kalerkantho


সাইফের জয়ে ভ্যালেন্সিয়ার প্রথম অবদান

১৯ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



সাইফের জয়ে ভ্যালেন্সিয়ার প্রথম অবদান

ক্রীড়া প্রতিবেদক : হেম্বার ভ্যালেন্সিয়ার গোলে সাইফ স্পোর্টিংয়ের হতাশা কেটেছে। এরপর মতিন মিয়ার গোলে তারা ২-০ গোলে মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়ে টানা তৃতীয় জয় পেয়েছে।

সুবাদে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তারা তৃতীয় স্থানে আর দ্বিতীয় হারের বিস্বাদে মুক্তিযোদ্ধা ৬ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে। ওদিকে পয়েন্টের খাতা খুলেছে আরামবাগ। টানা তিন ম্যাচ হারের পর মারুফুল হকের দল ২-১ গোলে হারিয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে।

কাদা মাঠের কারণে লিগের খেলা বন্ধ ছিল দুই দিন। কাদার মধ্যে বালু ফেলে গতকাল মাঠটা কোনো রকমে তৈরি করা হয়েছে ম্যাচের জন্য। কিন্তু তাতে গোলের সম্ভাবনা জাগিয়ে শুরু করেও সাইফ স্পোর্টিং গোল পায়নি প্রথমার্ধে। প্রথম মিনিটেই তারা এগিয়ে যেত পারত। কিন্তু গোলরক্ষক উত্তম বড়ুয়া ত্রাতা হয়ে বাঁচিয়ে দেয় মুক্তিযোদ্ধাকে। জামাল ভূঁইয়ার ফ্রি-কিকে তপুর শট দু-দুবার ঠেকিয়ে দেন তিনি।

৫ মিনিটে হেমন্তর সুযোগটিও বিফলে যায়। এরপর আস্তে আস্তে গুছিয়ে খেলতে শুরু করে মুক্তিযোদ্ধা। তাতে তৈরি হয় দুটি সুযোগ। ১১ মিনিটে মিশরি ফরোয়ার্ড এসিয়ান মোহাম্মদ বাইরে মারার পর আমজাদ আলীর হেডও যায় ক্রসবার উঁচিয়ে। এর পরও সাইফের আধিপত্য বজায় থাকে কিন্তু সমস্যা হলো স্কোরলাইনে তার প্রতিফলন ঘটাতে পারছে না। ২৬ মিনিটে হেমন্ত ভিনসেন্টের ক্রসে জুয়েলের শট ফিরিয়ে দিয়েছেন উত্তম। বিরতির আগে আগে এই উইঙ্গারের আরেকটি শট ফিরিয়ে দেয় ক্রসবার।

দ্বিতীয়ার্ধে শুরু হতে না হতেই সেই গোলখরা কেটে যায় হেম্বার ভ্যালেন্সিয়ার সৌজন্যে। এই কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ডকে আনা গোলের জন্য, কিন্তু তার কাছে গোলের দাবিটা যেন বড় কঠিন চাওয়া হয়ে গিয়েছিল। সেই ফেডারেশন কাপ থেকে ধরলে গত পাঁচ ম্যাচে অকাতরে গোল মিসের মহড়া দিয়েছেন। এই ‘মিস-মাস্টার’ ৫৪ মিনিটে জুয়েলের কাটব্যাকে নিখুঁত ফিনিশ করে গোলের সামর্থ্য প্রমাণ করেছেন। ৭৪ মিনিটে গোলের ব্যবধান দ্বিগুণ করেছেন ‘খেপ-মাস্টার’ মতিন মিয়া। সেই খেপের কাল থেকেই তাঁর পায়ে গোলের সংকট ছিল না। প্রিমিয়ার লিগেও দুই ম্যাচ খেলে গোলের খাতা খুলেছেন আগেই। গতকাল দুই ডিফেন্ডারকে ছিটকে ফেলে দূরের পোস্টে বল পাঠিয়ে সাইফের তৃতীয় জয় নিশ্চিত করেছেন।

দিনের অন্য ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে একচেটিয়া খেলেছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। তবে ম্যাচের শুরুতে ব্রাদার্স দু-দুটি দুর্দান্ত সুযোগ নষ্ট করার ষষ্ঠ মিনিটে আত্মঘাতী গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে। নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড বুকোলার শট গোলরক্ষক কাদের ফিরিয়ে দিলেও তাঁর অধিনায়ক আশরাফুল করিমের মুখে লেগে জড়িয়ে যায় ব্রাদার্সের জালে। ৯ মিনিটে শাহরিয়ার বাপ্পীর ক্রসটি জালে ঠেলে বুকোলা ২-০ গোলে আরামবাগকে এগিয়ে নেয় প্রথম জয়ের কাছাকাছি। ইনজুরি টাইমে এক গোল ফিরিয়ে দিয়েছেন ব্রাদার্সের কঙ্গোর ফরোয়ার্ড সিও জুনাপিও।


মন্তব্য