kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

আমার কাছে মিরাজ ব্যাটিং অলরাউন্ডার

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



আমার কাছে মিরাজ ব্যাটিং অলরাউন্ডার

এবারের বাংলাদেশ দলে নেই তিনি, তবে ২০১৩ সালে সর্বশেষ শ্রীলঙ্কা সফরে ছিলেন সোহাগ গাজী। নিজের এবং দলের পারফরম্যান্সও মন্দ ছিল না। এবার জাতীয় দলের কাছ থেকে আরো ভালো কিছুর প্রত্যাশা তাঁর। যেমনটা উত্তরসূরি অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজের কাছেও। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে অমনটাই জানালেন ওই অলরাউন্ডার

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : সর্বশেষ সফরের দলের সঙ্গে এবারের দলটির পার্থক্য কতটা?

সোহাগ গাজী : শক্তিতে এবার বাংলাদেশ একটু হলেও এগিয়ে। কারণ মুশফিক, সাকিব, তামিমের মতো বেশ কিছু অভিজ্ঞ খেলোয়াড় রয়েছে দলে। বেশ কয়েকবার শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ায় ওই দেশের উইকেট-কন্ডিশন সম্পর্কেও ওদের ভালো ধারণা রয়েছে। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কায় কিন্তু এবার সাঙ্গাকারা, জয়াবর্ধনে, দিলশানরা নেই। অভিজ্ঞতায় বাংলাদেশ এগিয়ে বলে দলের কাছ থেকে ভালো কিছু আশা করছি।

প্রশ্ন : কতটা ভালো?

সোহাগ : ভালো বলতে কেবল ভালো খেলা নয়; আমি জয়ের কথাই বলছি।

প্রশ্ন : নিউজিল্যান্ড, ভারতের সর্বশেষ দুই সফরে জয় না পাওয়ায় দলের আত্মবিশ্বাসে ঘাটতি থাকবে না?

সোহাগ : আমি জাতীয় দলে খেলার সময় একটি কথা বারবার শুনেছি।

বিশেষত খারাপ সময়ে। তখন কোচ, অধিনায়ক, সিনিয়র ক্রিকেটার সবাই বলতেন যে, আমাদের একটি জয় খুব করে প্রয়োজন। আমি তাই বিশ্বাস করি, শ্রীলঙ্কায় গিয়ে একটি ম্যাচ জিতলে পুরো দলের আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে। চনমনে হয়ে উঠবে সবাই। নিউজিল্যান্ড-ভারতে দল কিন্তু খুব খারাপ খেলেনি। কেবল ওই জয়টাই পায়নি। শ্রীলঙ্কায় শুরুর দিকে জয় পেলে দেখবেন পুরো সফরেই ভালো করব।

প্রশ্ন : ওই ভালো করায় স্কিলের পাশাপাশি দৃঢ় মানসিকতার প্রয়োজন কতটা?

সোহাগ : অবশ্যই প্রয়োজন আছে। ২০১৩ সালের গল টেস্টে ওরা আগে ব্যাটিং করে পাঁচ শর ওপরে (৫৭০/৪ ডিক্লে.) রান করে। আমরা কিন্তু তবু ভড়কে যাইনি। করি ছয় শর ওপর রান (৬৩৮)। মুশফিক ডাবল সেঞ্চুরি, আশরাফুল দেড় শ, নাসির এক শ রান করে। আর মাঝের কয়েক বছরে তো বাংলাদেশ আরো বেশি পরিণত হয়েছে। অনেক অনেক ম্যাচ জিতেছে। সে কারণে ওদের মানসিক দৃঢ়তাও অনেক বেশি। নিউজিল্যান্ড, ভারতে হারলেও তাই দল খুব মানসিক চাপে থাকবে বলে আমার মনে হয় না।

প্রশ্ন : শেষ প্রশ্ন অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে। ওর কাছে শ্রীলঙ্কা সফরে আপনার প্রত্যাশা কী?

সোহাগ : আমার কাছে মিরাজ ব্যাটিং অলরাউন্ডার। ও প্রথমে ব্যাটসম্যান, পরে অফস্পিনার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওর শুরুটা হয়ে গেছে উল্টো। বোলিংয়ে খুব সাফল্য পেয়েছে, ব্যাটিংয়ে তেমন নয়। দল যদি ওকে আত্মবিশ্বাস দিতে পারে, তাহলে মিরাজের অবশ্যই বড় রান করার সামর্থ্য আছে। আর বোলিংয়ের সামর্থ্য তো সবাই এরই মধ্যে দেখেছে। শ্রীলঙ্কায়ও নিশ্চয়ই ভালো করবে। একটা টিপস শুধু দেব, ও যেন টেস্টে আরো অনেক ধৈর্য নিয়ে বোলিং করে।


মন্তব্য