kalerkantho


কোরিয়া-মালয়েশিয়ার গোলের মালা

১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



কোরিয়া-মালয়েশিয়ার গোলের মালা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : হকিতে বাংলাদেশ আর ওমান প্রায় কাছাকাছি মানের দল। কিন্তু পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ মাঠে লড়াই করে দেখাতে না পারলেও ওমান তা করে দেখিয়েছে।

এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন কোরিয়ার বিপক্ষে তারা দুর্দান্ত লড়েছে প্রথম ৩০ মিনিট, এরপর আর সেই তেজ ধরে রাখতে না পেরে হেরেছে ৭-২ গোলে। অন্য ম্যাচে সারি ফয়জালের হ্যাটট্রিকে মালয়েশিয়া ৭-১ গোলে হারিয়েছে চীনকে।

ওমানিরা শুরু থেকে লড়াই করেছে, কোরিয়ান ডিফেন্সে হানা দিয়েছে বারবার। ১৮ মিনিটে লং হিট একজন থামিয়ে দিয়েছেন তারপর আল ফজারি রাশাদ ব্যবধান গড়েন ম্যাচে। তবে ২২ মিনিট লি মকিয়ংয়ের গোলে ম্যাচে ফেরার পর কোরিয়ানরা আর পেছনে ফিরে তাকায়নি। ৩৫ মিনিটে চো সুক হুনের গোলে লিড নেয়। এর মিনিট তিনেক বাদে চিও ইনুর ফ্রি-হিটে চমৎকার এক গোল করেন চো সুক হুন। এই আধিপত্যের কোয়ার্টার শেষ হয় আরো দুই গোলে। শেষ কোয়ার্টারে আরো তিন গোল করে কোরিয়ানরা ম্যাচ শেষ করার আগে ওমান ফিরিয়ে দিয়েছে আরো এক গোল।

ওমানের ভারতীয় কোচ পোনাচ্চার আফসোস, ‘প্রথম দুই কোয়ার্টারের মতো যদি শেষের দুই কোয়ার্টার খেলত পারত দল! এটা আসলে কঠিন, ওরা চ্যাম্পিয়ন দল এবং শেষ দুই কোয়ার্টারে চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলেছে। ফিটনেসে পিছিয়ে পড়েছি আমরা। ’

‘বি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে চীন দাঁড়াতেই পারেনি মালয়েশিয়ার সামনে। চাপের মুখে পেছাতে পেছাতে চীন নিজেদের ডিফেন্সে গিয়ে একের পর এক পেনাল্টি কর্নার উপহার দিতে থাকে। প্রথম কোয়ার্টারে চারটি পেনাল্টি কর্নারই ঠেকিয়ে দিয়েছে চীনা গোলরক্ষক। ১২ মিনিটে হয়েছে প্রথম গোল। পরিকল্পিত আক্রমণের গোলে পরিণতি দিয়েছেন তাজুদ্দিন টেঙ্গু। দ্বিতীয় কোয়ার্টার থেকে শুরু গোলের মিছিল। ১৭ মিনিটে ফয়জাল সারির দুর্দান্ত হিটে ২-০-তে এগিয়ে যায় মালয়েশিয়া। ১৮ মিনিটে রহিম-ফয়সালের স্টিক ওয়ার্কের তাজুদ্দিন টেঙ্গু করেন নিজের দ্বিতীয় গোল। ৩১ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে একমাত্র গোলটি করেছেন ফয়জাল সারি। ৩৫ মিনিটে সাবাহ শারিলের ফিল্ডগোলের পর ফয়জাল সারি ৪১ মিনিটে আরেক গোল করে হ্যাটট্রিক করেন। হ্যাট্রিকের পর চীনের ওয়েন হুই এক গোল ফিরিয়ে দেওয়ার পর ৬০ মিনিটে রামাদান করেছেন মালয়েশিয়ার পক্ষে সপ্তম গোলটি।


মন্তব্য