kalerkantho


টিসি স্পোর্টসকে থামাতে চায় মানাং

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



টিসি স্পোর্টসকে থামাতে চায় মানাং

ক্রীড়া প্রতিবেদক : এই অঞ্চলের সর্বশেষ দুটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপা ঘরে তুলেছে নেপালিরা। গত এসএ গেমসে ভারতের মাটিতে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জেতে নেপাল অনূর্ধ্ব-২৩।

তার আগে বাংলাদেশ থেকেই বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের শিরোপা নিয়ে ফিরেছে তারা বাহরাইনকে হারিয়ে। সে দেশের লিগ চ্যাম্পিয়ন মানাং মার্সিয়াংদি এবারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপেও যে ফেভারিট, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে মাঠের পারফরম্যান্সে এখনো পর্যন্ত সেরা দল মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস। চট্টগ্রামে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে আজ ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছে এ দুটি দল।

টিসি কোচ মোহাম্মদ নাজিমের কাছে করণীয়টা পরিষ্কার, ‘আমরা যথাসাধ্য আমাদের প্রস্তুতি সেরে নিয়েছি। মাঠে নিজেদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখাটাই এখন আমাদের মূল কাজ। ’ ‘ডেথ গ্রুপ’ থেকে দলটি শুধু গ্রুপ সেরা নয়, টুর্নামেন্টের আট দলের মধ্যে সর্বোচ্চ ৭ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে। বাংলাদেশ লিগ চ্যাম্পিয়ন আবাহনী ও কিরগিজস্তানের এফসি আলগাকে প্রথম দুই ম্যাচে হারিয়েই তারা সবার আগে শেষ চার নিশ্চিত করে ফেলে। আজ ‘বি’ গ্রুপ থেকে মাত্র ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্স-আপ হিসেবে সেমিফাইনালে ওঠা মানাংয়ের বিপক্ষে মোহাম্মদ নাজিমের দলকে তাই এগিয়ে রাখতে হয়।

তবে মানাং কোচ আজকের সেমিফাইনালটিকেই নিয়েছেন ফাইনাল হিসেবে, মরণ কামড় দিতে তারা প্রস্তুত, ‘টিসি স্পোর্টস গ্রুপ লিডার হয়ে সেমিফাইনালে এসেছে। কিন্তু আমরাও খারাপ করিনি। ওদের বিপক্ষে আমাদের কালকের (আজ) ম্যাচটি ফাইনালের মতো। খেলোয়াড়রা নিজেদের উজাড় করে দিতে তৈরি। ’ মানাং অধিনায়ক, নেপাল জাতীয় দলের খেলোয়াড় অনীল গুরংও একটি উপভোগ্য ম্যাচের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

অনীলসহ নেপাল জাতীয় দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় থাকলেও মানাংয়ের মূল পারফরমার জাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড আফিজ ওলাদিপো। তাঁর ব্যক্তিগত কারিশমাই যথেষ্ট ম্যাচ ঘুরিয়ে দিতে। কিন্তু সংশয় আছে নেপালিদের ডিফেন্স নিয়ে। টুর্নামেন্টে ৫ গোলের বিপরীতে ৫ গোল হজমও করেছে তারা। সেদিক দিয়ে টিসি স্পোর্টস আদর্শ। আগে ডিফেন্সটা সুরক্ষিত করে তারা, এরপর বল পেলেই খুব দ্রুত অ্যাটাকিং থার্ডে পৌঁছে যাওয়ার চেষ্টা করে। সন্দেহ নেই আজও একই ধাঁচে খেলবে তারা। মানাং কোচ ডিফেন্স আঁটোসাঁটো করে কাউন্টার অ্যাটাকে যাবেন নাকি অলআউট খেলবেন, কাল সংবাদ সম্মেলনে তা অবশ্য বলতে রাজি হলেন না। তবে শারীরিক সক্ষমতায় মালদ্বীপের খেলোয়াড়দের এগিয়ে রেখেছেন তিনি। লড়াইয়ের জন্য নিজের দলের খেলোয়াড়দের প্রতি বাড়তি পরিশ্রম করার তাগিদ তাঁর কণ্ঠে।


মন্তব্য