kalerkantho

ফাইনালে মিসর

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বুড়ো হাড়ের ভেলকিতে আফ্রিকান নেশনস কাপের ফাইনালে মিসর। নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ের খেলা শেষ হয় ১-১ সমতায়। ফলে বুরকিনা ফাসোর সঙ্গে মিসরের সেমিফাইনাল গড়ায় টাইব্রেকারে। তাতে শেষ শটটা ঠেকিয়ে মিসরকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে জিতিয়ে নায়ক ৪৪ বছর বয়সী গোলরক্ষক ইসাম এল হাদারি। গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর রোমায় খেলা মিসরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহর ৬৬ মিনিটে করা গোলে এগিয়ে যায় ফারাওরা। কিন্তু ম্যাচের ৭৩ মিনিটেই আরিস্তিদ বান্সের গোলে সমতায় ফেরে বুরকিনা ফাসো। সেটাই ছিল ২০১০ সালের পর আফ্রিকান নেশনস কাপে হাদারির হজম করা প্রথম গোল। ৬৫৩ মিনিট পর গোল হজম করা হাদারির বিদায়টা হতে পারত করুণ, যখন টাইব্রেকারে মিসরের প্রথম শটটা মিস করেন এল সাইদ। এর পরের শটগুলোতে গোল পেয়েছে দুই দলই। তবে মিসরের শেষ দুটি স্পটকিকে হয় গোল আর গোলবারে বুরকিনা ফাসোর শেষ দুটি শট ঠেকিয়ে শেষ পর্যন্ত ৪-৩ গোলে মিসরকে ফাইনালের টিকিট এনে দেন এল হাদারি। আইভরি কোস্টের দিদিয়ের দ্রগবা তাঁকে বলেছেন ‘জীবনের সবচেয়ে কঠিনতম প্রতিপক্ষ’, আফ্রিকার সেরা গোলরক্ষক বলেও তাঁকে মনে করেন অনেকই। সেই হাদারিই ৪৪ বছর বয়সেও দেখালেন ইস্পাতকঠিন স্নায়ুর দৃঢ়তা। বার্টান্ড ত্রারোরের শটটা বাঁচিয়ে দিয়ে মিসরকে আরো একবার তুললেন ফাইনালে, যেখানে তাদের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ ক্যামেরুন ও ঘানা ম্যাচের জয়ী দল। এএফপি
 


মন্তব্য