kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ডাচদের ফরাসি চ্যালেঞ্জ

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ফরাসি না ওলন্দাজ, কোন ঘরানার পনির সেরা তা নিয়ে ভোজনরসিকদের মাঝে বিভেদ থাকলেও এই সময়ে ফুটবলে ফ্রান্স যে নেদারল্যান্ডসের চেয়ে এগিয়ে সেটা বোধ হয় খোদ ডাচরাও মেনে নেবে! ইউরোতে রানার্স-আপ হয়েছে ফ্রান্স, যেখানে মূলপর্বে খেলারই সুযোগ হয়নি নেদারল্যান্ডসের। ফ্রান্স যেখানে ফিফা র্যাংকিংয়ের আটে, নেদারল্যান্ডস নামতে নামতে গিয়ে ঠেকেছে চব্বিশে! ইউরোর পর ২০১৮ বিশ্বকাপেও দর্শক হয়ে যেতে পারে ‘অরাঞ্জে’রা, কারণ সুইডেন-ফ্রান্স-বুলগেরিয়াকে নিয়ে তাদের গ্রুপটাকে মৃত্যুকূপই যে বলা চলে।

সুইডেনের সঙ্গে ড্র করে এসেছে ডাচরা, এবার নিজের মাঠে ফরাসি চ্যালেঞ্জে হেরে গেলে কিন্তু ‘বাই বাই রাশিয়া’ও বলতে হতে পারে!

আগের ম্যাচটি বেলারুশের সঙ্গে ৪-১ গোলে জেতায় আত্মবিশ্বাসের কমতি নেই দানি ব্লিন্দের শিষ্যদের মনে। অন্যদিকে দিদিয়ের দেশমের শিষ্যরাও কিন্তু পিছিয়ে নেই। ইউরোর ফাইনালের পর প্যারিসে খেলা প্রথম ম্যাচেই তারা বুলগেরিয়ার কাছে গোল খেয়ে বসেছিল। যদিও ৬ মিনিটেই পেনাল্টি থেকে হজম করা গোলের জবাবে ‘লে ব্লু’রা গোল করেছে ৪টি। ফ্রান্স এবং নেদারল্যান্ডস দুই দলই নিজেদের সবশেষ ম্যাচে ৪-১ গোলে জিতলেও লাভ-ক্ষতির পাল্লায় ডাচদের ক্ষতিটাই বেশি! কারণ সেই ম্যাচেই যে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়ায় ফ্রান্সের বিপক্ষে খেলা হচ্ছে না ডাচ অধিনায়ক ওয়েসলি স্নেইডারের। তাঁর জায়গায় খেলবেন ফেইনুর্দের টোনি ভিলহেনা।

ইতিহাস বলছে, ২৪ দেখায় দুই দলই জিতেছে ১০টি করে ম্যাচ আর ড্র হয়েছে ৪টি। বর্তমান বলছে, সাম্প্রতিকতম দেখায় মার্চে খেলা প্রীতি ম্যাচে আমস্টারডামে এসে ফ্রান্স জিতেছে ৩-২ গোলে। সঙ্গে দিমিত্রি পায়েত, আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানদের সাম্প্রতিক ফর্ম আমলে নিলে ফরাসিদেরই এগিয়ে রাখতে হয়।

ইউরোপজুড়ে বাছাই পর্বে আছে আরো ম্যাচ। সুইডেন খেলবে বুলগেরিয়ার সঙ্গে, পর্তুগালের প্রতিপক্ষ ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ, হাঙ্গেরি খেলবে লাটভিয়ার সঙ্গে আর বেলজিয়ামের সামনে জিব্রাল্টার। ফিফা, উয়েফা


মন্তব্য