kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

বাংলাদেশ আজ ঘুরে দাঁড়াবে

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বাংলাদেশ আজ ঘুরে দাঁড়াবে

ওয়ার্ল্ড হকি লিগ রাউন্ড টু-তে বাংলাদেশের সামনে আজ শক্তিশালী মিসর। তাদের হারাতে পারলেই কেবল সুযোগ মিলবে সেমিফাইনালে খেলার। গ্রুপের শেষ ম্যাচে ওমানের কাছে হেরে হতাশ করেছেন রাসেল মাহমুদরা। আজ মিসরের বিপক্ষে তারা কি জ্বলে উঠতে পারবেন। এই প্রসঙ্গেই কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে কথা বলেছেন সাবেক হকি তারকা ও কোচ মামুন-উর রশিদ

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : ওমানের কাছে হতাশাজনক হারের পর আজ মিসরের বিপক্ষে কি ঘুরে দাঁড়াতে পারবে বাংলাদেশ?

 

মামুন-উর রশিদ : আমার কেন জানি মনে হয় পারবে। কারণ দলটা ভালো কিন্তু এখনো পর্যন্ত তারা তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারেনি। মিসরের বিপক্ষে আজ যেহেতু একরকম বাঁচা-মরার ম্যাচ— সেখানে নিশ্চয় তারা মরিয়া হয়ে মাঠে নামবে। এরকম পরিস্থিতিতে ভালো খেলাটা বেরিয়েও আসে।

 

প্রশ্ন : কিন্তু দল হিসেবে মিসর তো শক্তিশালী।

মামুন : শক্তিশালী এই অর্থে যে তারা র্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে। ওরা ২০, আমরা ৩২।

কিন্তু খেলোয়াড়দের মান বিচারে বা পারফরম্যান্স অনুযায়ী তারা আমাদের চেয়ে খুব এগিয়ে নয়, পার্থক্যটা বরং ১৯-২০ হতে পারে। একটা ভালো দিনে এই ব্যবধান ঘুচিয়ে দেওয়া সম্ভব।

প্রশ্ন : গত ম্যাচগুলোতে বাংলাদেশের ঘাটতি কী ছিল বলে আপনার মনে হয়?

মামুন : স্কোরিংয়েই মূল সমস্যা। আমরা ভালো খেলছি কিন্তু গোল করতে পারছি না। ওমানের বিপক্ষেই তো গোলে আমাদের স্ট্রোক বেশি, অ্যাটেম্পট বেশি, পেনাল্টি কর্নার বেশি। শুধু গোলটাই আমরা সেভাবে পাচ্ছি না।

প্রশ্ন : এর কারণ কী বলে মনে হয়?

মামুন : সত্যি বলতে আমিও বুঝতে পারছি না। প্রায় দুই মাস ওরা ক্যাম্প করেছে, তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে। স্ট্রাইকারদের এককথায় দায় দিয়ে দেওয়া যেত, কিন্তু আমরা তো পেনাল্টি কর্নারের সুযোগও নষ্ট করছি। যেটা আমাদের শক্তির জায়গা। গত ম্যাচগুলোতে আমরা যতগুলো পিসি পেয়েছি তাতে আরো অনেক গোল পাওয়ার কথা আমাদের।

প্রশ্ন : শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে দলের পরীক্ষিত দুজন স্ট্রাইকার পুস্কর ক্ষিসা মিমো ও হাসান জুবায়ের নিলয় দলে নেই, তাদের অভাব কি বোধ হচ্ছে না?

মামুন : হ্যাঁ, আমারও তাই মনে হচ্ছে। মিমো, নিলয় আমাদের পরীক্ষিত দুজন ফরোয়ার্ড। নিলয় মিডফিল্ডেও খেলতে পারে, ফরোয়ার্ডে মিমো কী করতে পারে তা সবাই জানি। জিমির সঙ্গে এই দুজনের সমন্বয়ও দারুণ। জাতীয় দলের আগের ম্যাচগুলোতে সেটি আমরা দেখেছি।

প্রশ্ন : ওদের বাদ পড়াটাকে আপনি কিভাবে নিয়েছিলেন?

মামুন : তাতে স্বচ্ছতার অভাব ছিল, এটা আমি বলব। ওদের আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়নি। আর ওদের অপরাধও এমন কিছু ছিল না যাতে এমন বড় একটা আসরে ওদের বাইরে রাখতে হবে।


মন্তব্য