kalerkantho


ইতিহাস গড়তে হবে ভারতকে

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ইতিহাস গড়তে হবে ভারতকে

দক্ষিণ আফ্রিকায় সাত বছর টেস্ট জেতেনি ভারত। এবার সুযোগটা এসেছিল সিরিজের প্রথম টেস্টে কেপটাউনেই। কিন্তু জয়ের জন্য ২০৮ রানের লক্ষ্যে নেমে ১৩৫-এ গুটিয়ে যায় বিরাট কোহলির দল। জয়ের সুযোগ এসেছে সেঞ্চুরিয়নেও। গতকাল চতুর্থ দিন দক্ষিণ আফ্রিকা অল আউট ২৫৮ রানে। জয়ের জন্য ভারতের চাই ২৮৭ রান। জবাবে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৩ উইকেটে ২৬ করেছে ভারত। মুরালি বিজয় ৯, লোকেশ রাহুল ৪ ও বিরাট কোহলি আউট হয়েছেন ৫ রানে। চেতশ্বর পূজারা ব্যাট করছিলেন ৭ রানে। সেঞ্চুরিয়নের সুপারস্পোর্ট পার্কে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া কয়ে জয়ের রেকর্ড ২৪৯। ২০০০ সালে ইংল্যান্ড হতাশ করেছিল স্বাগতিকদের। জিততে হলে তাই নতুন রেকর্ড গড়তে হবে ভারতকে। অবশ্য এই উইকেটটা নাকি ভারতীয় উপমহাদেশের মতোই মনে হয়েছে মরনে মরকেলের, ‘সেঞ্চুরিয়নে খেলে বড় হয়েছি। এখানে পেসারদের দাপট থাকে। কিন্তু এবারের উইকেটটা ভারতীয় উপমহাদেশের মতো, নইলে স্পিনাররা প্রথম দিন টার্ন পায় কিভাবে?’

ভারতের জন্য দিনটা শুরু হয়েছিল বিরাট কোহলির জরিমানার খবর শুনে। তৃতীয় দিন ২৫তম ওভারে আম্পায়ার মাইকেল গফের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক। ভিজে আউট ফিল্ড বলের ওপর প্রভাব ফেলছিল, এটাই বোঝাতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু আম্পায়ার মেনে নেননি। এ সময় উত্তেজক বাক্যবিনিময় হয় দুজনের। পরে মাটিতে বলও আছড়ে মারেন কোহলি। তাই ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়েছে কোহলির।

২ উইকেটে ৯০ রানে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় উইকেটে এবি ডি ভিলিয়ার্স ও ডিন এলগারের ১৪১ রানের জুটিতে বড় স্কোরের ভিত পেয়ে যায় স্বাগতিকরা। কিন্তু ৮০ রানে ডি ভিলিয়ার্স ফেরার পর লিডটা বেশি বাড়াতে পারেনি তারা। মোহাম্মদ সামি ৪ ও জাসপ্রিত বুমরাহ ৩ উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের গুটিয়ে দেন ২৫৮ রানে। ক্রিকইনফো


মন্তব্য