kalerkantho


ভারতের হিসাব মেলানোর আরেক চ্যালেঞ্জ

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ভারতের হিসাব মেলানোর আরেক চ্যালেঞ্জ

টেস্টে ২৫ বছরের হিসাব মেলাতে পারেনি ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ হেরেছে ১-২ ব্যবধানে। ওয়ানডেতে সেই আক্ষেপ মিটবে কি? টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও প্রোটিয়াদের মাটিতে গত ২৫ বছরে কোনো সিরিজ জেতেনি ভারত। আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া ছয় ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বিরাট কোহলিরা অবশ্য নামছেন আত্মবিশ্বাস নিয়ে। কেননা সিরিজ হারলেও জোহানেসবার্গে শেষ টেস্ট দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনে জিতেছিল তারা। সেই সঙ্গে স্বস্তি হয়ে এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকার সেরা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সের চোট। অন্তত প্রথম তিন ওয়ানডেতে ডি ভিলিয়ার্স খেলছেন না নিশ্চিতভাবে। ৪-২ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে থাকছে র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষে ফেরার হাতছানিও। এই সুযোগটা নিতে মুখিয়ে থাকবেন কোহলিরা।

বর্ণবিদ্বেষী কালো অধ্যায়টা কাটিয়ে নব্বইয়ের দশকে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটে ফেরার পর সেই দেশে ওয়ানডে সিরিজে বিবর্ণ ভারত। ১৯৯২-৯৩ মৌসুমে খেলা প্রথম ওয়ানডে সিরিজে হারে ৫-২ ব্যবধানে। এরপর ২০০৬-০৭ মৌসুমে ৪-০, ২০১০-১১ মৌসুমে ৩-২ আর ২০১৩-১৪ মৌসুমে হারে ২-০ ব্যবধানে। ১৯৯৬-৯৭ ও ২০০১-০২ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকায় দুটি ত্রিদেশীয় সিরিজেও অংশ নেয় ভারত। শিরোপা জেতা হয়নি সেখানেও। সব মিলিয়ে ১৯৯২-৯৩ থেকে দক্ষিণ আফ্রিকায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে ২৮ ম্যাচ খেলে ভারত জিতেছে মাত্র পাঁচটিতে। আজ সিরিজের প্রথম ওয়ানডের ভেন্যু ডারবানেও রেকর্ড পক্ষে নেই ভারতীয়দের। এখানে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সাত ওয়ানডে খেলে হেরেছে ছয়টি, ফল হয়নি অপর ম্যাচে। বিরাট কোহলির দল কি পারবে ইতিহাসটা বদলে দিতে? ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হারার পর দেশ বা দেশের বাইরে আর কোনো ওয়ানডে সিরিজ হারেনি তাঁর দল। এই সময়ে নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুইবার ও একবার করে সিরিজ জিতেছে জিম্বাবুয়ে, ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। খেলেছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালেও। এমন পরিসংখ্যান নিশ্চয়ই আত্মবিশ্বাস জোগাবে সিরিজজুড়ে। ক্রিকবাজ



মন্তব্য