kalerkantho


প্রস্তুতিতে সন্তুষ্ট বাংলাদেশ

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



প্রস্তুতিতে সন্তুষ্ট বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : মাঠের দূরবস্থার জন্য বাংলাদেশে এসে ফতুল্লায় প্রস্তুতি ম্যাচই খেলতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। অন্যান্য ভেন্যুও তেমন জুতসই মনে না হওয়ায় টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে ঢাকায় মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামেই অনুশীলন চালিয়ে গেছে স্টিভেন স্মিথের দল।

কখনো কখনো সেন্টার উইকেটে অনুশীলনের সুযোগ দিয়ে বিস্ময়ে স্বাগতিক দলের চোখও কপালে তুলে দিয়েছে। কারণ অতিথি দলকে এই সুবিধা দেওয়ার রেওয়াজ নেই ক্রিকেটবিশ্বের কোথাও। তাই দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে বাংলাদেশ দলও তা চেয়ে বসেনি। তারা আগামীকাল থেকে বেনোনির সাহারা উইলোমোর পার্কে দক্ষিণ আফ্রিকার আমন্ত্রণমূলক একাদশের বিপক্ষে শুরু হতে যাওয়া তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের আগে অনুশীলন সারছে স্বাগতিক বোর্ডের নির্ধারণ করে দেওয়া জায়গাতেই। যেখানে অনুশীলন করেও কোনো অনুযোগ নেই বাংলাদেশ শিবিরের। বরং দলের ম্যানেজার হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাওয়া প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন দারুণ উচ্ছ্বসিত, ‘অনুশীলনের সুযোগ-সুবিধা এককথায় দুর্দান্ত। ’

এতে অনুশীলনও জমাট না হওয়ার কারণ নেই। দল নিয়ে হোটেলে ফেরার পর ফোনে মিনহাজুলও তা-ই বললেন, ‘আজকের অনুশীলনও দারুণ হয়েছে। ’ এই অনুশীলন পর্বে ভারী হয়েছে দলও।

কারণ বিশ্ব একাদশের হয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য পাকিস্তানে যাওয়ায় দলের সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়া হয়নি তামিম ইকবালের। তিনি গিয়ে পৌঁছেছেন এক দিন পর। গত পরশু পৌঁছে বিশ্রাম নেওয়ার পর কালই অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন বাঁহাতি ওপেনার। নেটে ব্যাটিংও করেছেন। তাঁর দলের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দেওয়ারও ইতিবাচক দিক দেখলেন মিনহাজুল, ‘তামিমের অনুশীলনে থাকাটাও বাড়তি কিছু যোগ করে। কারণ ও শুধু নিজের দক্ষতা বাড়ানোর চেষ্টাই শুধু করে না, নিজের ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি ও মানসিকতা দিয়েও ড্রেসিংরুমের পরিবেশ বদলে দেয়। ’ বেশ কিছুদিন ধরেই ব্যাট হাতে ভালো সময় যাচ্ছে তামিমের। দেশের মাটিতে মাত্রই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট জয়ে অবদান রেখেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও তামিমের ফর্মের ধারাবাহিকতা দেখার আশা প্রধান নির্বাচকের, ‘এ মুহূর্তে তো ও খুবই ভালো খেলছে। আশা করছি মহাগুরুত্বপূর্ণ এই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও সে ফর্মটা ধরে রাখতে পারবে। ’ পারলে বাংলাদেশ দলেরও ভালো কিছুর আশা পূরণ হওয়ার সম্ভাবনা। তবে এ কঠিন সফরে তামিমের দায়িত্বও বেড়ে গেছে অনেক। কারণ বিশ্রাম চেয়ে পাওয়ায় টেস্ট সিরিজে নেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তাঁর অনুপস্থিতিতে দলকে পথ দেখানোয় তামিমই নেতৃত্ব দেবেন বলেও আশা মিনহাজুলের, ‘তামিমকে ওর ছোটবেলা থেকেই দেখছি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও সে প্রতিপক্ষের বোলারদের ওপর চড়ে বসেত জানে। সুতরাং প্রোটিয়া বোলারদের সে ছাড়বে বলে মনে হয় না। দক্ষিণ আফ্রিকায় সফল হতে গেলে অবশ্য আমাদের সম্মিলিত পারফরম্যান্স থাকতে হবে। আমার বিশ্বাস, তামিম সামনে থেকে পারফরম করে অন্যদেরও পথ দেখাবে। ’


মন্তব্য