kalerkantho



টেন্ডুলকারের পর কোহলি

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



টেন্ডুলকারের পর কোহলি

পারলে আকাশ ছুঁয়ে আসেন তখন! সেঞ্চুরির পর বিরাট কোহলিকে লাফিয়ে শূন্যে ভাসতে দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন মন্তব্যই করেছেন অনেকে। কোচ রবি শাস্ত্রীও ভাসছিলেন উচ্ছ্বাসে। ড্রেসিংরুমে সতীর্থরা আর গ্যালারিতে দর্শকরা অভিনন্দন জানান করতালি দিয়ে। অনেকের বিশ্বাস টেন্ডুলকারের ১০০ সেঞ্চুরির রেকর্ড কেউ ভাঙতে পারলে সেটা কোহলি? পারবেন কিনা উত্তরটা সময়ের হাতে। এর আগে টেন্ডুলকারের একটি কীর্তিতে ভাগ বসালেন গতকাল। একমাত্র ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় সেঞ্চুরি ছিল শুধু এই কিংবদন্তির। গতকাল সেঞ্চুরিয়নে টেস্টের তৃতীয় দিন কোহলিও খেললেন ১৫৩ রানের অসাধারণ ইনিংস। তাঁর ব্যাটে ভর করে দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৩৫ রানের জবাবে ভারত লাঞ্চের পর অল আউট হয়েছিল ৩০৭ রানে। প্রোটিয়াদের লিড মাত্র ২৮ রানের।

জবাবে বৃষ্টিবিঘ্নিত দিনে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯ ওভারে ২ উইকেটে ৯০ করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এইডেন মারক্রাম ১ ও হাশিম আমলা ফেরেন ১ রানে। দুজনকেই এলবিডাব্লিউ করেছিলেন জাসপ্রিত বুমরাহ। এবি ডি ভিলিয়ার্স ৫০ ও ডিন এলগার ব্যাট করছিলেন ৩৬ রানে।

আগের দিনের ৫ উইকেটে ১৮৩ রান নিয়ে খেলতে নেমে শুরুতেই হার্দিক পাণ্ডেকে হারায় ভারত। ভারনন ফিল্যান্ডারের থ্রোতে রান আউট তিনি। ২০৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ভারত তখন বিপদের সামনে। সেটা দূর হয় সপ্তম উইকেটে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সঙ্গে বিরাট কোহলির ৭১ রানের জুটিতে। অনেকটা ওয়ানডের মতো ব্যাট চালিয়ে অশ্বিন করেছিলেন ৫৪ বলে ৭ বাউন্ডারিতে ৩৮। কাগিসো রাবাদাকে এক ওভারেই টানা তিনটি বাউন্ডারি মারেন হারানো ব্যাটিং সত্তা খুঁজে পাওয়া অশ্বিন। শেষ পর্যন্ত ফিল্যান্ডারের বলে ফাফ দু প্লেসিসের তালুবন্দি হয়ে ফেরেন তিনি। অপর প্রান্তে ততক্ষণে ২১তম টেস্ট সেঞ্চুরি পেয়ে গেছেন কোহলি, তাও মাত্র ১৪৬ বলে। সব মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোহলির সেঞ্চুরি এখন ৫৩টি, যা দ্রুততম। এত দিন ৩৮০ ইনিংসে ৫৩ আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরির রেকর্ড ছিল হাশিম আমলার। কোহলি তাঁকে পেছনে ফেললেন ৩৫৪তম ইনিংসে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে কোহলি ২১৭ বলে ১৫ বাউন্ডারিতে ১৫৩ করে ফেরেন মরকেলকে ছক্কা মারতে গিয়ে এবি ডি ভিলিয়ার্সের তালুবন্দি হয়ে। মরনে মরকেলের শিকার ৬০ রানে ৪ উইকেট। এ ছাড়া ১টি করে উইকেট মহারাজ, ফিল্যান্ডার, রাবাদা ও নিদির। ক্রিকইনফো



মন্তব্য