kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


অধিনায়কের পেনাল্টি মিসে সমর্থকদের উল্লাস!

১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



অধিনায়কের পেনাল্টি মিসে সমর্থকদের উল্লাস!

ইতালিয়ান সিরি ‘এ’তে দাপট এখন জুভেন্টাসের। টানা পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন তারা।

তবে ২০১৪-১৫ মৌসুমটা নিজের করে নিয়েছিলেন মওরা ইকার্দি। ইন্টার মিলানের তরুণ ফরোয়ার্ড করেছিলেন লিগের সর্বোচ্চ ২২ গোল। তখন থেকে নেরাজ্জুরিদের চোখের মণি এই আর্জেন্টাইন। ২৩ বছর বয়সে পেয়ে গেছেন ঐতিহ্যবাহী দলটির নেতৃত্বও। সেই চোখের মণি হঠাৎই এখন চোখের বালি! এতটাই যে তাঁর পেনাল্টি মিসে উল্লাস পর্যন্ত করেছেন ইন্টারের খেপাটে সমর্থক গোষ্ঠী কুরভা নর্দের সদস্যরা।

নিজেদের মাঠ সান সিরোয় ক্যালিয়ারির বিপক্ষে গত পরশু ১-২ গোলে হেরেছে ইন্টার মিলান। বিরতির আগে ইকার্দি পেনাল্টি মিস না করলে অন্য রকমও হতে পারত গল্পটা। ম্যাচ শুরুর আগেই অবশ্য সান সিরোয় ছেয়ে গিয়েছিল ইকার্দির বিপক্ষে ব্যানার আর নানা ফেস্টুনে। এর একটিতে লেখা ‘তুমি পুরুষ নও, অধিনায়ক নও, তুমি আসলে...। ’ ইকার্দির পেনাল্টি মিসের পর খেপে থাকা সমর্থকদের সে কি উল্লাস! এরপর সবার দাবি, নেতৃত্ব থেকে সরাতে হবে এই আর্জেন্টাইনকে।

হঠাৎ কী কারণে এমন রাগ তাঁদের? এর মূলে ইকার্দির আত্মজীবনী ‘সেম্পেরে অভন্তি’। সেখানে গত বছর সাসুউলোর মাঠে হারের পর সমর্থকদের কাছে নাজেহাল হওয়ার ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন বার্সেলোনার একাডেমিতে বেড়ে ওঠা এই তরুণ। ইন্টার সমর্থকদের একহাত নিয়ে লিখেছেন, ‘হারার পর এক খুদে সমর্থক জার্সি চাইছিল আমার। ওর বয়স আমার ছেলের মতো হবে। জার্সিটা তাই খুলে ছুড়ে মারি। অথচ আরেক সমর্থক সেটা ছিনিয়ে উল্টো কটু কথা শুনিয়ে দেয়। এর প্রতিবাদ করলে ড্রেসিংরুমে সতীর্থরা সমর্থন দিয়েছিল আমাকে। ওদের সঙ্গে একা মুখোমুখি হতে চাই। কতজন হবে ওরা, ৫০, ১০০ বা ২০০ জন। ঠিক আছে, আর্জেন্টিনা থেকে ১০০ দাগী অপরাধী নিয়ে আসব। যেখানেই থাক ওদের ধরে খুন করবে সেই অপরাধীরা। তখন দেখব আমি। ’ কুরভা নর্দের রাগার কারণ এটাই। এর প্রতিবাদে ইকার্দির নেতৃত্ব কেড়ে নেওয়ার পক্ষে তাঁরা, যা উপেক্ষা করতে পারছে না খোদ ইতালিয়ান ক্লাবটিও। সহসভাপতি হাভিয়ের জানেত্তি দিয়েছেন সেই ইঙ্গিত। এমনকি তাঁকে বিক্রিও করে দেওয়া হতে পারে আর্সেনালের কাছে। বিরক্ত আরেক পরিচালক পিয়েরো অসিলিও, ‘মাত্র ২৩ বছর বয়সে ইকার্দির আত্মজীবনী লেখার কারণই খুঁজে পাচ্ছি না আমি!’ গোল ডটকম


মন্তব্য