kalerkantho


বড় ম্যাচে অজেয় লিভারপুল

২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বড় ম্যাচে অজেয় লিভারপুল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এরই মধ্যে পাঁচটি ম্যাচ হেরেছে তারা। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, শীর্ষ ছয়ের বাকি যে পাঁচ প্রতিদ্বন্দ্বী, তাদের কাছে অজেয়ই রয়ে গেল লিভারপুল। চেলসি, টটেনহাম হটস্পার, ম্যানচেস্টার সিটি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও আর্সেনালের কেউই কোনো ম্যাচে হারাতে পারেনি তাদের। না নিজেদের মাঠে, না লিভারপুলের অ্যানফিল্ডে। পাঁচ দুগুণে দশ ম্যাচের শেষটি ছিল পরশু, ম্যানসিটির বিপক্ষে। সেখান থেকে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে ফিরেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল।

লিগের এখনো ৯ খেলা বাকি লিভারপুলের। কিন্তু সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে নেই আর কোনো ম্যাচ। সেরা চারে থেকে আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার লড়াইয়ে থাকা যেকোনো কোচের কাছে এটি সুসংবাদ। ক্লপের জন্য তা মোটেও নয়। কারণ প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচ পরাশক্তির সঙ্গে ১০ ম্যাচ থেকে ২০ পয়েন্ট অর্জন ‘অল রেড’দের।

অথচ অন্যান্য দুর্বল দলের বিপক্ষে খেলা বাকি ১৯ ম্যাচে পেয়েছে ৩৬ পয়েন্ট। তাতে ২৯ ম্যাচে সাকুল্যে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার নম্বরে তারা। সেরা দলগুলোর বিপক্ষে সেরাটা বেরিয়ে আসার প্রতিফলন অন্য খেলাগুলোয় থাকলে লিভারপুল নিঃসন্দেহে থাকত চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে। এখনকার মতো সেরা চারের ইঁদুরদৌড়ে নয়।

ম্যানচেস্টার সিটির মৌসুমের লক্ষ্যও এখন ওই শীর্ষ চার। পরশুর ড্রয়ের পর তিনেই রইল তারা; ২৮ খেলায় ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে। একই দিন সাউদাম্পটনকে ২-১ গোলে হারানো টটেনহাম দুই নম্বরে; ২৮ খেলায় ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে। আর মিডলসবরোকে ৩-১ গোলে হারিয়ে অবশেষে ‘ছয়’-এর গেরো ছোটাল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। গত বছরের ৬ নভেম্বর থেকে সর্বশেষ ১৬ রাউন্ড ধরে টেবিলের ছয় নম্বরে ছিল হোসে মরিনহোর দল। পরশুর জয়ে ২৭ খেলায় ৫২ পয়েন্ট নিয়ে উঠে এলো পাঁচে। আগের দিন হেরে যাওয়া আর্সেনাল ২৭ খেলায় ৫০ পয়েন্ট নিয়ে নেমে গেছে ছয়ে।

ইতিহাদের ম্যাচে ম্যানসিটি খেলতে নামে প্রবল হতাশা সঙ্গী করে। দিন কয়েক আগে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে ছিটকে পড়ার হতাশা। ৫১তম মিনিটে জেমস মিলনারের পেনাল্টি থেকে নেওয়া গোলে পিছিয়ে যায় তারা। ৬৯তম মিনিটে সের্হিগো আগুয়েরোর গোলে ফেরায় সমতা। সেভাবেই শেষ হয় ম্যাচ। যদিও জয় ছিনিয়ে নেওয়ার সুযোগ আসে দুই দলের সামনেই। আগুয়েরোই তো হ্যাটট্রিক করতে পারতেন। ওদিকে লিভারপুলের অ্যাডাম লালানাও ফাঁকা পোস্টের সামনে করেন অবিশ্বাস্য এক মিস। এই কাটাকুটিতে ড্র-ই তাই যথার্থ ফল।

সেরা চারের লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীদের হোঁচট খাওয়ার সুযোগটা ভালোভাবে কাজে লাগিয়েছে ম্যানইউ। পরশু মারুয়ান ফেলাইনি, জেসে লিনগার্ড ও আন্তোনিও ভ্যালেন্সিয়ার গোলে ৩-১ গোলে হারায় মিডলসবরোকে। যে জয় ছয় থেকে পাঁচে তুলে দিয়েছে তাদের। বড় ক্যানভাসে ম্যানইউর এ জয় স্পর্শ করেছে এক মাইলফলক। ১৯৯২-৯৩ সাল থেকে শুরু হওয়া প্রিমিয়ার লিগ জমানার প্রথম ক্লাব হিসেবে ৬০০তম ম্যাচ জিতল যে তারা! গত মাসে ওয়াটফোর্ডের

বিপক্ষে ২-০ গোলের জয়ে প্রথম ক্লাব হিসেবে ২০০০ পয়েন্ট অর্জন ‘রেড ডেভিল’দের। এরপর পরশুর অমন আরেক কীর্তি। এখন তাই সেরা চারে থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার লড়াইয়ে থাকলেও ওই মাইলফলকগুলো ম্যানইউর সোনালি অতীতের কথাই মনে করিয়ে দেয়। এএফপি


মন্তব্য