kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

রোমাঞ্চকর একটা আসর হবে

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রোমাঞ্চকর একটা আসর হবে

অনেক দিন ধরেই দেশসেরা স্ট্রাইকারদের একজন পুস্কর ক্ষিসা। অদ্ভুত কারণে গত ওয়ার্ল্ড হকি লিগ রাউন্ড টু-র দলে ছিলেন না তিনি।

তবে এশিয়া কাপ দিয়ে আবার দলে ফিরেছেন। কাল ঘোষণা করা দলে সহকারী অধিনায়কের দায়িত্বও দেওয়া হয়েছে তাঁকে। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে সে প্রসঙ্গেই কথা বলেছেন পুস্কর

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : গত টুর্নামেন্টেই আপনি দলে ছিলেন না, এবার ফিরেই সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব পেলেন। কেমন লাগছে?

পুস্কর ক্ষিসা : সত্যি বলতে দলটা আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো আমরা জানি না। তবে যদি তা-ই হয়, তবে এটা আমার জন্য হবে অনেক আনন্দের ব্যাপার। কারণ জাতীয় দলে প্রথমবারের মতো আমি এমন দায়িত্ব পাব। গত ওয়ার্ল্ড হকি লিগে কী হয়েছে না হয়েছে আমি মনে রাখিনি। এখন শুধু এই ক্যাম্প আর এশিয়া কাপেই মনোযোগ রাখছি।

প্রশ্ন : তার মানে ফেরাটা আপনি উপভোগ করছেন?

পুস্কর : জাতীয় দলে তো আর আমি নতুন নই।

এই দলটা একসঙ্গে অনেক দিন ধরেই আছে। ফিরে আমার মানিয়ে নিতে তাই একদমই সমস্যা হয়নি। আর এখন আমরা বিকেএসপিতে আছি। এখানকার ছাত্র ছিলাম আমি। বিকেএসপিকে ক্যাম্প করাটাও দারুণ উপভোগ্য আমার জন্য।

প্রশ্ন : তবে টুর্নামেন্টের আগে আগে মূল ভেন্যুতে অনুশীলন করতে পারলেই নিশ্চয় ভালো হতো?

পুস্কর : মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামের টার্ফে এখন পরিচর্যার কাজ চলছে। আমাদের তাই কিছুদিনের জন্য বিকেএসপিতে আসতে হয়েছে। এটা বড় সমস্যা হবে না। তা ছাড়া এখানে অনুশীলন করে আমরা অভ্যস্ত। বিকেএসপির টার্ফ যদিও একটু বেশি দ্রুতগতির। কিন্তু আবার ঢাকায় ফিরে নীল টার্ফের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারব।

প্রশ্ন : এখনো তো ফ্লাডলাইটে অনুশীলনের সুযোগ পাননি...

পুস্কর : না, কাজ শেষ হতে বোধহয় আরো কিছুদিন সময় লাগবে। তবে আশা করি আসর শুরুর আগে ৮-১০ দিন আমরা সেই সুযোগ পাব। তা ছাড়া এটাও খুব বড় কোনো সমস্যা না। এখনকার সময় বেশির ভাগ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টই হয় ফ্লাডলাইটে। জাতীয় দলের হয়ে দেশের বাইরে আমাদের সেই অভিজ্ঞতা নিয়মিতই হয়েছে। তবে ঢাকায় ফ্লাডলাইটে খেলাটা সত্যিই হবে দারুণ ব্যাপার।

প্রশ্ন : টুর্নামেন্টটা নিয়ে আপনারাও তাই রোমাঞ্চিত?

পুস্কর : তা তো অবশ্যই, এশিয়া কাপ তো অনেক বড় আসর। ঢাকার মাঠে ফ্লাডলাইটের নিচে ভারত, পাকিস্তানের মতো দলের বিপক্ষে খেলার কথা ভাবলেই তো শিহরণ জাগে। দর্শকদের প্রত্যাশার কথা তো জানি। আমরা তাই নিজেদের শতভাগ ঢেলে দেব এই টুর্নামেন্টে।

প্রশ্ন : দিন বিশেক আর বাকি, এই মুহূর্তে প্রস্তুতি কোন পর্যায়ে?

পুস্কর : আমাদের ফিটনেস নিয়ে এখন চিন্তা নেই। এখন আমরা গেম নিয়ে ভাবছি। সেট প্লে, অ্যাটাক, ডিফেন্স নিয়ে কাজ হচ্ছে।


মন্তব্য