kalerkantho


শেখ কামাল ক্লাব কাপ আজ শুরু

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



শেখ কামাল ক্লাব কাপ আজ শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঐতিহ্যে আবাহনীর ধারে-কাছে নেই মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস। ২০১৪ সালে দ্বিতীয় বিভাগ থেকে প্রিমিয়ারে উঠেছে তারা।

ঐতিহ্য অবশ্য মালদ্বীপ জাতীয় দলেরও ছিল না। তারা এখন বাংলাদেশকে ৫ গোলে হারায়। টিসি স্পোর্টসের প্রিমিয়ারের গল্পটাও সেরকম। প্রথম আসরেই তারা রানার্স-আপ, এবারও শেখ কামাল ক্লাব কাপে খেলতে এসেছে দলটি মালদ্বীপের দ্বিতীয় সেরা হিসেবে। বাংলাদেশ লিগের সেরা আবাহনীর মুখোমুখি তারা প্রথম ম্যাচেই।

আবাহনীর শেখ কামাল ক্লাব কাপের প্রথম অভিযান সুখকর হয়নি। ইস্ট বেঙ্গলের পর চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছেও হেরে তারা গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়। এবারও একই রকম কঠিন গ্রুপে তারা। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ছাড়াও গ্রুপের শীর্ষ দুইয়ে থেকে সেমিফাইনালে যাওয়ার জন্য কিরগিজস্তানের এফসি আলগা অথবা কোরিয়ান পোচেয়ন সিটিজেন এফসিকে পেছনে ফেলতে হবে তাদের।

এমন আসরে মৌসুমের সেরা পারফরমার লি টাক নেই, সানডে চিজোবা আছেন তবে আজকের ম্যাচে তাঁর খেলা হচ্ছে না। ফেডারেশন কাপ ও লিগ চ্যাম্পিয়নদের খোলনলচে বদলে গেছে একরকম। কোচ জর্জ কোটানের জায়গায় ডাগআউটে থাকবেন দ্রাগো মামিচ। দায়িত্ব নিয়ে খেলোয়াড়দের একসঙ্গে পেয়েছেন তিনি কম সময়ই। জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ছিলেন বিকেএসপিতে, ছুটিতে ছিলেন বিদেশিরা। কিন্তু তাতেও আবাহনীর প্রত্যাশায় একটু কমতি আনার সুযোগ নেই। একে তো ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা শেখ কামালের নামে এই টুর্নামেন্ট, তার ওপর সারা দেশে তাদের ছড়িয়ে থাকা সমর্থকদের চাপ। কোচ মামিচ সেই বাস্তবতাটা যেন জানেন, ‘এমন একটা টুর্নামেন্টে সবাই-ই চ্যাম্পিয়ন হতে চাইবে। আর আমরা লিগ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এই টুর্নামেন্টে খেলছি আমাদের ওপর তো প্রত্যাশা থাকবেই। ’ প্রথম ম্যাচে ভালো করাটা যে গুরুত্বপূর্ণ সেই বার্তাও দিয়েছেন তিনি খেলোয়াড়দের, ‘শুরুতে ভালো কিছু করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা চেষ্টা করব ম্যাচটি জিতে বের হতে। গ্রুপের সবগুলো ম্যাচই কঠিন। প্রথম ম্যাচে জয় পেলে টুর্নামেন্টে বাকি অংশটা নিশ্চয় আমাদের জন্য সহজ হয়ে যাবে। ’

মালদ্বীপের দলটিতে বর্তমান জাতীয় দলের তিনজন খেলোয়াড় আছেন, সাবেক জাতীয় দলের খেলোয়াড় আছেন একজন। কোচ মোহাম্মদ নিজাম নিজে জাতীয় দলের খেলোয়াড় ছিলেন, খেলার অভিজ্ঞতা আছে তাঁর বাংলাদেশের বিপক্ষেও। তবে টিসি স্পোর্টস এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলতে দেশের বাইরে এসেছে। নিজাম জানিয়েছেন, মূলত সামনের মৌসুমের প্রস্তুতি হিসেবে নিয়েছেন তাঁরা এই আসরটাকে। যে কারণে শিরোপার লড়াইয়ে কথা ভাবছেনও না। তবে দলটা চমক দেখাতে পারে এই বিশ্বাস তাঁর আছে, ‘আমাদের দলটা তরুণ। নিজেদের আমরা ফেভারিটও ভাবছি না। তবে ভালো দলের বিপক্ষে খেলার সামর্থ্য আমাদের আছে। আমরা চমক দেখাতে পারি। মালদ্বীপ লিগে শুরুতেই আমরা রানার্স-আপ হব কেউ ভাবেনি। কিন্তু এই আসরে আমরা শীর্ষ একটি দল হিসেবেই খেলতে এসেছি। ’ এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে আবাহনীর বিপক্ষে তাদের ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়। তার আগেই অবশ্য শেখ কামাল ক্লাব কাপের দ্বিতীয় আসরে উদ্বোধন হয়ে যাবে। বিকেল ৪টায় উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে একই গ্রুপের এফসি আলগা ও কোরিয়ান পোচেয়ন সিটিজেন।

টুর্নামেন্ট নিয়ে চট্টগ্রামে এবারও আগ্রহ তুঙ্গে। স্বাগতিক ও চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী মাঠে নামছে অবশ্য কাল। তাদের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তানের শাহীন আসমায়ি। একই দিনে নেপালের মানাং মার্সিয়াংদির মুখোমুখি হবে ঢাকা মোহামেডান। দেশের ঐতিহ্যবাহী দলটি লিগে এবার দশম হলেও কিছু নতুন খেলোয়াড় নিয়ে তারাও এবার ভালো করার আশাবাদী। অন্তত সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে চায় তারা। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে চট্টগ্রাম আবাহনীর অবশ্য শিরোপার বাইরে কিছু ভাবার সুযোগ নেই। গতবার তারাই মূলত মাতিয়ে দিয়েছিল চট্টগ্রাম মহানগরী। এবারও তেমন জমজমাট আসরেরই প্রত্যাশা। আয়োজকদের দিক থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, তাদের প্রস্তুতি সম্পন্ন, নিরাপত্তার দিকেও বাড়তি নজর দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেডের চেয়ারম্যান, সংসদ সদস্য আব্দুল লতিফ, ‘গতবারের মতো এবারের দ্বিতীয় আয়োজনটিও আমরা সফল করতে চাই চট্টগ্রামবাসীকে সঙ্গে নিয়ে। ফুটবলারদের আসা-যাওয়ায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আশা করি দর্শকদের কোনো সমস্যায় পড়তে হবে না, তারা দলে দলে মাঠে আসবে। ’ শেষ পর্যন্ত ম্যাচগুলোই দর্শকদের মাঠে টানার বিজ্ঞাপন। শুরুর দিনে আবাহনীও নিশ্চয় হতাশ করবে না।


মন্তব্য