kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


গোলে ফিরলেন রোনালদোও

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



গোলে ফিরলেন রোনালদোও

চোটের জন্য মাঠের বাইরে ছিলেন ২৫ দিন। ফিরেই লিওনেল মেসি গোল করতে সময় নিলেন মাত্র তিন মিনিট! তাতে রেকর্ডের মুকুটে যোগ হয়েছে আরেকটি পালক।

বেঞ্চ থেকে নেমে স্প্যানিশ ফুটবল ইতিহাসে পঞ্চম সর্বোচ্চ ২০ গোল এখন মেসির। মেসির রেকর্ড আর দেপোর্তিভো লা করুনার বিপক্ষে ৪-০ ব্যবধানের জয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে সাবেক কোচ পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটিকে বার্তাও দিয়ে রাখল বার্সেলোনা। এক মাসের বেশি সময় পর লা লিগায় গোল পেয়েছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোও। রিয়াল বেতিসকে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত করা ম্যাচে লক্ষ্য ভেদ করেছেন একবার। আর রিয়াল টানা চার ম্যাচের জয়খরা কাটিয়েছে রাজসিকভাবে। তবে ইয়ানিক কারাসকোর হ্যাটট্রিকে গ্রানাদাকে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত করে শীর্ষে যথারীতি অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ।

পুরনো ক্লাব বার্সার মুখোমুখি হওয়ার আগে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে হোঁচট খেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। এভারটনের সঙ্গে পিছিয়ে পড়ে ড্র করেছে ১-১ গোলে। কেভিন ডি ব্রুইনের পর সের্হিহো আগুয়েরোর পেনাল্টি মিসে হতাশাটা আরো বেড়েছে সিটিজেনদের। আর্সেনাল ৩-২ গোলে হারিয়েছে সোয়ানসিকে, তাতে জোড়া গোল থিও ওয়ালকটের। আট ম্যাচ শেষে ম্যানচেস্টার সিটি আর আর্সেনালের পয়েন্ট সমান ১৯ হলেও গোল গড়ে শীর্ষে সিটিজেনরা। এ ছাড়া ইতালিয়ান সিরি ‘এ’তে টানা পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস ২-১ গোলে হারিয়েছে উদিনেসকে। নিজেদের মাঠে শুরুতে পিছিয়ে পড়লেও পাওলো দিবালার জোড়া গোলে আট ম্যাচ শেষে ২১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে তারাই। নাপোলিকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে এএস রোমা।

সেল্তা ভিগোর বিপক্ষে হারের ক্ষত নিয়ে ন্যুক্যাম্পে দেপোর্তিভোর বিপক্ষে নামা বার্সেলোনা ২১ মিনিটে এগিয়ে যায় রাফিনহার গোলে। ৩৬ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এই ব্রাজিলিয়ানই। ৪৩ মিনিটে নেইমারের ডিফেন্সচেরা পাসে গায়ে লেগে থাকা এক ডিফেন্ডারকে এড়িয়ে কাতালানদের ৩-০ গোলে এগিয়ে দেন লুই সুয়ারেস। সের্হিয়ো বুশকেেজর বদলি হিসেবে ৫৫ মিনিটে মাঠে নেমে তিন মিনিট পরই গোল করেন মেসি। বেঞ্চে থাকা কোনো ফুটবলারের স্প্যানিশ ফুটবলে এটা পঞ্চম সর্বোচ্চ ২০তম গোল। সবচেয়ে বেশি ২৮ গোলের কীর্তি স্পেনের হুলিও সালিনাসের।

লা লিগা আর চ্যাম্পিয়নস লিগ মিলিয়ে টানা চার ম্যাচ ড্র করেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। সেই বৃত্তটা ভাঙল রিয়াল বেতিসকে ৬-১ গোলে গুঁড়িয়ে দিয়ে। রিয়ালের হয়ে ইসকো দুটি আর একটি করে গোল রাফায়েল ভারানে, করিম বেনজিমা, মার্সেলো ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর। ৭৮ মিনিটে দলের হয়ে রোনালদো শেষ গোলটি করেন আলভারো মোরাতার সঙ্গে বল দেওয়া-নেওয়া করে দৃষ্টিনন্দন নিচু শটে।

অ্যাতলেতিকোয় অসাধারণ মৌসুম কাটানো ইয়ানিক কারাসকো হ্যাটট্রিকের পাশাপাশি অ্যাসিস্টও করেছেন দুটি। লা লিগায় আট ম্যাচ শেষে অ্যাতলেতিকো ও রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট সমান ১৮। তবে গোল গড়ে শীর্ষে অ্যাতলেতিকো। ১৭ পয়েন্ট নিয়ে সেভিয়া তিন আর ১৬ পয়েন্ট পাওয়া বার্সা আছে চারে। এএফপি


মন্তব্য