kalerkantho


রহমতগঞ্জের সঙ্গে ড্র রাসেলের

৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রহমতগঞ্জের সঙ্গে ড্র রাসেলের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : লিগের শেষ রাউন্ড পর্যন্ত অবনমন এড়ানোর লড়াই জিইয়ে। রহমতগঞ্জ-ফরাশগঞ্জই মূলত সেই লড়াইয়ে। কাল শেখ রাসেলের বিপক্ষে জয়ের আশায় ঝাঁপিয়েও সেই জয় পায়নি রহমতগঞ্জ। তবে গোলশূন্য ড্রয়ে ফরাশগঞ্জের চেয়ে ১ পয়েন্ট এগিয়ে গেছে তারা।

শেখ রাসেল লিগের ষষ্ঠ স্থানে। কাল তাদের জেতারই কথা। রহমতগঞ্জ মরিয়া ফুটবল খেললে জেতার সেই সুযোগ ভালোই ছিল শেখ রাসেলের। বেশ কিছু গোলের সুযোগ তৈরি করেও তারা গোল পায়নি। রহমতগঞ্জ গোলরক্ষকও দৃঢ়তার প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। প্রথমার্ধে মোনায়েম খান রাজুর ক্রসে স্প্যানিয়ার্ড গার্সিয়া দি কোর্তাজার চমৎকার হেড নিয়েছিলেন। কিন্তু ক্রসবার ঘেঁষে বল পোস্টে ঢোকার মুখে অবিশ্বাস্য সেভ করেছেন রহমতগঞ্জ গোলরক্ষক। এর পরপরই ফয়সাল আহমেদের দারুণ একটি ক্রসে আলমগীর রানা পা ছোঁয়ানোর আগেই গোলরক্ষক গোলাম মোস্তফা তুয়ান তা আয়ত্তে নিয়েছেন। পুরো লিগে গোলরক্ষকদের পারফরম্যান্সে দারুণ হতাশ ছিলেন কোচ কামাল বাবু। তবে শেষ দিকে তুয়ান আস্থার সঙ্গে পোস্ট সামলাচ্ছিলেন।

ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে গোল করে বাজিমাত করতে পারতেন অবশ্য জাত্তা মোস্তফা। কিন্তু রহমতগঞ্জ ফরোয়ার্ডের বক্সের একটু ভেতর থেকে নেওয়া জোরালো শট শেখ রাসেল গোলরক্ষক মাকসুদুর রহমানও দারুণ ফিরিয়েছেন। তাতে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগে তাদের ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত। কালকের আগে কাগজ-কলমে হলেও অবনমন ঝুঁকিতে ছিল আরামবাগ। বিজেএমসিকে ১-০ গোলে হারিয়ে পাকাপাকিভাবে সেই ঝুঁকি কাটিয়েছে মারুফুল হকের দল। ম্যাচের ৭৮ মিনিটে কর্নারে জটলার ভেতর পাওয়া বল টোকায় জালে ঢুকিয়ে ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দিয়েছেন মোহাম্মদ আরিফ। লিগে ২০ পয়েন্ট নিয়ে আরামবাগ এখন সপ্তম স্থানে। রাসেলকে টপকানোর সুযোগ অবশ্য তাদের নেই। শেষ রাউন্ডে অবনমন বাঁচানোর লড়াইয়ে রহমতগঞ্জ খেলবে সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে, ফরাশগঞ্জের প্রতিপক্ষ শেখ জামাল।



মন্তব্য