kalerkantho


শম্বুক ব্যাটিংয়ে আথারটনকে ছাড়িয়ে এলগার

১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



শম্বুক ব্যাটিংয়ে আথারটনকে ছাড়িয়ে এলগার

টেস্টেও এখন টি-টোয়েন্টির প্রভাব। ওভারপিছু সাড়ে তিন-চার রান নেওয়াটা নিয়মিত ছবিই হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে ডানেডিনে নিউজিল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা খেলছে যেন পুরনো যুগের টেস্ট। চার দিন শেষে দুই দল মিলে রান তুলেছে ওভারপিছু ২.৫৭ রেটে। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে গত ১৯ বছরে এটাই সবচেয়ে ধীরগতির ব্যাটিং প্রদর্শনী। সেই ম্যাচে ৩৪১ ওভারে ৮৬১ রান করেছিল নিউজিল্যান্ড-জিম্বাবুয়ে। এবার ৩৪০.১ ওভারে এই পর্যন্ত দুদল করেছে ৮৭২ রান। প্রতিরোধ গড়া ডিন এলগার একাই খেলেছেন ৫৪৮ বল, যা নিউজিল্যান্ডের মাটিতে কোনো সফরকারী ব্যাটসম্যানের সবচেয়ে বেশি বল খেলার কীর্তি। এই টেস্টের প্রথম ইনিংসেই দীর্ঘদিন পর নিউজিল্যান্ডে কোনো সফরকারী ওপেনারের সেঞ্চুরি না পাওয়ার খরা কাটিয়েছিলেন এলগার।

১৮ ওভারে ১ উইকেটে ৩৮ রানে তৃতীয় দিন শেষ করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। গতকাল চতুর্থ দিন শেষে সফরকারীরা করেছে ১০২ ওভারে ৬ উইকেটে ২২৪।

রান তোলার রেট ওভারপিছু ২.১৯। নিউজিল্যান্ডের চেয়ে ফাফ দু প্লেসিসের দল এগিয়ে ১৯১ রানে, হাতে এখনো ৪ উইকেট। গত ১০ বছরে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড ২১৭। আজ শেষ দিন প্রোটিয়াদের দ্রুত অলআউট করতে পারলে জয়ের স্বপ্ন দেখতেই পারে কিউইরা। তারা অবশ্য গতকালই ক্যাচ ফেলেছে চারটি। চোট নিয়ে ট্রেন্ট বোল্টের মাঠ ছাড়াটাও উদ্বেগের কিউইদের জন্য।

১৯৯৬-৯৭ মৌসুমে ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ৫৪৬ বল খেলেছিলেন মাইক আথারটন। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সফরকারী ব্যাটসম্যানদের সবচেয়ে বেশি বল খেলার কীর্তি ছিল সেটাই। ডানেডিনে দুই বল বেশি খেলে আথারটনকে ছাড়িয়ে গেলেন ডিন এলগার। প্রথম ইনিংসে ২৯৯ বলে এই ওপেনার করেছিলেন ১৪০। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৪৯ বলে ৯ বাউন্ডারিতে করলেন ৮৯। সেঞ্চুরির পথে থাকা এলগার ফেরেন জিতেন প্যাটেলের বলে কেন উইলিয়ামসনের হাতে ধরা পড়ে। একটা সময় ৩ উইকেটে প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ছিল ১৯৩ রান। এলগার ফেরার পর ২১৮ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে দিন শেষ করে তারা। ক্রিকইনফো


মন্তব্য