kalerkantho


শিরোপার সুবাস পাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



শিরোপার সুবাস পাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ম্যাচের প্রথম দিনই হার না মানা সেঞ্চুরি করেছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন ও তুষার ইমরান। পরদিন অবশ্য তুষারই কেবল সেটিকে ডাবলে রূপ দিতে পেরেছিলেন।

তাঁর পথ ধরে তৃতীয় দিনে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি করলেন শাহরিয়ার নাফীসও। ১৭০ রান নিয়ে দিন শুরু করে খেলেছেন অপরাজিত ২০৭ রানের ইনিংস। তাতে বাংলাদেশের ঘরোয়া ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৮ উইকেটে ৭৪৯ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করা প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চল অবশ্য বোলিংয়ে প্রত্যাশিত সাফল্য পায়নি। বিকেএসপিতে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল ৩ উইকেটে ১৮৪ রান তুলে তৃতীয় দিন শেষ করায় ম্যাচটির সবচেয়ে সম্ভাব্য ফল ড্র।

আর ফতুল্লায় এরই মধ্যে ৩৯৭ রানে এগিয়ে থাকা বিসিবি উত্তরাঞ্চলের বিপক্ষে আজ শেষ দিনে অলৌকিক কিছু না ঘটলে জেতা অসম্ভব ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের। না হারলেও তাঁদের পক্ষে বড়জোর ড্র করা সম্ভব। তা করলেও সমস্যা নেই উত্তরাঞ্চলের, ড্র করলেই বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) এ আসরের চ্যাম্পিয়ন তারা।

সেঞ্চুরির কাছাকাছি থাকা নাজমুল হোসেন শান্ত (৯১*) ও নাসির হোসেনের (৬৩) ফিফটিতে ৬ উইকেটে ২৩৯ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শেষ করেছে উত্তরাঞ্চল (প্রথম ইনিংস ৩৭৪)। তাঁদের পেসার শফিউল ইসলাম পূর্বাঞ্চলের প্রথম ইনিংস ২১৬ রানে শেষ করে দেওয়ার পথে গতকাল ৭০ রানে নিয়েছেন ৬ উইকেট।

উত্তরাঞ্চলের ব্যাটসম্যান জুনায়েদ সিদ্দীক দ্বিতীয় ইনিংসে ৪০ রানে আউট হয়ে গেলেও তুষারের পর চলতি মৌসুমের দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে পেরিয়েছেন এক হাজার রানের মাইলফলক। ওদিকে নাফীসের ডাবলের পর ইনিংস ঘোষণায় আর বিলম্ব করেনি দক্ষিণাঞ্চল। ২০১৫ সালে জাতীয় লিগের ম্যাচে খুলনার বিপক্ষে বরিশালের হয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন নাফীস, সেই ইনিংসটি ছিল ২১৯ রানের।


মন্তব্য