kalerkantho


শিরোপা টিসি স্পোর্টসের

৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



শিরোপা টিসি স্পোর্টসের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : এরকম ফাইনালই যেন দেখতে চায় সবাই। মাঠের পারফরম্যান্সে দুই দলই সমানে সমান লড়ছে।

তাই অতিরিক্ত সময়ও পারেনি ২-২ গোলের সমতা ভেঙে কোনো দলকে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসাতে। শেষমেশ নিম্বু কিরণ কুমারের আলোতেই আলোকিত হলো শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের ফাইনালটি। এই গোলরক্ষকের কৃতিত্বে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে পোচেন সিটিজেন এফসিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে টিসি স্পোর্টস ক্লাব।     

সাত মিনিটে হানিফ আবদুল্লাহর ফরোয়ার্ড পাস ধরে ইব্রাহিম মাহমুদি হুসেনের ডান পায়ের দুর্দান্ত এক ভলি পোস্ট ঘেঁষে চলে যায় বাইরে। মিনিট দশেক বাদেই হাসান নাইমের কর্নারে হানিফ আবদুল্লাহ দুর্দান্ত হেডে গোল করেন। এরপর পোচেন সিটিজেন এফসি ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে চাপে ফেলে প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্তে ম্যাচে ফেরে। জং ইয়ং ইকের হেডে কোরিয়ানরা ম্যাচে ফেরার আগে কিন্তু টিসি স্পোর্টস ব্যবধান বড় করার দুর্দান্ত সুযোগ পেয়েছিল। কাউন্টার অ্যাটাকে ৩২ মিনিটে ইব্রাহিম খালি ডিফেন্স পাড়ি দিয়ে গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে ঠেলতে পারেননি। সেটা পারলে ম্যাচটা তখনই মালদ্বীপের ক্লাবের নিয়ন্ত্রণে চলে যায়।

পারেনি বলে দ্বিতীয়ার্ধ হয়ে ওঠে আরো আকর্ষণীয়। এবার লিড নেয় পোচেন যদিও সেটা আত্মঘাতী গোল। ৫৫ মিনিটে ডিউকের কর্নারে মালদ্বীপের ফারাহ আহমেদ হেডে ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজের পোস্টে জমা করে দিয়েছেন। সময় ফুরানোর সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছিল টিসি স্পোর্টসের আক্রমণের ঝাঁজও। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত সময়ের মিনিট সাতেক আগে ম্যাচে ফেরে। ফ্রি-কিকটি এক কোরিয়া ডিফেন্ডার ক্লিয়ার করলেও তাঁর ওপর আজম মাহমুদের ডান পায়ের বুলেট গতির শট টিসি স্পোর্টসকে ম্যাচে ফেরায়। এই সমতাসূচক গোলটিই ম্যাচের ভাগ্য নিয়ে যায় অতিরিক্ত সময়ে। ৩০ মিনিটের অতিরিক্ত সময়ে চ্যাম্পিয়নশিপ নিষ্পত্তি না হলে খেলা টাইব্রেকারে গড়ায়।

টাইব্রেকার হলো গোলরক্ষকের নায়ক হয়ে ওঠার বড় সুযোগ আর ফরোয়ার্ডদের খলনায়ক হওয়া শঙ্কা। হয়েছেও তা-ই। টুর্নামেন্টের শুরু থেকে টিসি স্পোর্টসের পোস্টের নিচে কিরণ ছড়ানো নিম্বু কিরণ কুমার দু-দুটি শট ঠেকিয়ে ফাইনালের নায়ক হয়ে গেছেন। শুরুতে নেপাল জাতীয় দলের এই গোলরক্ষক পোচেনের অধিনায়কের চো থাইয়ের শট রুখে দিয়ে শুরু করেন। এরপর চতুর্থ শটটিও পায়ে আটকে দিয়ে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে পোচেন সিটিজেন এফসিকে হারিয়ে শিরোপা তুলে দিয়েছেন টিসি স্পোর্টসকে।


মন্তব্য