সমর্থকদের মনে। তবে খেলাটা যখন লিগের, তার ওপর নিজের মাঠে; তখন বার্সেলোনার পাল্লাই তো ভারী। গ্রিয়েজমান না হয় ৭ গোল করেই ন্যু ক্যাম্পে আসছেন, শুধু অ্যাতলেতিকোর বিপক্ষেই মেসির গোলসংখ্যা তো তার চেয়েও বেশি! ক্লাব ওয়েবসাইট, গোল ডটকম


মন্তব্য