kalerkantho


শততম ম্যাচ স্মরণীয় করলেন গার্দিওলা

৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



শততম ম্যাচ স্মরণীয় করলেন গার্দিওলা

দিন যায়, বছর যায়, বার্সেলোনার বিপক্ষে লা লিগায় পেনাল্টি পায় না কেউ! সবশেষ ৭৪৬ দিন আগে কাতালানের বিপক্ষে পেনাল্টি পেয়েছিল সেল্তা ভিগো। ৭৯ ম্যাচ পর গত পরশু পেল লাস পালমাসও। কিন্তু কেন? কারণটা উদ্ধারে এতটাই গলদঘর্ম হয়েছেন যে এটাকে ‘ভূতুড়ে’ পেনাল্টি মনে হয়েছে বার্সা কোচ এরনেস্তো ভালভের্দের। বিতর্কিত সেই পেনাল্টিতে ১-১ সমতায় মাঠ ছাড়ে লাস পালমাস। সবশেষ পাঁচ ম্যাচের তিনটিতে বার্সা পয়েন্ট হারানোয় জমে উঠেছে লা লিগা। একসময় ১১ পয়েন্টে এগিয়ে যাওয়া কাতালানদের সঙ্গে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের ব্যবধান এখন ৫ পয়েন্টের! এ ছাড়া লা লিগায় অ্যালাভেস ১-০ গোলে হারিয়েছে লেভান্তেকে আর গোলশূন্য ড্র করেছে রিয়াল বেতিস ও রিয়াল সোসিয়েদাদ।

এদিকে লিগ কাপ ফাইনালের সপ্তাহ না ঘুরতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও আর্সেনালকে ঠিক ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে ম্যানচেস্টার সিটি। সিটিজেনদের হয়ে নিজের শততম ম্যাচটি তাই স্মরণীয় হয়েছে পেপ গার্দিওলার। আর পাঁচ ম্যাচ জিতলে প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যাবে তাদের। হাতছানি আছে দ্রুততম লিগ জয়ের রেকর্ড ভাঙারও। বিপরীতে নিজেদেরই মাঠে বিধ্বস্ত হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে সুযোগ পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ায় চাকরি হারানোর শঙ্কায় আর্সেন ওয়েঙ্গার।

লা লিগায় রেলিগেশনের শঙ্কায় থাকা লা পালমাসের সঙ্গে স্বাভাবিকভাবে দাপট ছিল বার্সার। ২১ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া বাঁকানো দুর্দান্ত ফ্রিকিকে বার্সাকে এগিয়ে দেন লিওনেল মেসি। এই মৌসুমে লা লিগায় এটা তাঁর ২৩তম গোল আর ফ্রিকিক থেকে চতুর্থ। ক্লাব ও দেশের হয়ে যা আবার ৫৯৯তম। বিরতির ঠিক আগে বক্সের বাইরে হাত দিয়ে বল আটকানোয় লাল কার্ড দেখতে পারতেন লাস পালমাস গোলরক্ষক লিয়ান্দ্রো চিচিসোলা। কেননা লুই সুয়ারেস তখন একা  গোলমুখে। কিন্তু সেটা নজর এড়িয়ে যায় রেফারি আন্তোনিও মাতেও লাহোসের। সেই রেফারিই বিরতির পর পর পেনাল্টির বাঁশি বাজান কাতালানদের বিপক্ষে। অ্যালেন হালিলোভিচের কর্নার নেওয়ার পর বক্সে সার্গি রবার্তোর গায়ে লেগে পড়ে যান অ্যাগুয়েরেগেরাই। অনেকে ভেবেছিলেন পেনাল্টির কারণ হয়তো এই। তবে রেফারি জানান বল পোস্টে লেগে ফেরার সময় ফরাসি লুকাস দিনিয়ার হাতে লাগায় পেনাল্টি দিয়েছেন তিনি। রিপ্লেতে কয়েকবার দেখার পর নিশ্চিত হওয়া যায় বল হাতেই লেগেছিল কিন্তু সেটা ইচ্ছাকৃত ছিল না। এ জন্যই জেরার্দ পিকে বেঞ্চে থেকে তেড়ে আসতে চেয়েছিলেন রেফারির দিকে। তাঁকে থামান বার্সার প্রতিনিধি কার্লেস নাভাল।

স্পট কিক থেকে গোল করে সমতা ফেরান জোনাথন কায়েরি। এরপর দারুণ কিছু সুযোগ পেয়েও আর গোল করতে পারেনি বার্সা। ম্যাচ শেষে পেনাল্টিটা মানতে না পেরে এরনেস্তো ভালভের্দের ক্ষোভ, ‘এটা ভূতুড়ে পেনাল্টি’। রেডিও মার্কার বিশেষজ্ঞ হুয়ান আনদুজার অলিভার জানালেন, ‘প্রথমত বক্সের বাইরে হাত দিয়ে বল আটকানোয় লাল কার্ড দেখা উচিত ছিল লাস পালমাস গোলরক্ষকের। আর দিনিয়ার হাতে বল লাগলেও সেটা ইচ্ছাকৃত ছিল না। দুটি সিদ্ধান্তই ভুল নিয়েছেন রেফারি।’ এই ড্রতে ২৬ ম্যাচে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই বার্সা। সমান ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট নিয়ে অ্যাতলেতিকো ভালোভাবে রয়েছে শিরোপা দৌড়ে।

ম্যানচেস্টার সিটির দায়িত্ব নেওয়ার পর শততম ম্যাচটি পেপ গার্দিওলা স্মরণীয় করলেন ৩-০ গোলের জয়ে। ১০০ ম্যাচে তাঁর জয় ৭১, ড্র ১৬ আর হার ১৩টি। গোল হয়েছে ২৩৯ আর হজম করতে হয়েছে ৯২টি।   গত পরশু ১৫ মিনিটে লিরয় সানের ক্রসে বাঁ পায়ের বাঁকানো শটে গোলের তালা খোলেন বের্নার্দো সিলভা। ২৮ মিনিটে সানে-আগুয়েরো-সিলভার মিলিত প্রচেষ্টায় দ্বিগুণ হয় ব্যবধান। মাঝমাঠে দাভিদ সিলভার কাছ থেকে বল পেয়ে লিরয় সানে বাড়ান সের্হিয়ো আগুয়েরোকে। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের কাছ থেকে ফিরতি বল পেয়ে জালে জড়ান সিলভা। ৩৩ মিনিটে লিরয় সানের লক্ষ্যভেদে আর্সেনাল সমর্থকরা দুয়ো দিতে থাকেন খেলোয়াড়দের। তাতেই স্নায়ুর চাপে পড়ে কিনা বিরতির কিছুক্ষণ পর পেনাল্টি মিস করেন পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াং। সবশেষ ১৯ পেনাল্টির মধ্যে ১১টি ঠেকালেন সিটির গোলরক্ষক এদারসন।

লজ্জার হারে মাঠ ছাড়ায় চাকরি হারানোর শঙ্কায় থাকা ওয়েঙ্গারের পাশে অবশ্য দাঁড়াচ্ছেন গার্দিওলা, ‘আমরা অনেকবার মুখোমুখি হয়েছি। দুজনের সম্পর্কটা দারুণ। এই পরিস্থিতিটা আমি জানি যা সব কোচের ক্যারিয়ারেই আসে। আমি আশা করব ক্লাব, সমর্থক, খেলোয়াড় কিংবা নিজের জন্যও সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন তিনি।’ ২৮ ম্যাচে ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপার আরো কাছে ম্যানসিটি। দুইয়ে থাকা ম্যানইউর চেয়ে তারা এগিয়ে ১৬ পয়েন্টে। সমান ম্যাচে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে ছয়ে এখন আর্সেনাল। এএফপি



মন্তব্য