kalerkantho


ব্যারি ৬৩৩ নট আউট

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ব্যারি ৬৩৩ নট আউট

প্রতিপক্ষ আর্সেনাল। সেই দলেরই কোচ কিনা পুরো দলের স্বাক্ষর করা বিশেষ জার্সি উপহার দিলেন গ্যারেথ ব্যারিকে! আসলে উপলক্ষটাই এমন ছিল।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সবচেয়ে বেশি ৬৩৩ ম্যাচ খেলার কীর্তি গড়ে ফেললেন ওয়েস্ট ব্রোমের এই মিডফিল্ডার। ৬৩২ ম্যাচ নিয়ে এত দিন শীর্ষে ছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তি রায়ান গিগস। নিজের রেকর্ড হাতছাড়া হওয়ার দিনে ৩৬ বছর বয়সী ব্যারিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন গিগসও, ‘প্রিমিয়ার লিগে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড ভাঙার জন্য অভিনন্দন গ্যারেথ। অনেক বড় ব্যাপার এটা। আশা করছি এখানেই থামবে না তুমি। ’

থামার কথা ভাবছেন না ব্যারি নিজেও। তিনি খেলতে চান ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত, ‘সপ্তাহটা অন্য রকম ছিল, সংবাদমাধ্যমের অনেক আকর্ষণ। এ অর্জনটা পেছনে ফেলে যেতে পারলেই ভালো লাগবে। ৬৩৩ ম্যাচ হয়তো নতুন রেকর্ড কিন্তু এখানেই থামতে চাই না।

চেষ্টা করব ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত খেলার। ’ ব্যারির রেকর্ডের ম্যাচটা অবশ্য স্মরণীয় হয়নি ওয়েস্ট ব্রোমের। আর্সেনালের কাছে তারা হেরেছে ২-০ গোলে। ২০ ও ৬৭ মিনিটে গোল দুটি করেছেন আলেকজান্দ্রে লাকাজেত্তে। এই জয়ে ৬ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে ৭ নম্বরে উঠে এসেছে আর্সেনাল। আর ওয়েস্ট ব্রোম ৮ পয়েন্ট নিয়ে আরেকটু পিছিয়ে এখন ১২ নম্বরে।

১৯৯৮ সালের মে মাসে ১৭ বছর বয়সী ব্যারির অভিষেক প্রিমিয়ার লিগে। অ্যাস্টন ভিলার হয়ে বদলি নেমে শেফিল্ড ওয়েডনেসডের বিপক্ষে মাঠ ছেড়েছিলেন ৩-১ গোলের জয়ে। এরপর খেলেছেন ম্যানচেস্টার সিটি আর এভারটনে। এই মৌসুমে যোগ দিয়েছেন ওয়েস্ট ব্রোমে। আর্সেনাল ম্যানেজার আর্সেন ওয়েঙ্গার কয়েকবার চেষ্টা করেও পারেননি ব্যারিকে দলে নিতে। সেই আর্সেনালের বিপক্ষেই মাইলফলকের ম্যাচটি খেললেন তিনি। তবে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারলেই খুশি হতেন বেশি, ‘খুব ভালো লাগত ম্যাচটা জিততে পারলে। তবে অনেক কিছু শিখলাম আমরা। ’ ৬৩৩ ম্যাচের ৬০১টিতে মূল একাদশের খেলোয়াড় হিসেবে নেমেছেন ব্যারি। তাঁর চেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছে প্রিমিয়ার লিগের ১৩টি ক্লাব! জিতেছেন ২৬১টি ম্যাচ অথচ তাঁর চেয়ে সাউদাম্পটন কম ম্যাচ জিতেছে, ৩৮টি। হলুদ কার্ড দেখেছেন ১১৯টি, যা এই লিগে সর্বোচ্চ। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে সিরি ‘এ’তে সবচেয়ে বেশি ৬৪৭ ম্যাচ খেলার রেকর্ড পাওলো মালদিনির। রেকর্ডটা হয়তো এবারই ভেঙে ফেলবেন ব্যারি। ডেইলি মেইল


মন্তব্য