kalerkantho



রঙিন জার্সিতে ঝলমলে ভারত

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রঙিন জার্সিতে ঝলমলে ভারত

২৬ বছরের হিসাব কড়ায় কণ্ডায় মেলানো হয়নি। টেস্ট সিরিজে পেরে ওঠেনি ভারত। তবে সাদা বলে রঙিন জার্সিতে ঝলমলে বিরাট কোহলির দল। দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিধ্বস্ত করে রংধনুর দেশে প্রথমবার ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল ৫-১ ব্যবধানে। গত পরশু ২-১ ব্যবধানে জিতল টি-টোয়েন্টি সিরিজও। কেপ টাউনে ভারতের ১৭২ রানের জবাবে প্রোটিয়ারা থামে ৬ উইকেটে ১৬৫-তে। ৭ রানের জয়ে প্রথমবার দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দু-দুটি সিরিজ জিতে দেশে ফিরছে তারা। টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকার স্বীকৃতি হিসেবে ঐতিহ্যবাহী ‘গদা’ পাওয়ায় সফরটা সোনায় সোহাগায় শেষ হয়েছে তাদের।

এক সফরে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে এক হাজার রান করার হাতছানি ছিল বিরাট কোহলির। চোটের জন্য শেষ ম্যাচ খেলতে না পারায় হয়নি সেটা। তবে কোহলির অনুপস্থিতি বুঝতে দেয়নি রোহিত শর্মার দল। শিখর ধাওয়ানের ৪০ বলে ৪৭ আর সুরেশ রায়নার ২৭ বলে ৪৩-এ ৭ উইকেটে ১৭২ করে তারা। জবাবে পাওয়ার প্লের প্রথম ছয় ওভারে মাত্র ২৫ করায় ম্যাচ অনেকখানি হাতছাড়া হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার। আগের ম্যাচের নায়ক হেইনরিক ক্লাসেন ফেরেন ৭ রানে। তবে অধিনায়ক জেপি দুমিনির ৪১ বলের ৫৫-তে ম্যাচে ছিল প্রোটিয়ারা।

শেষ তিন ওভারে জয়ের জন্য করতে হতো ৫৩ রান। কঠিন সেই লক্ষ্যটা প্রায় অতিক্রম করে ফেলেছিলেন ৩১ বছরে প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলা ক্রিস্টিয়ান ইয়াঙ্কার। শার্দুল ঠাকুরের করা ১৮তম ওভারে একাই ১৮ নেন তিনি। শেষ দুই ওভারে লক্ষ্যটা কমে দাঁড়ায় ৩৫-এ। এবার জাসপ্রিত বুমরাহর বলে ইয়াঙ্কার ও ফারহান বেহারদিন মিলে নেন ১৬। ভুবনেশ্বর কুমারের ওভারে তখন ১৯ রান দরকার দক্ষিণ আফ্রিকার। সেটা কমে শেষ দুই বলে দাঁড়ায় ১০-এ। অভিজ্ঞ ভুবনেশ্বরের ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটার বেগে অফস্টাম্পের ওপর করা দুটি ফুলটসে রানটা নিতে পারেননি ইয়াঙ্কার। পঞ্চম বলে দুই রান নেওয়ার পর শেষ বলে ক্যাচ তুলে দেন রোহিত শর্মার হাতে। জেতাতে না পারলেও তাঁর ২৪ বলে ৫ বাউন্ডারি ৩ ছক্কায় করা ৪৯ রানের ইনিংস ভয় পাইয়ে দিয়েছিল ভারতকে। টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানের স্মারক তুলে দেওয়া হয় বিরাট কোহলির হাতে। আগামী ৩ এপ্রিল পর্যন্ত কেউ এক নম্বরে যেতে পারবে না বলে এক মিলিয়ন ডলারের বোনাসও পায় ভারত।  পিটিআই



মন্তব্য