kalerkantho


মমিনুল হকের ভারত-স্বপ্ন

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মমিনুল হকের ভারত-স্বপ্ন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : কী বিপরীত মেরুতেই না দাঁড়িয়ে হায়দরাবাদ টেস্টে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-বাংলাদেশ! তা শুধু আইসিসি টেস্ট র‌্যাকিংয়ে স্বাগতিকরা এক নম্বরে এবং সফরকারীরা ৯ নম্বরে থাকার কারণে না; সাম্প্রতিক ফর্মের কারণেও। সর্বশেষ সিরিজে ইংল্যান্ডকে টেস্ট-ওয়ানডে-টিটোয়েন্টি তিন সিরিজেই হারিয়েছে ভারত। আর বাংলাদেশ উল্টো নিউজিল্যান্ড থেকে হেরে এসেছে তিন ফরম্যাটের সিরিজে। এ অবস্থায় বড় কিছুর স্বপ্ন দেখাই তো কঠিন মুশফিকুর রহিমের দলের জন্য।

মমিনুল হক তবু স্বপ্ন দেখেন। আর তা প্রতিপক্ষের শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েই। পরশু ভারতের মাটিতে পা রাখার পর কাল হায়দরাবাদে অনুশীলনও করেছে বাংলাদেশ। এর ফাঁকেই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মমিনুলের সেই আশাবাদ, ‘ভারতের পেস ও স্পিন—বোলিংয়ের দুই বিভাগই বেশ ভালো। আর ব্যাটিং তো অবিশ্বাস্য রকম ভালো। সব মিলিয়ে খুব ভারসাম্যপূর্ণ দল। এ কারণেই তো এখন বিশ্ব র‌্যাকিংয়ের এক নম্বরে রয়েছে ভারত।

কিন্তু আমরা চাইব ওদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে। চাইব সর্বোচ্চ সাফল্য। ভারতের বিপক্ষে টেস্টে জয়ের জন্যই খেলব আমরা। ’ জয়? স্বপ্নের আকাশটা অনেক বড় মনে হতে পারে। কিন্তু সব সম্ভবের খেলার নামই তো ক্রিকেট। বাংলাদেশের ভরসার জায়গা সেটিই।

পেছনে হতাশা হয়ে আছে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ। সেটিকে পেছনে রেখেই সামনে তাকাচ্ছেন মমিনুল। শুধু ভারত না, তাঁর দৃষ্টি প্রসারিত আরো দূরে, ‘অতীত নিয়ে আমরা ভাবছি না। এরই মধ্যে নিউজিল্যান্ড সিরিজ ভুলে গেছি। ভারতে আমরা সর্বোচ্চ সাফল্যের আশা করছি। চাইব একমাত্র টেস্টে যথাযথ ক্রিকেট খেলতে। আর সামনেও তো অনেক খেলা রয়েছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সামনের সিরিজেও ভালো খেলার চেষ্টা থাকবে দলের। ’ কিন্তু চাইলেই হুট করে ভালো খেলা সম্ভব কতটা? বিশেষত টেস্টে? বাংলাদেশের কম টেস্ট খেলার সুযোগ পাওয়ার হাহাকারটা তাই সিরিজের আবহে উড়ে বেড়াচ্ছে ঠিকই। সেই আফসোসের সুর মমিনুলের কণ্ঠেও, ‘বাংলাদেশ খুব অল্প সংখ্যক টেস্ট খেলে। আর এটি নিয়ে আমরা মোটেই খুশি নই। কিন্তু এ নিয়ে কিছু তো করার নেই। আমরা কেবল মাঠে নেমে ভালো পারফর্মই করতে পারি। ’

ক্রিকেটে সেই দলীয় ভালো পারফরম্যান্স তো হয় ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের মালাতে। এখানেই অধিনায়ক মুশফিকের বড় ভরসার নাম মমিনুল। টেস্ট স্পেশালিস্টের তকমা তাঁর গায়ে সেঁটে, ‘বাংলাদেশের ব্র্যাডম্যান’ আদুরে নামই যার প্রমাণ। অতিমানবীয় ব্যাটিং গড় এখন কমে এসেছে কিছুটা, তবু ৫১.১৫ গড়ও কম ঈর্ষণীয় কিসে! সমকালীন ক্রিকেটের সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির টেস্ট ব্যাটিং গড়ের চেয়ে যা বেশি। তবু ভারত অধিনায়কের প্রতি ভীষণ শ্রদ্ধা মমিনুলের, ‘কোহলি বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড়। ওর সম্পর্কে বেশি আর কী বলার আছে! যদি সুযোগ পাই, তাহলে ওর সঙ্গে একটু কথাবার্তা বলার চেষ্টা করব। ’ ভারতের বিপক্ষে সিরিজে নিজের ব্যক্তিগত লক্ষ্য নেই বললেও নিজেকে পরের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার উচ্চাশা ঠিকই রয়েছে তাঁর, ‘আমার বিশেষ কোনো ব্যক্তিগত লক্ষ্য নেই। আগের সিরিজগুলোয় যেমনভাবে খেলেছি, তেমনিভাবে খেলার চেষ্টাই করব। সব সময় আমি লম্বা ইনিংস খেলার চেষ্টা করি। আর আমার তো প্রমাণ করার কিছু নেই। নিজের দক্ষতার উন্নতি করার চেষ্টা করব। আর চাইব যেন পরের পর্যায়ে যেতে পারি। ’


মন্তব্য