kalerkantho


ফ্লাডলাইটে ভয় ব্রডের

১৬ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০



ফ্লাডলাইটে ভয় ব্রডের

মাত্রই দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৩-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজে হারিয়ে দেওয়ার পর টেস্ট ক্রিকেটের ‘আইসিইউ’তে থাকা ওয়েস্ট  ইন্ডিজকে নিয়ে ইংল্যান্ডের ভয়! এজবাস্টন টেস্টের আগে স্টুয়ার্ট ব্রড সাবধান করে দিচ্ছেন সতীর্থদের। তবে সেটা প্রতিপক্ষকে নিয়ে নয়।

ঐতিহ্য ভেঙে ফ্লাডলাইটের যুগে প্রবেশ করেছে টেস্ট ক্রিকেটও।

বৃহস্পতিবার এজবাস্টনে শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের প্রথম টেস্ট।   ইংল্যান্ডে এখনো টেস্ট ক্রিকেট সর্বোচ্চ মর্যাদায়, অ্যাশেজের মর্যাদা যেন বিশ্বকাপের চেয়েও বেশি। অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে চলছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, তারকারা সব সেখানেই। টি-টোয়েন্টির ভাড়াটে খেলোয়াড় হয়ে দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়ানোটাই বেছে নিয়েছেন ক্যারিবিয়ানের সেরা ক্রিকেটাররা। টেস্ট দলে যাঁরা খেলছেন, তাঁরাও যে সিপিএলে প্রস্তাব পেলে চলে যাবেন না, এটা বলা মুশকিল। এমন চরম বৈপরীত্যের মধ্যেও ব্রডের শঙ্কা, ‘এ সপ্তাহে আমরা অজানা রাজ্যে পা রাখতে যাচ্ছি। সত্যিই জানি না ডে-নাইট টেস্টে কী হতে যাচ্ছে। কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলতে চেষ্টা করলাম; অস্ট্রেলিয়ায় ওরা তো অন্য রকম বল (কোকাবুরা) দিয়ে খেলেছে।

কাউন্টি যারা খেলেছে তাদের জিজ্ঞেস করলাম, বলল চকচকে ভাবটা দ্রুত চলে যায় আর নরম হয়ে যায়। স্পিনারদের বাউন্সে খুব তারতম্য হয়। বল খুব একটা ঘোরে না। ’

এবারই প্রথম গোলাপি ডিউক বলে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা হবে জো রুটদের। ছয় সপ্তাহ আগে কাউন্টিতে গোলাপি বলের ম্যাচটা ছিল বৃষ্টিবিঘ্নিত। রুট ১৩ বল খেলেছিলেন, জনি বেয়ারস্টো ব্যাট করার সুযোগ পাননি, গোড়ালির চোটের কারণে খেলেননি ব্রড। অন্যদিকে দুবাইতে পাকিস্তানের সঙ্গে খেলা দিন-রাতের টেস্টটা আজহার আলীর ট্রিপল সেঞ্চুরির পরও জমিয়ে তুলেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ডার্বিশায়ারে দিন-রাতের ট্যুর ম্যাচটায় দুই ইনিংসে চারজন সেঞ্চুরি করেছেন! সব মিলিয়ে ব্রডের ভয় পাওয়াটা মোটেও অযৌক্তিক নয়। ক্রিকইনফো


মন্তব্য