kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

বাইলজ অনুযায়ী আমরাই জয়ী দল

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বাইলজ অনুযায়ী আমরাই জয়ী দল

আবাহনী, মোহামেডানের সঙ্গে মাগুরা বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবলে অংশ নিয়েছে দেশের শীর্ষ সারির দল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রও। কাল মোহামেডানের বিপক্ষে তাদের সেমিফাইনাল ছিল।

সে ম্যাচে মোহামেডান অবৈধ খেলোয়াড় খেলিয়েছে বলে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে শেখ রাসেলকে। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক কথা বলেছে সে প্রসঙ্গেই

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : শেখ রাসেলের বিপক্ষে মোহামেডান অবৈধ খেলোয়াড় খেলিয়েছে বলে আপনার অভিযোগ...

শফিকুল ইসলাম মানিক : হ্যাঁ, এটা নিশ্চয় সবাই জানে। কারণ যে দুজনের কথা আমরা বলেছি সেই সিও জুনাপিও ও মোস্তফা এই টুর্নামেন্টেই কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছে আরেকটি দলের হয়ে। মোহামেডান আজ (কাল) আবার তাঁদের মাঠে নামিয়েছে নিজেদের জার্সিতে। অথচ টুর্নামেন্টের বাইলজে স্পষ্ট করেই বলা আছে, একজন খেলোয়াড় কোনো দলের হয়ে মাঠে নেমে গেলে সে আর এই আসরে অন্য কোনো দলের হয়ে খেলতে পারবে না।

প্রশ্ন : আপনারা তার ভিত্তিতে শেখ রাসেলকে জয়ী ঘোষণার দাবি করছেন?

মানিক : আমাদের আলাদা করে দাবি করার তো কিছুই নেই। বাইলজেই আছে এ ধরনের অনিয়মের জন্য ওই ক্লাবের বিপক্ষ দলটিকে ২-০ গোলে জয়ী বলে ঘোষণা করা হবে। আমরা আয়োজকদের কাছে সেই দাবিই জানিয়েছি। খেলা শুরুর বেশ কিছুক্ষণ পর বিষয়টা আমরা লক্ষ করি।

তখনই আমরা আপত্তি জানাই এবং বাইলজ অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নিতে বলি। তখন আয়োজকদের কাছ থেকে বলা হয় বাইলজ অনুযায়ীই সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে। কিন্তু তারা আমাদের অনুরোধ জানায় খেলা চালিয়ে যাওয়ার জন্য। টুর্নামেন্টের ভাবমূর্তি ও দর্শকের কথা ভেবেই আমরা খেলেছি। এই ধরনের ইস্যুতে সিদ্ধান্ত যেহেতু পরেই দেওয়া হয়। আমরা এখন খুশি আমাদের পক্ষে সিদ্ধান্ত আসায়।

প্রশ্ন : এ ধরনের পরিস্থিতিতে খেলোয়াড়দের মনোযোগ নষ্ট হয়েছিল অবশ্যই?

মানিক : তা তো অবশ্যই। শুধু খেলোয়াড় কেন আমিই ভেবেছি যে এ ম্যাচে ফল আর মুখ্য হবে না। সেই সুযোগটাই হয়তো নিয়েছে মোহামেডান। প্রথমার্ধেই আমরা ২-০তে এগিয়ে গিয়েছিলাম। প্রথম গোলটা করে দাউদা সিসে, দ্বিতীয় গোল নাসিরের। মোহামেডান দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফেরে সজীব ও সবুজের গোলে। এরপর ম্যাচ টাইব্রেকারে গড়ালে সেখানেও আমরা লিডে ছিলাম ৩-২-এ। কিন্তু চার নম্বর শটটা আতিকুর রহমান মিস করলে ওরা আবার সুযোগ পায়। শেষ পর্যন্ত সাডেন ডেথে আমরা হেরেছি। কিন্তু এদিন শেষ পর্যন্ত আমরা খেলে গেছি তো দর্শক আর আয়োজকদের কথা চিন্তা করেই। সিদ্ধান্তটা তো দেওয়ার কথা ওই অবৈধ খেলোয়াড় খেলানোর বিষয়টি আমলে নিয়েই।

প্রশ্ন : এই টুর্নামেন্টের আয়োজন নিয়ে কী বলবেন?

মানিক : আমার কথা এটা বঙ্গবন্ধুর নামে আসর, এখানে অনিয়ম হতে পারে না। তারা শেষ পর্যন্ত বাইলজ মেনে সিদ্ধান্ত দিয়েছে বলে আমি খুমি।


মন্তব্য