kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

আমি শুধু আমার খেলাটা খেলেছি

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



আমি শুধু আমার খেলাটা খেলেছি

চণ্ডীগড় থেকে উঠে এসে ভারতের গলফ অঙ্গন মাতিয়েছেন জিভ মিলখা সিং। তাঁরই প্রতিবেশী ২০ বছরের তরুণ শুভঙ্কর শর্মা বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের শুরুর দিন মিলখা সিং শুধু নয়, পেছনে ফেলেছেন প্রায় সব গলফারকে।

৭ আন্ডার পার করে যুগ্মভাবে আসরে তিনিই শীর্ষে। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি এই পারফরম্যান্স নিয়েই কথা বলেছেন তিনি

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : দিনটা শীর্ষে থেকে শেষ করবেন ভাবতে পেরেছিলেন?

 

শুভঙ্কর শর্মা : লক্ষ্য তো থাকে। তবে আমি খেলার সময় শীর্ষস্থান নিয়ে ভাবিনি। লিডারবোর্ডে কে ওঠানামা করছে সেসবও দেখিনি, আমি শুধু নিজের খেলাটা খেলে গেছি।

প্রশ্ন : এই আসরে জিভ মিলখা সিংয়ের মতো ভারতের তারকা গলফার খেলছেন, অন্য যাঁরা এসেছেন তাঁরাও আপনার চেয়ে অভিজ্ঞ—সবাইকে ম্লান করে দিয়ে এভাবে শীর্ষে উঠে যাওয়াটা কতটা উপভোগ করছেন?

শুভঙ্কর : জিভের কথা বলার প্রয়োজন নেই। সে ভারতের গলফে কিংবদন্তির মতো। আমি নিজেও চণ্ডীগড়ের ছেলে। ছোটবেলা থেকেই উনার বাবার কথা, উনার কথা শুনে এসেছি। উনার মতো হতে পারাটাই তো আমার স্বপ্ন।

আমি এখানে ভালো করছি দেখে উনিও নিশ্চয় অখুশি হবেন না। অন্যদের ব্যাপারেও তাই। পেশাদার গলফে এমন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সবাই-ই মানিয়ে নিয়েছি। ওদেরকে পেছনে ফেলতে পেরেছি বলে নয়, আমার ভালো লাগছে আমি নিজে ভালো খেলতে পেরেছি সে কারণে।

প্রশ্ন : বাংলাদেশে গতবারও খেলতে এসেছিলেন, এবার এসে কেমন লাগছে?

শুভঙ্কর : দারুণ, মনেই হচ্ছে না আমি দেশের বাইরে খেলছি। অনেক ভারতীয় গলফার এখানে খেলছে সেটিও একটি কারণ। আর এখানকার কোর্স, আবহাওয়াটাও এখন অনেক সুন্দর। এবারও আমি সময়টা খুব উপভোগ করছি। আশা করি সামনে দিনকয়টাও ভালো যাবে।

প্রশ্ন : স্বাগতিক গলফারদের কাছে ‘গ্রিন’ খুবই ‘ফাস্ট’ মনে হয়েছে, আপনার কেমন লেগেছে?

শুভঙ্কর : গতি একটু বেশিই। তবে এমনটা খেলেই আমি অভ্যস্ত। ভারতের কোর্সগুলোর কন্ডিশন একই রকম থাকে যখন এশিয়ান ট্যুরগুলো হয়।

প্রশ্ন : আজকে খেলার কোন বিষয়টি সবচেয়ে আপনার পক্ষে গেছে?

শুভঙ্কর : দারুণ একটা রাউন্ড গেছে আমার। যা করতে চেয়েছি তা-ই হয়েছে। যে কয়টা বার্ডি পেয়েছি তার প্রত্যেকটিতেই আমার ড্রাইভ খুব ভালো ছিল। পাটিংয়ের সুযোগগুলো খুব ভালোভাবেই কাজে লাগাতে পেরেছি।

প্রশ্ন : শিরোপার আশা তো এখন করতেই পারেন...

শুভঙ্কর : আমি এখন শুধু এই খেলাটা ধরে রাখতে চাই। সে ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসও আছে, তবে সত্যি বলতে এখনো শিরোপার কথা ভাবছি না। আজ শীর্ষে থেকে দিন শেষ করতে পেরেছি, এটা নিয়েই আমি খুশি। দ্বিতীয় দিনটাও এমনি কাটাতে চাই।

প্রশ্ন : একই পরিকল্পনা নিয়ে নামছেন?

শুভঙ্কর : হ্যাঁ। একই রকম পরিশ্রমও করতে হবে।


মন্তব্য