kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মুখোমুখি প্রতিদিন

আক্রান্ত হলে প্রতিপক্ষেরই সুবিধা

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে জস বাটলারের আউট হওয়া-পরবর্তী ঘটনাপ্রবাহের রেশ কাটছেই না। আইসিসি শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিলেও তা নিয়ে আলোচনা থেমে নেই। গতকাল সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি ইংল্যান্ডের কোচ ট্রেভর বেলিসকেও এ নিয়েই কথা বলতে হলো বেশি

১১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



আক্রান্ত হলে প্রতিপক্ষেরই সুবিধা

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাটলারের সঙ্গে বাংলাদেশের ছেলেদের লেগে যাওয়া নিয়ে কী বলবেন?

ট্রেভর বেলিস : দেখুন, এমন নয় যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এ রকম ঘটনা আমরা এবারই প্রথম দেখলাম। সম্ভবত এবারই শেষ নয়।

ভবিষ্যতেও দেখতে হবে। ওর (জোনাথন বেয়ারস্টো) কবজি ধাবা দিয়ে ধরা হয়েছিল। আমি নিশ্চিত যে ভবিষ্যতে এসব ঝামেলার বাইরে থাকার সর্বাত্মক চেষ্টাই সে করবে।

প্রশ্ন : আইসিসি যে শাস্তি দিয়েছে, তাতে তো মনে হচ্ছে ভুলটা বাংলাদেশের ক্রিকেটারদেরই বেশি।

বেলিস : আমি তো আর ম্যাচ রেফারির প্রতিবেদন পড়িনি। কিন্তু ওদের জরিমানা করা হয়েছে এবং দুর্ব্যবহারের জবাব দিতে যাওয়ায় জসকেও সতর্ক করা হয়েছে। এতেই আসলে গল্পটা বোঝা যায়।

প্রশ্ন : বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছিল বলে মনে করেন কি?

বেলিস : আসলে আমি তো ওখানে ছিলাম না। সুতরাং জানিও না যে ঠিক কী বলা হয়েছিল। অবশ্য ওটা ‘লেভেল ওয়ান’ অপরাধ। কাজেই খুব বেশি সীমা ছাড়িয়েছে বলার উপায় নেই। তবে এ ধরনের বিষয় যাতে আর না ঘটে, সে জন্য আইসিসি সঠিক কাজটিই করছে। আজকাল অনেক ছোটখাটো বিষয় ধরেও জরিমানা করা হচ্ছে। আশা করব, শেষ পর্যন্ত এসব বিষয় বাইরে রেখেই আমরা মাঠে নামতে পারব।

প্রশ্ন : অধিনায়ক এবং খেলোয়াড়দের মাথা ঠাণ্ডা রাখার কোনো বার্তা দিয়েছেন?

বেলিস : আসলে ভারতীয় উপমহাদেশে এত দর্শকের সামনে আর এত গরমের মধ্যে খেলতে নেমে অনেক সময়ই এ রকম কিছু ঘটে যায়। তবে আমাদের সতর্ক থেকে এটা নিশ্চিত করতে হবে যেন এসবে আমাদের মনোযোগে ব্যাঘাত না ঘটে। এর আগেও এ বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি আমরা। বিশেষ করে পাকিস্তান সিরিজ শুরুর আগে। ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচের আগেও সম্ভবত কোচ (তিনি নিজেই) এ বিষয়টি ছেলেদের মনে করিয়ে দেবেন।

প্রশ্ন : এই ঘটনার প্রভাব কি শেষ ম্যাচে পড়বে না?

বেলিস : ওই ম্যাচটি সিরিজ নির্ধারণীই হয়ে উঠেছে। আমার মনে হয় না শেষ ম্যাচের ঘটনাটি খুব বেশি প্রভাব ফেলবে। কারণ ওরা সবাই পেশাদার ক্রিকেটার। এ ধরনের ঘটনার মধ্য দিয়ে এর আগেও ওদের সবাইকে যেতে হয়েছে। আমি বলব এ ঘটনায় আমাদের কেউ যদি সত্যিই আক্রান্ত হয়ে থাকে, তাহলে সেটি প্রতিপক্ষেরই সুবিধা করে দেবে।  

প্রশ্ন : গত ম্যাচের হারটি কতটা হতাশার?

বেলিস : যেভাবে আমরা খেলেছি, তাতে সত্যিই খুব হতাশ। আমাদের ব্যাটিং অর্ডারে যে অভিজ্ঞতার অভাব রয়েছে, সেটি আমরা জানানও দিয়ে ফেলেছি।


মন্তব্য