kalerkantho


আর ১ পয়েন্ট চাই রিয়ালের

১৯ মে, ২০১৭ ০০:০০



আর ১ পয়েন্ট চাই রিয়ালের

দীর্ঘদিন লিগ শিরোপা জিততে না পারার আক্ষেপটাই বুঝি এবার ঘুচতে চলেছে রিয়াল মাদ্রিদের! পরশু রাতে সেল্টা ভিগোকে ৪-১ গোলে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে জিনেদিন জিদানের দল। লিগের শেষ ম্যাচে বার্সেলোনা যদি এইবারকে হারিয়েও দেয় তাহলেও শিরোপা জিততে পারবে রিয়াল মাদ্রিদ। এ জন্য তাদের স্রেফ হার ঠেকাতে হবে মালাগার সঙ্গে। অর্থাৎ আর মাত্র ১ পয়েন্ট হলেই লা লিগা রিয়ালের।

প্রতিকূল আবহাওয়ার আশঙ্কায় ভিগো শহরের মেয়রের কথাতেই সেল্টা ভিগোর মাঠে রিয়ালের ম্যাচটি স্থগিত হয়ে যায়। ২১তম রাউন্ডের ম্যাচটি এসে হয়েছে শেষ রাউন্ডের ম্যাচের আগে। নির্ধারিত সময়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ছিল রিয়াল, বার্সেলোনার চেয়ে ১ পয়েন্ট এগিয়ে। স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর নতুন সূচিতে যখন ম্যাচটি মাঠে গড়াল, তখন কিক অফের আগে এক ম্যাচ হাতে রেখে বার্সেলোনার সমান পয়েন্ট রিয়ালের। পয়েন্ট হারালেই পিছিয়ে পড়ার ভয়। তবে সব শঙ্কা কেটে যায় ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জাদুকরী পারফরম্যান্সে। ইসকোর মাপা পাসে চমৎকার রিসিভ ও নিখুঁত নিশানার শটে আসে রোনালদোর প্রথম গোলটি। পরের গোলটিও ইসকোর পাসে। মাঝমাঠের একটু সামনে থেকে বাড়ানো থ্রু বল দখলে নিয়ে বক্সের সামনে থেকে বাঁ পায়ের বুলেট-শটে দ্বিতীয় গোল রোনালদোর। প্রথম গোলেই ভেঙেছিলেন জিমি গ্রেভসের রেকর্ড। ইউরোপের লিগগুলোতে সবচেয়ে বেশি গোল এখন রোনালদোর; ভেঙেছেন সাবেক ইংলিশ স্ট্রাইকারের ৩৬৬ গোলের রেকর্ড। গ্রিভসের চেয়ে ১ গোল কম জার্মান কিংবদন্তি জার্ড মুলারের আর মেসির ৩৪৬। রোনালদোর জোড়া গোলের পাশাপাশি করিম বেনজেমা ও টোনি ক্রোসের একটি করে গোল রিয়ালকে দেয় জয়ের নিশ্চয়তা। সেল্টার ইয়াগো আসপাস ৬২ মিনিটে লাল কার্ড দেখে আরো সহজ করে দিয়েছিলেন রিয়ালের কাজটা। তাই ৬৯ মিনিটে গুইদেত্তি একবার ব্যবধান কমালেও আক্রমণের ধার কমেনি রিয়ালের। তাই তো ৭০ ও ৮৮ মিনিটে বেনজেমা ও ক্রোসের করা গোল দুটিতে মোট ৪-১ গোলের জয়ে বার্সার চেয়ে ৩ পয়েন্টের অগ্রগামিতা নিশ্চিত হয় লস ব্ল্যাংকোসদের।

স্প্যানিশ লিগে পয়েন্ট সমান হলে শিরোপা নিষ্পত্তি হয় হেড টু হেডের ভিত্তিতে। তাই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে ২৪ এপ্রিল নিজমাঠে বার্সেলোনার কাছে রিয়ালের হার। যদি শেষ ম্যাচে মালাগার কাছে হেরে যায় রিয়াল আর বার্সেলোনা জিতে যায় এইবারের সঙ্গে, তাহলে শিরোপা জিতবে হেড টু হেডে এগিয়ে থাকা কাতালানরাই। এই অনিশ্চয়তাটুকু আছে বলেই জিদান বলছেন, ‘কোনো কিছুই নিশ্চিত ধরে নিতে পারছি না, এখনো একটি ম্যাচ আছে আর আমাদের সেখান থেকে সামান্য কিছু হলেও পেতে হবে। ’ আর রোনালদো শেষ হাসির অপেক্ষায়, ‘জানি নিজের মাঠে মালাগা ভালো দল, তবে এখন আমাদের শেষ চেষ্টাটা করতে হবে। মনোযোগটা সরানো যাবে না। ’ মার্কা


মন্তব্য