kalerkantho


দাবার চালে চাহালের কিস্তিমাত

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



দাবার চালে চাহালের কিস্তিমাত

জয়ের সম্ভাবনা জাগানো জায়গা থেকে তাসের ঘরের মতো ধসে গেল ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপ। দুঃস্বপ্ন হয়ে এলেন যুজবেন্দ্র চাহাল। করলেন টোয়েন্টি টোয়েন্টির ইতিহাসে তৃতীয় সেরা বোলিং, ২৫ রানে তুলে নিলেন ৬ উইকেট  আর ইংল্যান্ড চোখের পলকে গুটিয়ে গেল ৮ রানে শেষ ৮ উইকেট হারিয়ে। হরিয়ানার লেগ স্পিনার চাহাল দলে ছিলেন মূলত অমিত মিশ্রর ডেপুটি হিসেবে। রঞ্জিতে হরিয়ানার অধিনায়ক অমিত মিশ্রর অধীনে খেলেছেন চাহাল। কিন্তু বেঙ্গালুরুতে তিনিই করে দিলেন বাজিমাত।

আইপিএল দল বেঙ্গালুরু রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে খেলেন চাহাল। ইংল্যান্ডের সঙ্গে শেষ টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলের হয়ে পরিচিত চিন্নাস্বামীতে নামার সুযোগ হয় তাঁর। চেনা মাঠে ইংল্যান্ডকে ঘূর্ণিপাকে খাবি খাওয়াতে ভুল হয়নি এই লেগ স্পিনারের, ‘ভারতের হয়ে প্রথম এই মাঠে খেলছি, এই মাঠ আমার ঘরের মতোই। আইপিএলে আগেও পাওয়ার প্লেতে বল করেছি, তাই বিরাটের আমার ওপর আস্থা ছিল। আমি ভেবেছি, মাঠ ছোট দেখে ব্যাটসম্যানরা সবাই শটস খেলার চেষ্টা করবে। তাই ফুল লেন্থে বল করতে চেয়েছি, যাতে তারা সুইপ, রিভার্স সুইপ খেললে মিস হলেও যেন আমি লেগ বিফোর উইকেটে সাফল্য পাই। ৬ উইকেট পাব এমনটা স্বপ্নেও ভাবিনি। ’ এমন নিখুঁত পরিকল্পনা, ঠিক যেন কোনো পাকা দাবাড়ুর মাথা থেকেই এসেছে! আসলেই চাহাল স্কুল স্তরে জাতীয় পর্যায়ের দাবাড়ুই ছিলেন। চাহালই একমাত্র ক্রীড়াবিদ, যে দাবা ও ক্রিকেট দুটি খেলাতেই জাতীয় পর্যায়ে খেলেছেন। বিশ্ব দাবা ফেডারেশনের রেটিংধারী দাবাড়ু চাহাল জানেন কিভাবে অঙ্ক কষে ঝুঁকি নিতে হয়। তাই তো লেগ স্পিনার হিসেবে সেভাবেই মাথা খাটিয়ে বলটা করতে জানেন। সবশেষ দুই মৌসুম ধরে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি চাহালকে ইংল্যান্ড সিরিজের দলে নেওয়া হলেও ঠিক তুরুপের তাস মনে করা হয়নি তাঁকে। জসপ্রিত বুমরাহ, অমিত মিশ্র, আশীষ নেহরাদের মাঝে ঠিকই নিজের জাত চিনিয়েছেন চাহাল। সুরেশ রায়নার ৪৫ বলে ৬৩ ও মহেন্দ্র সিং ধোনির ৩৫ বলে ৫৬ রানের সুবাদে ২০৬ রান করেও জয়ের ব্যাপারে ঠিক নিশ্চিত ছিল না ভারত। কারণ জো রুট ও এউইন মরগান ইংল্যান্ডকে রেখেছিলেন ঠিক পথেই, ডাগআউটেও অপেক্ষায় জস বাটলার, বেন স্টোকসরা। এমন সময়েই চাহালের ভেলকি। ইনিংসের ১৪ ও ১৬তম ওভারে করা ১২ বলে নিয়েছেন ৫ উইকেট, তার আগে দ্বিতীয় ওভারে ইংলিশ ওপেনার স্যাম বিলিংসকেও ফিরিয়েছেন চাহাল। সব মিলিয়ে ৪ ওভারে ২৫ রানে ৬ উইকেট নিয়ে অজন্তা মেন্ডিসের পর দ্বিতীয় বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ৬ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব দেখান চাহাল। সব মিলিয়ে বেঙ্গালুরুর ম্যাচের সেরার পাশাপাশি সিরিজে মোট ৮ উইকেট নিয়ে সিরিজসেরাও হয়েছেন বছর সাতাশের এই লেগ স্পিনার দাবাড়ু। ক্রিকইনফো


মন্তব্য