kalerkantho


অবশেষে বিপিএল পাচ্ছে মুস্তাফিজকে

২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



অবশেষে বিপিএল পাচ্ছে মুস্তাফিজকে

চট্টগ্রাম থেকে প্রতিনিধি : অনুশীলন সেরে ড্রেসিংরুমে ওঠার সিঁড়ির মুখে খুলনা টাইটানসের মাহমুদ উল্লাহর সঙ্গে দেখা রাজশাহী কিংসের মুস্তাফিজুর রহমানের। ‘কাটার মাস্টার’-এর বাঁ পায়ের গোড়ালিতে তখন টেপ পেঁচিয়েই চলেছেন দলটির ফিজিও বায়েজিদুল ইসলাম।

দেখে মাহমুদ উল্লাহর প্রশ্ন, ‘কিরে, বোলিং করবি নাকি?’ মুস্তাফিজের জবাব, ‘করতে তো হবেই। পয়সা হালাল করতে হবে না!’

মাহমুদ উল্লাহর হয়তো জানা ছিল না যে এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) মাঠে নামার প্রায় দোরগোড়ায় মুস্তাফিজ। কাঁধের চোটের কারণে গত বিপিএলের পুরোটাই দেখেছেন মাঠের বাইরে বসে। এবার দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ফুটবল খেলতে গিয়ে পাওয়া গোড়ালির চোটে টুর্নামেন্টের অর্ধেক এরই মধ্যে মিস করে বসে আছেন। আসরের শুরু থেকে তাঁর ফ্র্যাঞ্চাইজি রাজশাহী কিংসের সঙ্গেও ছিলেন না। গত ৮ নভেম্বর থেকে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার পর তাঁর পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় এমন সাড়া মিলেছে যে এবার এই পেসারের মাঠে নামার পথে শেষ বাধাটিও আর নেই।

পয়েন্ট টেবিলের নিচ থেকে দ্বিতীয় স্থানে থাকা কিং’দের জন্য যা দারুণ আশাব্যঞ্জক খবরও। আগামীকাল শীর্ষে থাকা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মুখোমুখি হচ্ছে তাঁরা। মুস্তাফিজের ফেরার খবরে বিপদে থাকা দলটির প্রতি তাই বাড়তি সমীহ কুমিল্লা অধিনায়ক তামিম ইকবালেরও, ‘এই ম্যাচটি সহজ হবে না।

কারণ ওদের মুস্তাফিজ ফিরছে। ’ ফেরার পথে গতকাল নেটে ৫ ওভার বোলিংও করেছেন মুস্তাফিজ। তাঁর দলের ফিজিও বায়েজিদ জানালেন, ‘এই নিয়ে চারটি সেশন পুরোদমে বোলিং করল মুস্তাফিজ। ওর শরীরও খুব ভালো সাড়া দিয়েছে। কোনো সমস্যা হয়েছে বলে অভিযোগও করেনি। কাজেই ফিজিওর দৃষ্টিকোণ থেকে বললে বলব, ও ঠিকই আছে। ’

ফিজিওর ছাড়পত্র যখন মিলেই গেছে, তখন খেলাতে বাধাও নেই। টিম ম্যানেজমেন্টও তাই মুস্তাফিজকে একাদশে রেখে কুমিল্লা ম্যাচের জন্য রণপরিকল্পনা তৈরিতে ব্যস্ত। কোচ সারোয়ার ইমরান তো বলেই দিলেন, ‘হ্যাঁ, পরের ম্যাচে মুস্তাফিজ খেলছে। ’ চোটজর্জর দলটির জন্য যে এটি দারুণ টনিক হিসেবে কাজ করবে, সেটিও উল্লেখ করতে ভুললেন না তিনি, ‘ওর ফেরা আমাদের দলটিকে চাঙ্গা করার মতো খবরই। আশা করি ও ভালোই করবে। ’

যদিও ইনজুরি থেকে ফিরেই পারফরম করা যে কারো জন্যই কঠিন। কাঁধের অস্ত্রোপচার করিয়ে দীর্ঘ পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শেষে মাঠে ফেরার পরও ছন্দটা ধরতে সময় লেগেছিল সাতক্ষীরার দূর গ্রাম তেঁতুলিয়া থেকে উঠে আসা এই তরুণের। তবে এবার বিপিএলে এমন সময় নামছেন, যখন দল সংকটাপন্ন। আর প্রথম ম্যাচটিই এবারের বিপিএলে সবচেয়ে ছন্দে থাকা দলের বিপক্ষে। অবশ্য ছন্দ ফিরে পেতে খেলতেও হবে। দীর্ঘ অপেক্ষার পর বিপিএলে খেলার সুযোগটি অবশেষে হচ্ছে মুস্তাফিজের। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে হইচই ফেলে দেওয়া আবির্ভাবের পর ২০১৫-র বিপিএলে খেলেছিলেন ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে। পরেরবার বাইরে বসে কাটিয়েছেন একই দলের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে।

এবার একমাত্র ‘আইকন’ ক্রিকেটার হিসেবে ‘প্লেয়ার্স ড্রাফট’ নামের লটারি থেকে তাঁকে পেয়েছে রাজশাহী কিংস। পেয়েও তাঁকে না পাওয়া দলটিও অবশেষে পেতে যাচ্ছে তাঁর সার্ভিস। যেটি দেওয়ার অপেক্ষায় মুস্তাফিজ নিজেও। গতকাল জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুশীলনের এক ফাঁকে ‘বোলিং করলাম তো। সব ঠিকই আছে মনে হচ্ছে, কোনো সমস্যা হচ্ছে না। দেখা যাক’ বলে চলে যাওয়ার পথে ‘থাম্বস আপ’ও দেখিয়ে গেলেন। অর্থাৎ ভালো কিছু করার প্রতিজ্ঞায়ই ফিরছেন মুস্তাফিজ।


মন্তব্য