kalerkantho


মেসি-সুয়ারেস এগিয়ে রাখলেন বার্সাকে

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মেসি-সুয়ারেস এগিয়ে রাখলেন বার্সাকে

রিয়াল মাদ্রিদ ছিটকে গেছে আগেই। ওদিকে এক সেমির দ্বৈরথে মুখোমুখি সেল্তা ভিগো-আলাভেস।

কোপা দেল রের অন্য সেমিফাইনালটি তো শুধু শুধুই অঘোষিত ফাইনালের মর্যাদা পাচ্ছে না! তাতে যে বার্সেলোনা-আতলেতিকো মাদ্রিদের মহারণ! পরশু এই লড়াইয়ের প্রথম পর্বে ২-১ গোলে জিতে ফাইনালের পথে অনেকটা এগিয়ে গেছে লুইস এনরিকের দল। সেটি কেবল জয়ের কারণে না, জয়টি প্রতিপক্ষের মাঠে হওয়ার জন্যও।

ভিসেন্তে ক্যালদেরনে বার্সার এগিয়ে যেতে সময় লাগে মোটে সাত মিনিট। মাঝমাঠে বল পেয়ে লুইস সুয়ারেস আতলেতিকোর চার ডিফেন্ডারের মাঝ দিয়ে বেরিয়ে যান বুলেটের গতিতে। এরপর দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে দারুণ গোল। ৩৩ মিনিটে লিওনেল মেসির গোলটিও দর্শনীয়। পেনাল্টি এরিয়ার বাইরে থেকে কামানের গোলার মতো শটে বল জড়িয়ে দেন জালে। প্রতিপক্ষের মাঠে গিয়ে প্রথমার্ধের দুই গোলে নিজেদের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করে বার্সা। ৫৯তম মিনিটে হেড থেকে আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানের গোল ব্যবধান কমায় কেবল।

কিন্তু আতলেতিকোকে তা ম্যাচে ফিরিয়ে আনতে পারেনি। উল্টো ৭৫তম মিনিটে মেসির ফ্রি-কিক বারে না লাগলে প্রথম লেগেই এনরিকের দলের ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যেত একরকম।

বার্সা কোচের আক্ষেপের জায়গা সেটিই। অবশ্য ফলটা অন্য রকম হতে পারত ভেবে ক্যালদেরন থেকে জয় নিয়ে ফিরেই সন্তুষ্ট এনরিকে, ‘আমরা আরেক গোল দিয়ে দ্বৈরথটা শেষ করে দিতে পারতাম। অবশ্য আরেক গোল হজম করার আশঙ্কাও ছিল। আসলে ক্যালদেরনে এসে কষ্ট করতে হবে না—এমন শিশুসুলভ ভাবনা ছিল না। ওদের গোলটা ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে রেখেছে আতলেতিকোকে। তবে এখান থেকে জয় নিয়ে ফেরায় আমরাও আত্মবিশ্বাসী। ’

এদিকে পরশু ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে দারুণ এক জয় পেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। ওয়েস্ট হামকে ৪-০ গোলে হারায় তারা। সের্হিয়ো আগুয়েরোকে বসিয়ে এদিন প্রথম একাদশে ব্রাজিলিয়ান টিনএজার গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে খেলান পেপ গার্দিওলা। কোচের সেই আস্থার প্রতিদান দারুণভাবে দেন জেসুস। নিজে এক গোল করে, আরেক গোল করিয়ে। জেসুসের পাশাপাশি কেফিন ডি ব্রুইন, দাভিদ সিলভা ও ইয়া ইয়া তোরের লক্ষ্যভেদে স্বচ্ছন্দ জয় পায় ম্যানসিটি। লিগ টেবিলের ৪ নম্বরে থাকা লিভারপুলের সমান ৪৬ পয়েন্ট তাদের; সিটিজেনরা পিছিয়ে কেবল গোল পার্থক্যে।

শীর্ষে থাকা চার দল চেলসি, টটেনহাম, আর্সেনাল, লিভারপুলের প্রত্যেকে পয়েন্ট খুইয়েছে আগের দিন। সেরা চারের স্বপ্নপালে হাওয়া লাগানোর বড় সুযোগ ছিল তাই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সামনে। কিন্তু ঘরের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে হাল সিটির সঙ্গে কেবল গোলশূন্য ড্র করতে পারে হোসে মরিনহোর দল। ৪২ পয়েন্ট নিয়ে আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার আশা আরেকটু ফিকে হলো ম্যানইউর।

এদিকে ইতালিয়ান কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ফ্রান্সেসকো তোত্তির ৯৬তম মিনিটের পেনাল্টি গোলে রোমা ২-১ গোলে সেসেনাকে হারিয়ে উঠে যায় সেমিতে। আর ফ্রেঞ্চ কাপের শেষ বত্রিশের লড়াইয়ে প্যারিস সেন্ত জার্মেই ৪-০ গোলে রেঁনেকে এবং মোনাকো ৫-৪ গোলে হারায় এফসি চাম্বলিকে। এএফপি


মন্তব্য