kalerkantho


রিয়ালের জয়ে ফেরা

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রিয়ালের জয়ে ফেরা

বার্সেলোনার সঙ্গে নিজ মাঠে ‘এল ক্লাসিকো’ হারের পর গতকাল পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদের জয় ছিল মাত্র একটি। কোপা দেল রে ও লা লিগা মিলিয়ে। ভিয়ারিয়ালের কাছে হারে লিগ শিরোপা বলতে গেলে জলাঞ্জলিই দিয়েছে রিয়াল। চ্যাম্পিয়নস লিগে গ্রুপ পর্বে রানার্স-আপ হওয়াতে শক্তিশালী প্রতিপক্ষের সঙ্গেই দেখা হওয়ার কথা ছিল শেষ ষোলোয়, হয়েছেও তা-ই। ভালোবাসা দিবসের রাতে প্যারিস থেকে ভালোবাসা নিয়ে আসা নেইমার-কাভানিদের সঙ্গেই দ্বৈরথ ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো-ইসকোদের। গত মৌসুমে পাঁচ শিরোপা জেতার পর এবার তো সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে শিরোপার খরা চলারই শঙ্কা! সেই অসুখের সমাধান হতে পারে কোপা দেল রে, যেখানে এখন পর্যন্ত কোনো অঘটনের জন্ম দেয়নি রিয়াল। যদিও নুমানসিয়ার সঙ্গে ৩-০ গোলের জয়ে দুটি পেনাল্টি থেকে গোল রিয়ালের জয়কে করেছিল প্রশ্নবিদ্ধ, এমনকি ফিরতি লেগে নিজ মাঠে তাদের সঙ্গে ড্রটাও সমর্থকরা ভালোভাবে নেয়নি। কোয়ার্টার ফাইনালেও লেগানেসের বিপক্ষে ধুঁকে ধুঁকে জিতল রিয়াল। ম্যাচের শেষ সময়ে মার্কো আসেনসিওর গোলে প্রথম লেগটা ১-০তে জিতে নিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল।

রোনালদো, বেনজেমা, বেল; বিবিসি ত্রয়ীকে রাখেননি জিদান। গোলেও ছিলেন না কেইলর নাভাস। অধিনায়ক ছিলেন রাফায়েল ভারান। তারুণ্যনির্ভর দল নিয়ে লেগানেসের রক্ষণে খুব একটা চাপ তৈরি করতে পারেনি রিয়াল। লেগানেসও জমাট রক্ষণ আর কাউন্টার অ্যাটাক-নির্ভর ফুটবল খেলতে চাওয়ায় খুব একটা বেশি সুযোগও দেয়নি রিয়ালকে। শেষ সময়ে সেই রক্ষণে ফাটল ধরান আসেনসিও, ৮৯ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে থিও হার্নান্দেসের ক্রসে কোনাকুনি শটে বল পাঠিয়ে দেন লেগানেসের জালে। জয়ের পর জিদান জানালেন স্বস্তির কথা, ‘আমরা কোনো গোল খাইনি আর গুরুত্বপূর্ণ অ্যাওয়ে গোল করেছি। এটা আমাদের জন্য ভালো ফল।’ দলপতি ভারানও জানিয়েছেন, ‘এই জয় দলের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে।’ আর গোলদাতা আসেনসিও জানিয়েছেন, ‘ভালো একটা ফল নিয়েই আমরা দ্বিতীয় লেগে যাচ্ছি।’ শীতকালীন দলবদলে ম্যানইউ-আর্সেনালের ভেতর হেনরিক মিখিতারিয়ানের সঙ্গে অ্যালেক্সিস সানচেসের অদলবদল প্রায় চূড়ান্ত। অন্যদিকে লিওন গোরেত্জাকে আসছে মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে বিক্রি করে দেওয়ার কথা জানিয়েছে শালকে। এই মিডফিল্ডারের সঙ্গে প্রাক-দলবদল চুক্তি করে ফেলেছে বায়ার্ন। স্কাই স্পোর্টস


মন্তব্য