kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

শেখ কামাল ক্লাব কাপের জন্য আমরা মুখিয়ে আছি

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



শেখ কামাল ক্লাব কাপের জন্য আমরা মুখিয়ে আছি

মৌসুমের এই সময়টা বেশির ভাগ ক্লাব অলস সময় কাটাচ্ছে। সেখানে আবাহনী দুটি বড় আসর সামনে রেখে জোর প্রস্তুতির মধ্যে আছে। ফেব্রুয়ারিতে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের পরই এএফসি কাপের মিশন মার্চের মাঝামাঝি থেকে। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে দলের ডিফেন্ডার ওয়ালী ফয়সাল কথা বলেছেন সেই প্রসঙ্গে

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : আপনারা তো এখন একই সঙ্গে দুটি আসরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন, দুটিই বড় আসর...

ওয়ালী ফয়সাল : শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ আর এএফসি কাপের কথা বলছেন তো? তার আগে এখন কিন্তু আমরা স্থানীয় একটা টুর্নামেন্ট খেলতে মাগুরায়। বিকেএসপিতে ১০ দিনের ক্যাম্প শেষ করেই এই টুর্নামেন্টে খেলতে এসেছি। কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে খেলছি আমরা, এর মধ্যে সেমিফাইনালেও উঠে গেছি। সেখানে খুব সম্ভবত নৌবাহিনীর বিপক্ষে আমাদের খেলতে হবে। এই টুর্নামেন্ট শেষ করেই শেখ কামাল ক্লাব কাপে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

প্রশ্ন : গতবার আবাহনী প্রত্যাশা মেটাতে পারেনি, এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্যাপারে কতটা আশাবাদী?

ওয়ালী : আমরা শতভাগ আশাবাদী। এই মৌসুমে এরই মধ্যে তিনটি টুর্নামেন্ট জিতেছে আবাহনী, সঙ্গে একটি রানার্স-আপ ট্রফি। এর সঙ্গে আরেকটি আন্তর্জাতিক ট্রফি যোগ হলে তো ক্লাবের ইতিহাসের অন্যতম স্মরণীয় মৌসুম হয়ে থাকবে এটা।

যে কারণে ক্লাব কর্মকর্তা থেকে শুরু করে আমরা সবাই এই আসরটা নিয়ে খুব সিরিয়াস।

প্রশ্ন : এএফসি কাপ নিয়ে কী ভাবনা?

ওয়ালী : এএফসি কাপের মতো আসরে খেলার ভাগ্য কয়জনের হয়। যারা চ্যাম্পিয়ন দলে থাকে এবং যারা ওই চ্যাম্পিয়ন দলের সেরা পারফরমার তারাও এশীয় পর্যায়ের এই আসরে খেলে। আবাহনী এখনো বোধহয় খেলোয়াড় রেজিস্ট্রেশন করেনি ওই টুর্নামেন্টের জন্য। আমি নিজে অপেক্ষায় আছি এই আসরে সুযোগ পেয়ে নিজেকে মেলে ধরার। তবে এখন পর্যন্ত শেখ কামাল টুর্নামেন্ট নিয়েই বেশি ভাবছি, যেহেতু এই আসরটাই আগে।

প্রশ্ন : আপনাদের নতুন কোচ আসছেন দ্রাগো মামিচ, তিনি কেমন হবেন মনে করেন?

ওয়ালী : মামিচ নিঃসন্দেহে ভালো কোচ। এর আগে ঢাকায় যখন তিনি কিছুদিন ছিলেন, তখনই আমি উনার একটি অনুশীলন সেশন দেখেছিলাম। বড় মাপের একজন কোচই মনে হয়েছে তাঁকে। আর কাগজে-কলমেও তো উনি একজন হাইপ্রোফাইল কোচ। আবাহনী একটা চ্যাম্পিয়ন দল, নিশ্চয় তিনি এই সাফল্যটা ধরে রাখার পাশাপাশি দলে আরো নতুন কিছু যোগ করবেন।

প্রশ্ন : জর্জ কোটানকে কতটা মিস করবেন?

ওয়ালী : কোটান আমাদের চ্যাম্পিয়ন করিয়ে গেছেন, তাঁকে তো মিস করবই। উনি এমন একজন কোচ, যে খেলোয়াড়ই তাঁর সঙ্গে কাজ করছে তাঁকে মনে রাখতে বাধ্য। ক্রোয়েশিয়ান কোচ দ্রাগো মামিচ এখন আসছেন, উনিও নিশ্চয় মনে রাখার মতোই কিছু করবেন।

 


মন্তব্য