kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

মিরপুরে ফিরতে পেরে রোমাঞ্চিত

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



মিরপুরে ফিরতে পেরে রোমাঞ্চিত

চন্দিকা হাতুরাসিংহেই শুধু নন, তাঁর সঙ্গে ঢাকায় ফিরেছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক ব্যাটিং উপদেষ্টা থিলান সামারাবীরাও। শ্রীলঙ্কা দলের ব্যাটিং কোচ গতকাল বাংলাদেশ ম্যাচ সামনে রেখে দলের প্রতিনিধি হিসেবে মুখোমুখি হলেন সংবাদমাধ্যমেরও। সেখানে যথারীতি থাকল গত কয়েক দিনের বহুল চর্চিত বিষয়টিও

 

প্রশ্ন : অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের ইনজুরির কী অবস্থা?

থিলান সামারাবীরা : এই মুহূর্তে ও ২৪ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে আছে। কাল (আজ) খেলবে কী খেলবে না, সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে জানতে হবে ওর চোটটা কী ধরনের। আমরা এখনো নিশ্চিত নই যে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছে নাকি মাংসপেশির টান।

প্রশ্ন : বাংলাদেশ ম্যাচে কেমন উইকেট আশা করছেন?

সামারাবীরা : ভালোই হবে মনে হচ্ছে। জিম্বাবুয়ে ম্যাচেও দারুণ উইকেট ছিল। দুই দল মিলে ৫৭০ রানের মতো তুলেছে। মিরপুরে যেমনটি থাকে, আশা করছি কালও সেরকম ভালো উইকেটই পাব।

প্রশ্ন : জিম্বাবুয়ের কাছে হারের পর ঘুরে দাঁড়ানো কতটা কঠিন?

সামারাবীরা : আমাদের পক্ষে ভালো ব্যাপার হলো আরো তিনটি ম্যাচ আছে। প্রথম ম্যাচে আমরা নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারিনি। যদিও আমরা হেরেছি খুবই কম ব্যবধানে। নিজেদের সামর্থ্য মেলে ধরতে পারলে কাল ভালো একটি ম্যাচই যাবে আমাদের।

প্রশ্ন : তুলনামূলক ভালো প্রতিপক্ষের সঙ্গে ম্যাচ দিয়ে টুর্নামেন্টে ফেরা নিশ্চয়ই সহজ নয়?

সামারাবীরা : দেখুন, ত্রিদেশীয় সিরিজে এ রকম হতেই পারে যে আপনি একটি বা দুটি ম্যাচে হারলেন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো ম্যাচ থেকে আপনি ইতিবাচক ব্যাপারগুলো নিতে পারলেন কি না। গত ম্যাচে আমরা নিজেদের সেরা খেলাটা খেলিনি। তবু আমরা হেরেছি অল্প ব্যবধানে। নিজেদের সেরা খেললে নিশ্চিতভাবেই ফল আমাদের অনুকূলে আসবে।

প্রশ্ন : চন্দিকা হাতুরাসিংহে কিছুদিন আগেও ছিলেন বাংলাদেশের কোচ। এবার তাঁকে নিয়ে স্বাগতিকদের বিপক্ষে নামাটা কি বাড়তি কোনো সুবিধা দেবে?

সামারাবীরা : এটাকে আমার কোনো সুবিধা বলে মনে হয় না। বিশ্ব ক্রিকেটে এখন কোনো সিক্রেট আছে বলেও আমার মনে হয় না।  বাংলাদেশ হাতুরাসিংহের বিপক্ষে খেলছে বলেও আমার মনে হয় না। তারা খেলছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই।

প্রশ্ন : শ্রীলঙ্কার ফর্ম তো নিশ্চয়ই দারুণ দুশ্চিন্তা আছে?

সামারাবীরা : গত বছরটি খুবই বাজে গেছে আমাদের। এখন চন্দিকার অধীনে আমরা ভিন্ন একটি দল দাঁড় করানোর চেষ্টা করছি। আশা করছি, এই বছরই পরিস্থিতি বদলাতে পারব আমরা।

প্রশ্ন : বাংলাদেশ দলের সঙ্গে কাজ করে গেছেন আপনিও। এবার তাদের বিপক্ষে নামার অনুভূতি কেমন?

সামারাবীরা : অনেক দিন পর আবার মিরপুরে ফিরতে পেরে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। এই চ্যালেঞ্জটি নেওয়ার জন্য আমি মুখিয়েও আছি।



মন্তব্য