kalerkantho


উচ্চতাকেই ভয় সেইন্টফিটের

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



উচ্চতাকেই ভয় সেইন্টফিটের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে মোটেও ফুটবল পরাশক্তি নয় বলিভিয়া, তবু তাদের মাঠ থেকে জিতে ফিরতে পেরেছে খুব কম দলই! কারণ সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে লা পাজের উচ্চতা। যতই ওপরের দিকে ওঠা, ততই তো বাতাসে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে আসা। সঙ্গে কমবে তাপমাত্রাও। থিম্পু তো সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২৩০০ মিটার ওপরে! তাই সোমবার সন্ধ্যায় চাংলিমাথন স্টেডিয়ামে স্বাগতিকদের সঙ্গে সঙ্গে প্রকৃতিও তো বিপক্ষে। সেটা যতটা সম্ভব কাটানো যায়, এ জন্য ফিটনেসে জোর দিয়েই দল সাজানোর কথা জানালেন বাংলাদেশ দলের কোচ টম সেইন্টফিট।

তাপমাত্রার সঙ্গে মানিয়ে নিতেই অনুশীলন হয়েছে সন্ধ্যা নামার পর। তবে চট করে তো আর মানিয়ে নেওয়া যাবে না, এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে খেলোয়াড়দের ফিটনেসের দিকেই বেশি গুরুত্ব সেইন্টফিটের, ‘উচ্চতাটা সমস্যা হতে পারে। এ কারণেই আমাদের সেরা শারীরিক সামর্থ্যে থাকা ১১ জন ফুটবলারকে মাঠে নামানো দরকার। সেই সঙ্গে খেলোয়াড় পরিবর্তনেও কৌশলী হতে হবে, কারণ গোটা ম্যাচ একই ছন্দে খেলা অনেকের জন্যই কঠিন হবে। ’ বাংলাদেশে ঘাসের মাঠে খেলেই অভ্যস্ত ফুটবলাররা। ভুটানে খেলতে হবে কৃত্রিম টার্ফে। সেইন্টফিট অবশ্য পায়ের নিচের জমি বদলে যাওয়াটাকে সমস্যা মনে করছেন না, ‘ঢাকার ঘাসের মাঠের চেয়ে টার্ফের মাঠ একটু দ্রুতগতির বটে, তবে তাতে কোনো সমস্যা দেখছি না। ভালো ফুটবলারদের টার্ফে আরো ভালো খেলাই দস্তুর। ’

দেশের মাটিতে প্রথম লেগে ভুটানের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু দাপটে খেলেও পায়নি গোলের দেখা। ফিনিশিংয়ের অভাব এতটাই ভুগিয়েছে যে সেইন্টফিটের কণ্ঠে ছিল হাহাকার, ‘আমায় স্ট্রাইকার দিন। আমি জয় এনে দেব। ’ শুধু সেই ম্যাচে নয়, গোল করতে না পারার ব্যর্থতায় প্রতিনিয়ত র্যাংকিংয়ে পেছাচ্ছে বাংলাদেশ। ভুটানের কাছে এবার হারলে অবনমন হবে আরো। সেটা কোনোভাবে চায় না সেইন্টফিটের দল। তাই কঠিন কন্ডিশনেও জয় ছাড়া কিছু ভাবছেন না বাংলাদেশি কোচ, ‘জয় ছাড়া কিছু ভাবছি না আমরা। ’

ম্যাচ ভেন্যুতে কালই প্রথম অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ দল। অনুশীলন শেষে ফরোয়ার্ড সাখাওয়াত হোসেন রনি জানালেন, ‘লিগে তিন ম্যাচে দুই গোল করেছি, এখন আত্মবিশ্বাসটা অনেক বেশি। ’ অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড জাহিদ হাসানও বললেন, ‘দুই দিন ধরে ভালো অনুশীলন হয়েছে, ঠাণ্ডার সঙ্গে অনেকটাই মানিয়ে নেওয়া গেছে, আমরা জয়ের জন্য সেরা চেষ্টাটাই করব। ’ দেশের মাটিতে ভুটানের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করার পর ভুটানে গিয়ে স্বাগতিকদের বিপক্ষে জিততে হলে গোল করার কোনো বিকল্প নেই। সেইন্টফিটের শিষ্যরা প্রতিকূল আবহাওয়ায় কতটা জ্বলে উঠতে পারেন, সেটাই এখন দেখার।


মন্তব্য