kalerkantho


মাঠে পূজারা বনাম কামিন্স

১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মাঠে পূজারা বনাম কামিন্স

স্টিভেন স্মিথের বীরত্বে কেটেছে প্রথম দুই দিন। পুনে কিংবা বেঙ্গালুরুর বিতর্কের উত্তাপ টের পাওয়া যাচ্ছিল না রাঁচিতে। তৃতীয় দিনে ফিরল সেটা। চেতেশ্বর পূজারার এলবিডাব্লিউ হওয়া-না হওয়া নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারত-অস্ট্রেলিয়ান সমর্থকরা জড়ালেন বিতর্কে। প্রথম দিন বিরাট কোহলি চোট পাওয়ার পর কাঁধে হাত দিয়ে কোঁকাচ্ছিলেন রীতিমতো। গতকাল বাউন্ডারি লাইনে ডাইভ দেওয়ার পর কাঁধে হাত দিয়ে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল কি ‘মজা’ করলেন সেটা নিয়েই? তা ছাড়া কোহলির ক্যাচ নেওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল স্মিথও হাত দিয়েছেন কাঁধে! এসব দেখে ভিভিএস লক্ষ্মণ একহাত নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ানদের।

এমন বিতর্কের দিনে আলো ছড়িয়েছেন চেতেশ্বর পূজারা ও প্যাট কামিন্স। পূজারার অপরাজিত ১৩০ রানের সুবাদে ভারত দিন শেষ করেছে ৬ উইকেটে ৩৬০ রানে। অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে তারা এখনো পিছিয়ে ৯১ রানে। আর ছয় বছর পর টেস্টে ফিরে কামিন্স দিনটা স্মরণীয় করেছেন ৪ উইকেট নিয়ে। যাঁকে ঘিরে এত বিতর্ক সেই কোহলি আছেন ব্যর্থতার বৃত্তেই।

মাত্র ৬ করে আউট হয়েছেন গতকাল। এই সিরিজের পাঁচ ইনিংসে তাঁর রান ৪৬। অথচ অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্মিথ করে ফেলেছেন দুটি সেঞ্চুরি।

পূজারা ২২ রানে থাকার সময় এলবিডাব্লিউর আপিল করেন স্টিভ ও’কিফি। আম্পায়ার নটআউট দিলে রিভিউ নেয় অস্ট্রেলিয়া। টিভি রিপ্লেতে কয়েকবার দেখার পরও নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছিল না বলটা আগে ব্যাটে নাকি প্যাডে লেগেছে। অগত্যা থার্ড আম্পায়ার নাইজেল লং ‘বেনিফিট অব ডাউট’ দেন ব্যাটসম্যানের পক্ষে, তাতে বেঁচে যান পূজারা।

ক্রিকইনফো

অস্ট্রেলিয়া : ৪৫১ (স্মিথ ১৭৮*, ম্যাক্সওয়েল ১০৪, রেনশ ৪৪, ওয়েড ৩৭, ও’কিফি ২৫; জাদেজা ৫/১২৪, যাদব ৩/১০৬)।

ভারত : ১৩০ ওভারে ৩৬০/৬ (পূজারা ১৩০*, বিজয় ৮২, রাহুল ৬৭, নায়ার ২৩, কোহলি ৬; কামিন্স ৪/৫৯, হ্যাজেলউড ১/৬৬)।


মন্তব্য