kalerkantho


ব্রিসবেন দুর্গ জয় ইংল্যান্ডের

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ব্রিসবেন দুর্গ জয় ইংল্যান্ডের

রুটের ৪৬* রান ও ২ উইকেট

রঙিন পোশাকে নতুন ইংল্যান্ড। টেস্ট সিরিজে বিধ্বস্ত হওয়া ইংলিশরা প্রথম ওয়ানডে জিতেছিল রেকর্ড গড়ে। মেলবোর্নে ৩০০-র বেশি রান তাড়া করে জিততে না পারার ইতিহাস বদলে দিয়েছিল এউইন মরগানের দল। গতকাল দ্বিতীয় ওয়ানডেতে তারা হানা দিয়েছে ব্রিসবেন দুর্গে। প্রিয় এই ভেন্যুতে ২০১০ সালের পর ১০ ওয়ানডের ৯টিই জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। তা ছাড়া ইংল্যান্ডও জয়ের স্বাদ পায়নি ১৯৯৯ সালের পর। সেই আক্ষেপ মিটিয়ে ১৯ বছর পর ব্রিসবেনে অস্ট্রেলিয়াকে হারাল ৪ উইকেটে। স্টিভেন স্মিথের দলের ৯ উইকেটে ২৭০ রানের চ্যালেঞ্জ পেরিয়ে যায় ৩৪ বল হাতে রেখে। বল হাতে ২ উইকেট নেওয়ার পর হার না মানা ৪৬ রানের ইনিংসে ম্যাচসেরা জো রুট।

মেলবোর্নের পর অ্যারন ফিঞ্চ সেঞ্চুরি পেলেন ব্রিসবেনেও। ১১৪ বলে ৯ বাউন্ডারি ১ ছক্কায় ১০৬ করেন এই ওপেনার। নতুন রেকর্ডও হয় তাতে। অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ৮৩ ইনিংসে দ্রুততম দশম সেঞ্চুরি করলেন ফিঞ্চ। ডেভিড ওয়ার্নারের ৮৫ ইনিংসে ১০ ওয়ানডে সেঞ্চুরি ছিল এত দিনের রেকর্ড। ওয়ানডে ইতিহাসে ফিঞ্চের চেয়ে দ্রুততম দশম সেঞ্চুরির কীর্তি আর মাত্র চারজনের। কুইন্টন ডি কক ৫৫, হাশিম আমলা ৫৭, শিখর ধাওয়ান ৭৭ ও বিরাট কোহলি এই মাইলফলকে পৌঁছান ৮০তম ইনিংসে। ৫০তম ব্যাটসম্যান হিোবে ওয়ানডেতে দশ বা এর বেশি সেঞ্চুরি করে ফিঞ্চ বড় রানের ভিত এনে দিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়াকে। কিন্তু স্টিভেন স্মিথের দল কাজে লাগাতে পারেনি সেটা। শেষ ১১ ওভারে ৬ উইকেটে মাত্র ৬২ রানই করতে পারে তারা।

ব্রিসবেনে ২৭০ রানের বেশি তাড়া করে ওয়ানডে জয় ছিল একটিই। ১৯৯৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতেছিল ২৮২ তাড়া করে। তবে জনি বেয়ারস্টো ও অ্যালেক্স হেলসের দৃঢ়তায় ১৯.২ ওভারে  ১ উইকেটে ১১৯ করে ফেলায় জয়ের ভিত পেয়ে যায় ইংলিশরা। দুজনকেই ফেরান অ্যাভন রিচার্ডসন। বেয়ারস্টো ৫৬ বলে ৬০, হেলেস ফেরেন ৬০ বলে ৫৭ করে। এরপর মিচেল স্টার্ক ৪ উইকেট নিলেও জো রুটের ৫৮ বলে হার না মানা ৪৬ আর জস বাটলারের ৩২ বলে ৪২-এ সহজ জয়ই পায় তারা। আগামীকাল সিডনিতে তৃতীয় ওয়ানডে জিতলে সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলবেন মরগানরা। ক্রিকইনফো

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া : ৫০ ওভারে ২৭০/৯ (ফিঞ্চ ১০৬, মার্শ ৩৬, ওয়ার্নার ৩৫; রুট ২/৩১, রশিদ ২/৭১)।

ইংল্যান্ড : ৪৪.২ ওভারে ২৭৪/৬ (বেয়ারস্টো ৬০, রুট ৪৬*, বাটলার ৪২; স্টার্ক ৪/৫৯, রিচার্ডসন ২/৫৭)।

ফল : ইংল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : জো রুট।



মন্তব্য