kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

যখনই দায়িত্ব পাই কাজটা আমি উপভোগ করি

১৯ জুন, ২০১৭ ০০:০০



যখনই দায়িত্ব পাই কাজটা আমি উপভোগ করি

হকিতে ঘুরে ফিরে মাহবুব হারুনের ওপরই দায়িত্ব পড়ে জাতীয় দলের। বিদেশি কোচেই মূল আগ্রহ থাকে ফেডারেশনের।

তাঁদের ব্যর্থতাই দায়িত্বে ফেরায় হারুনকে। হকি লিগ রাউন্ড টু-তে প্রত্যাশা পূরণ না হওয়ায় জার্মান অলিভার কার্টজকে সরিয়ে যেমন আবার তাঁর হাতেই তুলে দেওয়া হয়েছে জাতীয় দল। এশিয়া কাপ সামনে রেখে কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি সে প্রসঙ্গেই কথা বলেছেন হারুন


কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : ঘুরে ফিরে এই যে বারবার জাতীয় দলের দায়িত্বে ফেরেন, বিষয়টা কেমন লাগে আপনার কাছে?
মাহবুব হারুন : আমি এটা স্বাভাবিকভাবেই দেখি। কারণ আমি পেশাদার কোচ নই। তাই যখনই দায়িত্ব পাই কাজটা উপভোগ করার চেষ্টা করি।
প্রশ্ন : বিদেশি কোচের দিকেই তো সব সময় ঝুঁকে থাকে ফেডারেশন, সেখানে ব্যর্থ হলেই ফিরছে আপনার দিকে...
হারুন : এটা আমাদের ক্রীড়াঙ্গনের সংস্কৃতি হয়ে গেছে বলতে পারেন। কোন ফেডারেশন বিদেশি কোচের দিকে ঝুঁকে থাকে না, বলেন। আমি তাই বিষয়টাকে সহজভাবেই দেখি।
প্রশ্ন : কিন্তু কখনো কি ইচ্ছে হয় না দলটাকে নিয়ে দীর্ঘ মেয়াদে কাজ করার?
হারুন : এটাও আমাদের ক্রীড়া সংস্কৃতিতে নেই। টুর্নামেন্ট বাই টুর্নামেন্ট আমরা চিন্তা করি। দল নিয়ে আলাদা চিন্তা নেই। আমি একা আর কী করব, এভাবেই মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি।
প্রশ্ন : সামনে এশিয়া কাপ, এবার কী লক্ষ্য থাকবে আপনার?
হারুন : লক্ষ্য তো সব সময় একই রকম, দলটা যে পজিশনে আছে তার থেকে ওপরে তুলে নেওয়া। গত এশিয়ায় এই মুহূর্তে আমরা অষ্টম, চেষ্টা থাকবে এর চেয়ে ভালো করার এই আসরে।
প্রশ্ন : ওমান এখনো আমাদের আগে, এই ওমানকে পেছনে ফেলাটা বাংলাদেশের বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে...
হারুন : আমার মনে হয় ওমানের বিপক্ষে স্বাভাবিক খেলাটা খেলেই আমরা জিততে পারব। ওদের বিপক্ষে ইদানীং অহেতুক চাপ নিয়ে ফেলছি আমরা। তাতে মিডিয়ারও একটা ভূমিকা আছে, ‘ওমান আইলো’—এমন একটা রব আপনারা তুলে দিয়েছেন। তাতে খেলোয়াড়রাও চাপ নিয়ে ফেলছে।
প্রশ্ন : আপনার কি মনে হয়, ওমান সত্যি সত্যিই উন্নতি করছে নাকি বাংলাদেশ প্রত্যাশিতভাবে এগোতে পারছে না?
হারুন : ওমান উন্নতি করছে কোনো সন্দেহ নেই। জাতীয় দল নিয়ে ওরা অনেক কাজ করছে। প্রচুর পয়সা খরচ করছে। যেকোনো টুর্নামেন্টের আগেই দেখবেন ওরা দেশের বাইরে ক্যাম্প করতে যায়।  
প্রশ্ন : বাংলাদেশের প্রস্তুতি নিয়ে এবার আপনার কী পরিকল্পনা?
হারুন : মাত্রই দায়িত্ব পেলাম। ঈদের পর থেকে পুরোদমে কাজ শুরু করব। কিছু খেলোয়াড় এখনো ইউরোপে লিগ খেলছে। ৫ জুলাই সবাইকে নিয়ে ক্যাম্প শুরু হবে। অক্টোবরে টুর্নামেন্ট, তার আগে প্রস্তুতির জন্য ভারত ও মালয়েশিয়ায় যেতে পারি আমরা।  


মন্তব্য