kalerkantho


দুর্দান্ত মেসি অপ্রতিরোধ্য বার্সা

৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



দুর্দান্ত মেসি অপ্রতিরোধ্য বার্সা

ফিসফাসটা অনেক দিন ধরেই ছিল। কিন্তু মৌসুমের এমন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তা যে ঘোষণার আকারে স্বয়ং লুইস এনরিকের মুখ থেকে বেরিয়ে আসবে—ধারণা করা যায়নি।

আগামী মৌসুমে বার্সেলোনার কোচ না থাকার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছেন। তাই দেখার ছিল এরপর মাঠের পারফরম্যান্সে কেমন প্রতিক্রিয়া হয় শিষ্যদের। লিওনেল মেসির নেতৃত্বে পরশু তা দেখিয়ে দিল বার্সেলোনা। মৌসুমের অন্যতম সেরা ম্যাচ খেলে; সেল্তা ভিগোকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে।

এনরিকের ঘোষণার পর পরশুই ছিল বার্সার প্রথম ম্যাচ। জটিলতা বাড়িয়ে দিতে আগে হয়ে যাওয়া নিজেদের ম্যাচে আয়েশি জয় পায় রিয়াল মাদ্রিদ। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল, আলভারো মোরাতা না থাকা সত্ত্বেও এইবারের মাঠ থেকে ৪-১ গোলের জয় নিয়ে ফেরে তারা। তাতে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করে রিয়াল। পরে নিজেদের ম্যাচে জিতে বার্সেলোনা আবারও এক নম্বরে।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের চেয়ে ১ পয়েন্টে এগিয়ে গেছে তারা; যদিও ম্যাচ খেলেছে একটি বেশি।

সেল্তার বিপক্ষে খেলায় বার্সার জয়ের নায়ক যথারীতি মেসি। চোখ ধাঁধানো দুটি গোল করেছেন নিজে, তাঁর অসাধারণ দুটি পাস থেকে আরো দুটি। রইল বাকি যে ইভান রাকিটিচের গোল, এর বিল্ডআপেও আর্জেন্টাইন জাদুকরের পাসে খুলে যায় সেল্তার রক্ষণ। মেসির সঙ্গে বছরে ৩৫ মিলিয়ন ইউরো বেতনের নতুন চুক্তি করতে চায় বার্সা—এই সংবাদে অর্থের অঙ্ককে তাই অতিরঞ্জিত মনে হয় না। বিশেষত পরশুর অমন অবিশ্বাস্য অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের পর।

পরশু প্রথম গোলের দেখা পেতে অবশ্য মিনিট পঁচিশেক সময় লেগেছে বার্সার। তবে সেটি চমক হয়ে আসেনি মোটেও। রেফারির বাঁশি থেকেই নু ক্যাম্পে শুরু স্বাগতিকদের দাপট। সুয়ারেস-মেসির শট তো প্রতিহত হয় পোস্টেও। অবশেষে মাঝমাঠের কাছাকাছি বল পেয়ে জাদুকরী এক দৌড়ে সেল্তা রক্ষণ চিরে গোল পান আর্জেন্টাইন। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার মিনিট পাঁচেক আগে তাঁর পাসে অসাধারণ চিপে গোল নেইমারের। দ্বিতীয়ার্ধেও কমেনি বার্সার আধিপত্য। ৫৭ থেকে ৬৪—এই সাত মিনিটের মধ্যে তিন গোল করে তারা। শুরুতে রাকিটিচের গোল, মাঝে মেসির পাস কাজে লাগিয়ে বার্সার জার্সিতে স্যামুয়েল উমতিতির প্রথম গোল আর শেষে ডান প্রান্ত থেকে আরেক অসাধারণ দৌড়ের পর মেসির লক্ষ্যভেদ। ৫-০ ব্যবধানের স্বচ্ছন্দ জয় তাতে। চ্যাম্পিয়নস লিগে প্যারিস সেন্ত জার্মেইর মুখোমুখি হওয়ার আগে একেবারে আদর্শ প্রস্তুতি!

এদিকে ইতালিয়ান লিগের বড় ম্যাচে পরশু ড্রিস মের্টেনসের জোড়া গোলে নাপোলি ২-১ ব্যবধানে হারায় রোমাকে। আর কার্লোস বাক্কার দুই গোলে শিয়েভোভেরোনার বিপক্ষে এসি মিলানের জয় ৩-১ ব্যবধানে। জার্মান বুন্দেসলিগার শীর্ষে আরো ভালোভাবে জাঁকিয়ে বসেছে বায়ার্ন মিউনিখ। পরশু ৩-০ গোলে তারা হারায় কোলনকে। তাতে দ্বিতীয় স্থানে থাকা আরবি লিপজিগের চেয়ে এগিয়ে যায় ৭ পয়েন্টে। নিজেদের ম্যাচে লিপজিগ ২-২ গোলে ড্র করেছে অগসবুর্গের সঙ্গে। আরেক ম্যাচে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ৬-২ গোলের বিস্ফোরক জয় পায় বায়ের লেভারকুসেনের বিপক্ষে। ফ্রেঞ্চ লিগে এদিনসন কাভানির পেনাল্টিতে প্যারিস সেন্ত জার্মেই ১-০ গোলে হারায় ন্যান্সিকে। এএফপি


মন্তব্য