kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সদা সতর্ক ইংল্যান্ড

দেশের হয়ে সর্বোচ্চ টেস্ট খেলার রেকর্ড হবে অ্যালিস্টার কুকের। কিন্তু ব্যক্তিগত অর্জনের সীমা পেরিয়ে চট্টগ্রাম টেস্টের দিকেই মূল মনোযোগ ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়কের। কাল ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বললেন তেমনটাই। এরই নির্বাচিত অংশ...

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



সদা সতর্ক ইংল্যান্ড

ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ টেস্ট খেলার রেকর্ড নিয়ে...

অ্যালিস্টার কুক : এটি নিয়ে খুব একটা বেশি কিছু ভাবিনি। ব্যক্তিগত দৃষ্টিকোণ থেকে আমার জন্য এটি হবে বিশেষ এক দিন।

তবে তা দিয়ে এই ম্যাচ কেউ মনে রাখবে না। আমরা চাই দলীয় পারফরম্যান্স দিয়েই এই ম্যাচ মনে থাকুক।

টেন্ডুলকারের সর্বোচ্চ টেস্ট খেলার রেকর্ড ভাঙা প্রসঙ্গে...

কুক : এটি আসলে অনেক দূরের ব্যাপার। আমি খুব ভাগ্যবান যে, ইংল্যান্ডের হয়ে ১৩৩টি টেস্ট খেলতে পেরেছি। আশা করি, কাল সেটি ১৩৪ হবে। এখনো আরো অনেক ক্রিকেট আমার ভেতরে আছে বলে মনে করি। তবে আমি এখন মনোযোগ দিচ্ছি এই ম্যাচে। মনে হচ্ছে, তাপমাত্রা যেন এক-দুই ডিগ্রি বেড়ে গেছে। আগামী পাঁচ দিনে মাঠে থেকে খেলাটা হবে কঠিন চ্যালেঞ্জের।

দলের ওপেনিং জুটি নিয়ে...

কুক : এ নিয়ে আমাদের কিছু ভাবনা রয়েছে। দলীয় সভাও করেছি; তবে একাদশ তো এখানে বলে দিতে পারি না!

বাংলাদেশ ও ভারত মিলিয়ে টানা সাত টেস্টে খেলা প্রসঙ্গে...

কুক : আমরা জানি যে, টানা সাত টেস্ট খেলতে হবে আমাদের। তবে এই মুহূর্তে বাংলাদেশের টেস্ট ছাড়িয়ে আরো দূরে তাকানোটা হবে বড় ভুল। বড় পরিসরে হয়তো বোলারদের সময়মতো বিশ্রাম দেওয়া কিংবা নতুন কিছু সতেজ খেলোয়াড় সংযোজনের পর তাদের ব্যবহার নিয়ে পরিকল্পনা করা যায়। তবে বর্তমানে দাঁড়িয়ে আমরা মনোযোগ দিচ্ছি কেবলই সামনের পাঁচ দিনের ওপর।

অভিজ্ঞতার কারণে টেস্টে ইংল্যান্ড এগিয়ে থাকবে কি না...

কুক : এটি আমাদের এগিয়ে থাকার জায়গা হতে পারে। ওয়ানডে সিরিজে দেখেছি, বাংলাদেশ এখন অনেক উন্নতি করেছে। গত তিন-চার বছরে অনেক দূর এগিয়েছে ওরা। বাংলাদেশ দলে অনেক প্রতিভা রয়েছে; আগের চেয়ে অনেক বেশি। আমার মনে হয়, আমাদের জন্য এই টেস্ট হবে ভালো এক পরীক্ষা।

এমন কন্ডিশনে টেস্ট খেলা নিয়ে...

কুক : ইংল্যান্ড হয়তো বাংলাদেশের চেয়ে বেশি টেস্ট খেলে, যা আমাদের সাহায্য করবে। কিন্তু এই ধরনের কন্ডিশনে আমরা খুব একটা খেলি না। অবশ্যই ঘরের মাঠে চেনা কন্ডিশনে খেলার সুবিধা পাবে বাংলাদেশ। আমাদের ছেলেরা তিন দিন অনুশীলন ম্যাচ খেলেছে। যা মোটেও অনেক বেশি না। আমাদের তাই টেস্টের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত থাকতে হবে।


মন্তব্য