kalerkantho


শূন্য হাতেই ফিরলেন মরিনহো

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



শূন্য হাতেই ফিরলেন মরিনহো

প্রতিশোধের কথাটি মুখ ফুটে বলেননি। তবে হোসে মরিনহোর মনের গোপন গহিনে অমন কিছু না থেকে পারে না। যে চেলসির সর্বকালের সফলতম কোচ তিনি, সেই ক্লাব থেকে তো গত বছর বরখাস্তই করা হয় তাঁকে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দায়িত্ব নিয়ে চলতি মৌসুমের শুরুতে লিগ ম্যাচ খেলতে একবার যান স্টামফোর্ড ব্রিজে। হেরে আসেন ০-৪ গোলে। এফএ কাপের কোয়ার্টার ফাইনালটি তাই মরিনহোর জন্য মহারণের চেয়েও একটু বেশি। কিন্তু সেখানেও তো ব্যর্থ এই পর্তুগিজ কোচ। তাঁর পুরনো ক্লাব চেলসি এবার ম্যানইউকে হারায় ১-০ গোলে। উঠে যায় সেমিফাইনালে। আন্তনিও কন্তের দলের লিগ জয় একরকম নিশ্চিত। এফএ কাপ জিতে ঘরোয়া দ্বিমুকুটের পথে তাই ভালোভাবেই রয়েছে চেলসি।

লিগে বিধ্বস্ত হওয়ার কারণেই কিনা পরশু ভীষণ রক্ষণাত্মক লাইনআপ সাজান মরিনহো। যাদের খেলায় নেই সৃষ্টিশীলতার ছোঁয়া, প্রতিপক্ষের সৃজনশীলতা নষ্ট করাই যাদের লক্ষ্য। ফাঁকে প্রতি আক্রমণে যদি গোল আদায় করা যায়! কোচের দর্শনের প্রতিফলনে চেলসির বিপক্ষে শুরুটা খারাপ হয়নি। তবে ৩৫তম মিনিটে আন্দের এরেরা দ্বিতীয় হলুদ কার্ডে মার্চিং অর্ডার পেলে খেলা থেকে ছিটকে যায় ম্যানইউ। দ্বিতীয়ার্ধের ষষ্ঠ মিনিটে এনগোলো কান্তের গোলে এগিয়ে যায় চেলসি। ম্যাচে আর কেউ লক্ষ্যভেদ করতে না পারায় সেটিই হয়ে যায় জয়সূচক গোল।

ম্যাচের পর মরিনহোর হতাশাটা অনুমেয়। হতাশ অবশ্য ছিলেন ম্যাচজুড়েও। একদা কুর্ণিশ করত যে চেলসির সমর্থকরা, তারাই যে পরশু দুয়ো দিয়েছে! তিন আঙুল তুলে দর্শকদের জবাব দিতে ছাড়েননি এই পর্তুগিজ। ম্যাচ শেষে দিয়েছেন এর ব্যাখ্যা, ‘আমি চেলসিকে তিনটি প্রিমিয়ার লিগ জিতিয়েছি। যতক্ষণ না অন্য কোনো কোচ চারটি লিগ জেতায়, ততক্ষণ আমিই ১ নম্বর। এই মুহূর্তে জুডাসই ১ নম্বর। ’ দলের হারের জন্য ইউরোপা লিগে খেলার ক্লান্তিকে দায়ী করেছেন তিনি। যদিও দলের সব শিষ্য পেয়েছেন তাঁর প্রশংসা। বিস্ময়করভাবে ডাহা ফ্লপ করা পল পগবাকে ম্যাচসেরা খেলোয়াড়ের স্বীকৃতিও দেন মরিনহো, ‘আমার অন্য খেলোয়াড়রা দুর্দান্ত; কিন্তু পগবা অনেক এগিয়ে থেকে ম্যান অব দ্য ম্যাচ। যারা ওর সমালোচনা করে, সেটি ঈর্ষা থেকে। পলের শতকরা ১০ শতাংশও ওরা কখনো আয় করতে পারবে না। ’

এদিকে পরশু ইতালিয়ান লিগের খেলায় লাসিও ৩-১ গোলে হারায় তোরিনোকে। আর স্প্যানিশ লিগে ওসাসুনা-এইবারের খেলা ড্র হয়েছে ১-১ গোলে। গোল ডটকম


মন্তব্য