kalerkantho


মিসরের বিপক্ষে সেমিতে ওঠার লড়াই

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মিসরের বিপক্ষে সেমিতে ওঠার লড়াই

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওয়ার্ল্ড হকি লিগের রাউন্ড টু-তে ঘরের মাঠেও জ্বলে উঠতে পারছে না বাংলাদেশ। গ্রুপের প্রথম ম্যাচে মালয়েশিয়ার কাছে ৩ গোল হজম করেও খুশি কোচ অলিভার কার্টজ। পরের ম্যাচে দুর্বল ফিজির বিপক্ষেও জিততে হলো ঘাম ঝরিয়ে। অনেক প্রত্যাশার শেষ ম্যাচে ওমানের কাছে তো হেরেই গেল রাসেল মাহমুদের দল। আজ শক্তিশালী মিসরের বিপক্ষে তাদের সেমিফাইনালে ওঠার লড়াই। আশাবাদী হওয়ার মতো কোনো রসদই নেই স্বাগতিকদের।

সাবেক খেলোয়াড় মামুনুর রশিদ তবু ইতিবাচক, ‘দেয়ালে এমন পিঠ ঠেকে যাওয়া অবস্থাতেই অনেক সময় সেরা খেলাটা বেরিয়ে আসে। ’ মিসর র্যাংকিংয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে থাকলেও মাঠের পারফরম্যান্স এবং খেলোয়াড়দের মান বিচারে তাদের অতটা এগিয়ে রাখতে রাজি নন খেলা ছেড়ে কোচিংয়ে মন দেওয়া মামুন। বাংলাদেশ ওয়ার্ল্ড হকি লিগের রাউন্ড টু’তেই এর আগে দিল্লিতে র্যাংকিংয়ে এগিয়ে থাকা চীনকে হারিয়েছে। সেটিও রাসেলদের আজ নতুনভাবে মাঠে নামার জন্য প্রেরণা হতে পারে। তবে দলের জন্য শঙ্কার কারণ হলো, অধিনায়ক রাসেলই আজ পুরোপুরি ফিট নন।

ওমানের বিপক্ষে ম্যাচে পায়ে বুড়ো আঙুলে চোট পেয়েছিলেন। কাল মাঠে নামতে হলেও তাঁকে ইনজেকশন নিতে হবে। দলটা রাসেলকে কেন্দ্র করেই খেলে। একাধারে তিনি মিডফিল্ডার ও স্ট্রাইকার। এমন একজন পারফরমারের কাছ থেকে আজ ‘বাঁচা-মরা’র লড়াইয়ে সেরা খেলাটা না পাওয়া গেলে, সেটি বাংলাদেশ দলের জন্য দুর্ভাগ্যই হবে। গত ম্যাচে গোলবারের নিচে থাকা অসীম গোপ আজকের ম্যাচে খেলতেই পারবেন না, এটা চূড়ান্ত। ওমান ম্যাচেই ইনজুরড হয়ে টুর্নামেন্টই শেষ হয়ে গেছে তাঁর। তাই আজ পোস্টের নিচে জাহিদ হোসেনই ভরসা।

জার্মান কোচ অলিভার কার্টজের সহকারী হিসেবে দলে কাজ করা মাহবুব হারুন এমন ম্যাচে খেলোয়াড়দের কাছ থেকে শতভাগের বেশি চাইছেন, ‘মিসরের বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতবে এ কথা আমি জোর দিয়ে বলতে পারব না। খেলোয়াড়রা যদি শতভাগের বেশি উজাড় করে দিয়ে মাঠে পারফর্ম করতে পারে, তাহলেই সম্ভব জয় পাওয়া। আর হকিতে এরকমটা হয়। ’ গ্রুপ পর্বে মিসর ঘানার সঙ্গে টাইব্রেকারে জিতেছে। প্রস্তুতি ম্যাচে সেই ঘানার বিপক্ষে বাংলাদেশের একটা হার, একটা ড্র ও একটা জয়। সে হিসাবে মিসরকেও ধরাছোঁয়ার বাইরে মনে হচ্ছে না তাঁর। দলটিকে নিয়ে হারুনের মূল্যায়ন, ‘মিসর ভালো দল। ওদের খেলোয়াড়রা স্কিলফুল। তবে আক্রমণে ততটা শক্তিশালী নয়। ’ সেই হিসাবে নিজেদের পোস্ট আগলে বাংলাদেশই বরং আক্রমণে মনোযোগী হতে পারবে বেশি। পেনাল্টি কর্নার দলের শক্তি, কিন্তু আগের ম্যাচগুলোতে মামুনুর, আশরাফুলরা জ্বলে উঠতে পারেননি। দিনটা আজ তাঁদের হলেও হতে পারে।


মন্তব্য