kalerkantho


নিরাপত্তাই গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু

জয় দিয়ে প্রস্তুতি শেষ হকি দলের

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঘানার বিপক্ষে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে জয়ের মুখ দেখেছে বাংলাদেশ। এই আফ্রিকান দলের বিপক্ষে ২-০ গোলে হার দিয়ে শুরু হয়েছিল স্বাগতিকদের প্রস্তুতি।

এরপর ২-২ গোলে ড্রয়ের পর কাল জিতেছে ১-০ গোলে। প্রথমার্ধে মামুনুর রহমানের পেনাল্টি কর্নারে এগিয়ে গিয়ে শেষ পর্যন্ত আক্রমণাত্মক হকি খেলে গেছে বাংলাদেশ দল।

আগামী ৪ মার্চ থেকে ঢাকায় শুরু ওয়ার্ল্ড হকি লিগের দ্বিতীয় পর্বের আগে আগে স্বাগতিকদের ফর্মে ফেরাটা ইতিবাচক। এই ম্যাচের আগে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের সাংবাদ সম্মেলনে কোচ অলিভার কার্টজ বলেছেন, ‘প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে আমি বিভিন্ন কৌশলে খেলানোর চেষ্টা করেছি, তাতে খেলোয়াড়রা হয়তো একটু বিভ্রান্ত হয়েছিল। ’ শেষ ম্যাচে যদিও তাদের সুস্পষ্ট আধিপত্য ছিল। চার গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়—রাসেল মাহমুদ, আশরাফুল ইসলাম, রোমান সরকার ও গোলরক্ষক জাহিদকে বিশ্রামে দেওয়ার পরও স্বাগতিকরা আগাগোড়া নিয়ন্ত্রণ করে খেলেছে। টুর্নামেন্ট নিয়ে বাংলাদেশের এই জার্মান কোচের পরিকল্পনা হলো, ‘আমরা ধাপে ধাপে এগোতে চাই। প্রথম টার্গেট গ্রুপে রানার্স-আপ হওয়া, এরপর কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনাল উতরানো। ’ আট দলের ওয়ার্ল্ড হকি লিগের এ টুর্নামেন্টে ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গে আছে, মালয়েশিয়া, ফিজি ও ওমান।

মালয়েশিয়াকে টপকে এই গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হওয়াও কঠিন। ‘বি’ গ্রুপে আছে চীন, মিসর, ঘানা ও শ্রীলঙ্কা।

দলের প্রস্তুতির চেয়ে জোরোশোরে চলছে হকি ফেডারেশনের টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তুতি। হকি ফেডারেশনের সহসভাপতি খাজা রহমত উল্লাহর কাছে নিরাপত্তাই গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু, ‘প্রথমে জাপান টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এরপর কানাডা আসবে না বলে দিয়েছে। তাই আমরা চেষ্টা করছি দলগুলো সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিতে। ’ সংবাদ সম্মেলনে তাঁর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মালয়েশিয়া ও ওমান এরই মধ্যে ঢাকায় চলে এসেছে। বাকি দলগুলো আগামীকাল পৌঁছাবে। টুর্নামেন্টের সাতটি গ্রুপ ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করবে এটিএন বাংলা।


মন্তব্য